channel 24

সর্বশেষ

  • গোপালগঞ্জে বঙ্গবন্ধু বিশ্ববিদ্যালয়ের ভিসির পদত্যাগ দাবির প্রতি সমর্থন জানিয়ে সহকারী প্রক্টর হুমায়ুন কবিরের পদত্যাগ

  • প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশেই দুর্নীতি ও অপকর্মের বিরুদ্ধে অভিযান চলছে...

  • তথ্য প্রমাণ পেলে শুধু সম্রাট নয়, কেউ ছাড় পাবে না: স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী

  • আ.লীগের তৃণমূল থেকে উচ্চ পর্যায় দুর্নীতিতে নিমজ্জিত: ফখরুল

  • অস্ত্র ও মাদক আইনে গ্রেপ্তার কলাবাগান ক্লাবের সভাপতি...

  • সফিকুল ইসলাম ফিরোজের ১০ দিনের রিমান্ড আবেদন

  • ভিসির পদত্যাগ দাবি: গোপালগঞ্জে বঙ্গবন্ধু বিশ্ববিদ্যালয় বন্ধ ঘোষণা...

  • আন্দোলন ঘিরে বহিরাগতদের হামলায় আহত অন্তত ২০ শিক্ষার্থী

  • চট্টগ্রামে জিয়াদ হত্যা মামলার আসামি রাসেল 'বন্দুকযুদ্ধে' নিহত

  • ডেঙ্গু আক্রান্ত হয়ে ময়মনসিংহ মেডিকেলে নারীর মৃত্যু...

  • গত ২৪ ঘণ্টায় হাসপাতালে ভর্তি ৪০৮ জন: স্বাস্থ্য অধিদপ্তর

এবার সোনালী ব্যাংকের নতুন নাটক!

এবার সোনালী ব্যাংকের নতুন নাটক!

১৮ কোটি টাকা আত্মসাতের ঘটনায় তিন বছর জেল খাটার পর, উচ্চ আদালতের নির্দেশে, নিরীহ জাহালম মুক্ত হলেও, এখন নতুন নাটক শুরু করেছে অভিযুক্ত ব্যাংক। তারা জাহালমের দিকে আর্থিক সহায়তার হাত বাড়িয়েছে। কিন্তু প্রশ্ন উঠেছে, যাদের কারণে একজন নিরীহ মানুষকে জেল খাটতে হলো, সেই জালিয়াতির পেছনে কারা জড়িত?

নতুন নাটকের জন্ম বিষয়ে জানতে সোনালী ব্যাংকের টাঙ্গাঈল নাগরপুর শাখায় চ্যানেল টোয়েন্টিফোর।

অনুসন্ধান বলছে, যেখানে সরকারি ব্যাংক থেকে জমানো টাকা তুলতে গেলও হয়রানির সীমা থাকে না, সেখানে এই ব্যাংক উল্টো সহায়তার হাত বাড়িয়ে দিয়েছে জাহালমের পরিবারকে। তাও এমন সময়ে, যখন জাহালম উচ্চ আদালতের নির্দেশে জেল থেকে মুক্তি পেয়েছেন।

দুদকের ৩২ মামলায় কিভাবে আসামি হয়েছিলেন জাহালম, সে বিষয়ে কথা বলেন তার ভাই শাহানুর মিয়া। তার বক্তব্যের সূত্র ধরে কথা হয় ব্যাংক কর্মকর্তা নাজিউর রহমান শুভ্রর সাথে।

সোনালী ব্যাংকের অর্থ আত্মসাৎ হলেও, এর একটি বড় অংশ তোলা হয় ব্র্যাক ব্যাংকের কয়েকটি হিসাব থেকে। এমনই একটি হিসাবে আবু সালেকের শনাক্তকারি ছিলেন ব্যাংক কর্মকর্তা ফয়সাল কায়েস, আর শাখা ব্যবস্থাপক ছিলেন সাবিনা শারমিন। এভাবে অ্যাকাউন্ট ধরে তদন্ত করলে, জাহালমের এই ঘটনার পাশাপাশি, বেরিয়ে আসতে পারে ব্যাংক জালিয়াতির অনেক তথ্য।

সংশ্লিষ্ট সংবাদ

সর্বশেষ সংবাদ

জাতীয় খবর