channel 24

সর্বশেষ

  • ঢাবি ভর্তি পরীক্ষায় প্রশ্নফাঁস: বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীসহ...

  • পলাতক ৭৮ জনের বিরুদ্ধে গ্রেপ্তারি পরোয়ানা জারি

  • রোহিঙ্গাদের দ্রুত ফেরত না পাঠালে নিরাপত্তা ও...

  • স্থিতিশীলতা ব্যাহত হওয়ার শঙ্কা প্রধানমন্ত্রীর

  • ঋণখেলাপিদের সুবিধা দিতে পাগল হয়ে গেছে...

  • বাংলাদেশ ব্যাংক: হাইকোর্ট; প্রজ্ঞাপনের বিষয়ে আদেশ কাল

  • ১৯৮৯ সালের হত্যা মামলা: ৩ মাসের মধ্যে নিস্পত্তির নির্দেশ হাইকোর্টের...

  • ২৮ বছর পর মামলা সচল হওয়ায় সাগেরা মোর্শেদের পরিবারের সন্তুষ্টি

  • ডিআইজি মিজানের বিরুদ্ধে আইনানুযায়ী ব্যবস্থা: স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী...

  • অস্ত্রের লাইসেন্স বাতিল ও জব্দে দুদকের চিঠি

  • দুই সাংবাদিককে ভিন্ন ভাষায় তলবকারী কর্মকর্তার বিরুদ্ধে...

  • বিভাগীয় ব্যবস্থা নেয়ার নির্দেশ কমিশনের; চিঠির অবমাননাকর অংশ...

  • বাদ না দিলে আরও কঠোর কর্মসূচির ঘোষণা গণমাধ্যমকর্মীদের

  • আসামে নাগরিকত্ব ইস্যু: খসড়া তালিকা থেকে ১ লাখ ২ হাজার...

  • ৪৬২ জনকে বাদ দিয়ে নতুন তালিকা প্রকাশ

যৌতুক মামলায় পুলিশের এএসআই মাজহারুল কারাগারে

যৌতুক মামলায় পুলিশের এএসআই মাজহারুল কারাগারে

স্ত্রীর দায়ের করা যৌতুক মামলায় নেত্রকোনায় পুলিশের সহকারী উপপরিদর্শক (এএসআই) মাজহারুল ইসলামকে (৩৫) কারাগারে পাঠানো হয়েছে। নেত্রকোনা নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইব্যুনালে হাজির হয়ে বৃহস্পতিবার (৩ জানুয়ারী) বিকেলে জামিন প্রার্থনা করলে বিচারক জামিন নামঞ্জুর করে তাঁকে কারাগারে পাঠিয়ে দেন।

মদন উপজেলার শিবাশ্রম গ্রামে পুলিশ কর্মকর্তা মাজহারুল ইসলামের বাড়ি। ঢাকা মেট্রোপলিটন পুলিশে (ডিএমপি) তিনি বর্তমানে কর্মরত। তাঁর স্ত্রীর নাম নিলুফার ইয়াসমিন ওরফে লাকী (২৪)।

স্থানীয় বাসিন্দা ও আদালতসংশ্লিষ্ট সূত্রে জানা গেছে, ২০১৩ সালের ২২ জুন মদনের শিবাশ্রম গ্রামের মৃত আবদুল হাকিমের ছেলে মাজহারুল ইসলামের সঙ্গে নেত্রকোনা পৌর শহরের কাটলি এলাকার বাসিন্দা আবদুল ওয়াদুদের মেয়ে নিলুফার ইয়াসমিনের বিয়ে হয়। বিয়ের কিছুদিন পর থেকেই মাজহারুল ইসলাম তাঁর স্ত্রীকে বাবার বাড়ি থেকে যৌতুকের টাকা আনার জন্য নানানভাবে চাপ দেন।

নিলুফার তাঁর বাবার কাছ থেকে ১ লাখ টাকা এনেও দেন। মোটরসাইকেল কেনার কথা বলে পরে আরও টাকা আনার জন্য চাপ দিতে থাকেন। মাজহারুল ২০১৭ সালের ৩ মে স্ত্রী নিলুফারকে ৩ লাখ টাকা এনে দিতে বলেন। বিভিন্ন সময় নিলুফারকে শারীরিক ও মানসিক নির্যাতন করেন মাজহারুল টাকা দিতে অপারগতা প্রকাশ করায়।

নেত্রকোনার কোর্ট পুলিশের পরিদর্শক গোলক চন্দ্র বসাক নারী ও শিশু নির্যাতন মামলায় মাজহারুল ইসলামকে কারাগারে পাঠানোর বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

সংশ্লিষ্ট সংবাদ

সর্বশেষ সংবাদ

জাতীয় খবর