channel 24

সর্বশেষ

  • কক্সবাজারে জেলেদের সহায়তার দাবিতে মানববন্ধন

  • ট্রেনের আগাম টিকিট বিক্রির শেষদিনেও পিছু ছাড়েনি ভোগান্তি

  • বান্দরবানে বন্য হাতির আক্রমণে নিহত ১

  • ফটোশুট ও গেমসে মাতলো সাকিব-তামিম-মুশফিকরা

  • এয়ারক্রাফ্ট ছিনতাই চেষ্টা নস্যাতে: ক্রুদের সম্মাননা জানালো বিমান

  • দীর্ঘ প্রতিক্ষার পর হালদায় ডিম ছেড়েছে কার্প জাতীয় মাছ

  • খালেদা জিয়ার স্বাস্থ্য নিয়ে অপরাজনীতি না করার আহ্বান তথ্যমন্ত্রীর

  • নুসরাত হত্যা: ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনে মামলার অভিযোগ প্রমাণিত

  • টানাপোড়নের মধ্যেই হুয়াওয়ের নতুন স্মার্ট ডিভাইস উন্মোচন

  • ক্রেতাদের পদচারণায় মুখর চাঁদপুর, লক্ষ্মীপুর ও বি. বাড়িয়ার বিপণি বিতান

  • কেরালায় হামলার উদ্দেশ্যে নৌপথে শ্রীলঙ্কা ছেড়েছে ১৫ আইএস জঙ্গি

  • ঘন্টায় ৩৬০ কিলোমিটার গতির বুলেট ট্রেনের পরীক্ষা চালালো জাপান

  • ঢাকা রিপোর্টার্স ইউনিটির দুই যুগপূর্তি

  • নতুন টাকা: একজন সর্বোচ্চ ১৮ হাজার, পাওয়া যাচ্ছে ৩০ টি শাখায়

  • যুক্তরাষ্ট্রে বিনিয়োগ বাড়াতে জাপানি ব্যবসায়ীদের প্রতি ট্রাম্পের আহ্বান

সোনালী ব্যাংকের চার কর্মকর্তার বিরুদ্ধে অর্থপাচার মামলা চলবে: হাইকোর্ট

সোনালী ব্যাংকের চার কর্মকর্তার বিরুদ্ধে অর্থপাচার মামলা চলবে: হাইকোর্ট

সোনালী ব্যাংকের চার কর্মকর্তার বিরুদ্ধে ঋণ কেলেঙ্কারি, অর্থ পাচার ও অর্থ আত্মসাতের মামলা বাতিল প্রশ্নে জারি করা রুল খারিজ করে দিয়েছে হাই কোর্ট।

মামলা বাতিল চেয়ে চার কর্মকর্তার করা ফৌজদারি রিভিশন আবেদনের প্রেক্ষিতে কেন মামলাটি বাতিল করা হবে না, জানতে চেয়ে রুল জারি করেছিল আদালত।

সেই রুল খারিজের পাশাপশি মামলাটির কার‌্যক্রমে যে স্থগিতাদেশ দিয়েছিল আদালত, তাও তুলে নেওয়া হয়েছে। ফলে বিচারিক আদালতে মামলাটি চলতে কোনো আইনগত কোনো বাধা থাকছে না বলে জানিয়েছেন সংশ্লিষ্ট আইনজীবীরা।

বিচারপতি মো. নজরুল ইসলাম তালুকদার ও বিচারপতি কে এম হাফিজুল আলমের হাই কোর্ট বেঞ্চ বৃহস্পতিবার এ আদেশ দেয়। রুল শুনানিতে রাষ্ট্র পক্ষে ছিলেন ডেপুটি অ্যাটর্নি জেনারেল এ কে এম আমিন উদ্দিন মানিক ও সহকারী অ্যাটর্নি জেনারেল হেলেনা বেগম চায়না।

দুদকের পক্ষে শুনানিতে ছিলেন আইনজীবী ফৌজিয়া আখতার পপি। আর আসামি পক্ষে শুনানি করেন আইনজীবী ওজি উল্লাহ।  

আমিন উদ্দিন মানিক পরে বলেন, “মামলা বাতিল প্রশ্নে জারি করা রুল খারিজ করে দেওয়ার পাশাপাশি এ মামলার উপর যে স্থগিতাদেশ দিয়েছিল তা তুলে নেওয়া হয়েছে। এবং বিচারিক আদালতকে মামলাটি ছয় মাসের মধ্যে নিষ্পত্তি করতে বলা হয়েছে।”

দুই বছর আগে সোনালী ব্যাংকের নোয়াখালী শাখা থেকে সেসার্স ডলফিন সি ফুড ইন্ডাস্ট্রিজের সত্ত্বাধিকারী নিজাম উদ্দিন ফারুককে ১ কোটি ৯৭ লাখ ১৬ হাজার ৭০০ টাকা ঋন দিয়ে যোগসাজশে এ টাকা আত্মসাৎ ও পাচার করে।

পরে ঋণ কেলেঙ্কারি, অর্থ পাচার ও অর্থ আত্মসাতের অভিযোগ এনে ২০১৬ সালের ১৭ এপ্রিল সোনালী ব্যাংক নোয়াখালী শাখার ঋণ বিভাগের ইনচার্জ মোস্তফা কামাল সুধারাম থানায় মামলা করেন।

ঋণ গ্রহিতা নিজাম উদ্দিন ফারুকসহ এ মামলায় আসামি করা হয় বর্তমানে সোনালী ব্যাংক নোয়াখালীর চরবাটা শাখার সিনিয়র অফিসার জাকের উল্লাহ, ফেনী সিলোনিয়া শাখার ক্যাশ কর্মকর্তা এম রহমান, কিশোরগঞ্জ প্রিন্সিপাল ব্রাঞ্চের ডিজিএম মীর আবদুল লতিফ ও সোনালী ব্যাংকের একজন সিনিয়র প্রিন্সিপাল অফিসার থেকে অবসরে যাওয়া আব্দুল আল মামুনকে।

পরে দুদকের উপ-পরিচালক মো. মশিয়ুর রহমান ওই বছরের ২৩ অক্টোবর এই চার কর্মকর্তাসহ ৭ জনকে অভিযুক্ত করে অভিযোগ পত্র দাখিল করেন।

পরে চলতি বছরের ৮ জুলাই নোয়াখালী বিশেষ জজ আদালতে আসামিদের বিরুদ্ধে অভিযোগ গঠনের আদেশ দেয়। এ আদেশের বিরুদ্ধে মামলা বাতিল চেয়ে গত ১২ আগস্ট হাই কোর্টে রিভিশন আবেদন করেন এই চার কর্মকর্তা।

পরে ১৪ আগস্ট হাই কোর্ট মামলাটি কেন বাতিল হবে না, জানতে চেয়ে রুল জারি করার পাশাপাশি ও কার্যক্রমও স্থগিত করেন।   

সেই স্থগিতাদেশ তুলে নেওয়ার পাশাপাশি রুল খারিজ করে আদেশ দিল আদালত।

সংশ্লিষ্ট সংবাদ

সর্বশেষ সংবাদ

জাতীয় খবর