channel 24

সর্বশেষ

  • কোপা আমেরিকা: আর্জেন্টিনার চুড়ান্ত স্কোয়াড ঘোষণা

  • এফ আর টাওয়ার দুর্নীতিতে সাবেক রাজউক চেয়ারম্যানসহ ১৩ জন জড়িত

  • চীনের কাছে দিন দিন চাহিদা বাড়ছে যুক্তরাষ্ট্রের

  • থেরেসা মে'র নতুন ব্রেক্সিট বিলে মন্ত্রিসভার সমর্থন

  • মার্কেটগুলোতে চলছে ক্রেতা আকর্ষণের প্রতিযোগিতা

  • ধান খেতে আগুন অন্তর্ঘাত কিনা, খতিয়ে দেখা হবে: কাদের

  • ধানমন্ডির বাবুর্চি রেস্টুরেন্টকে ৫০ হাজার টাকা জরিমানা

  • এসএ টিভির সিইও সালাউদ্দিন জাকিসহ ৪ জনের বিরুদ্ধে গ্রেপ্তারি পরোয়ানা

  • দুধে ক্ষতিকর উপাদান: ভোক্তার পাশাপাশি বিপাকে খামারিরা

  • বগুড়া-৬ আসনের উপনির্বাচনে বিএনপির মনোনয়ন পাচ্ছেন গোলাম সিরাজ

  • ইন্দোনেশিয়ায় নির্বাচন পরবর্তী সহিংসতায় নিহত ৬

  • ঢাকা-নারায়ণগঞ্জ রুটে বিআরটিসির নতুন এসি বাস চালু

  • ময়নাতদন্ত পাল্টে দেয়া: সিভিল সার্জনসহ দুই চিকিৎসকের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেয়ার নির্দেশ

  • কঠোর হতে বাধ্য করবেন না, গ্রীন লাইনকে হাইকোর্ট

  • অনলাইনে টিকিট জটিলতা: রেলপথমন্ত্রীর দুঃখ প্রকাশ

খালেদা জিয়ার সাজার বিরুদ্ধে আপিল ও জামিন চাওয়ার সিদ্ধান্ত

খালেদা জিয়ার সাজার বিরুদ্ধে আপিল ও জামিন চাওয়ার সিদ্ধান্ত

জিয়া অরফানেজ ট্রাস্ট ও জিয়া চ্যারিটেবল ট্রাস্ট দুর্নীতি মামলায় বিএনপি চেয়ারপার্সন খালেদা জিয়াকে দেয়া সাজার বিরুদ্ধে আপিল এবং জামিন চাওয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছে বিএনপি।

মঙ্গলবার (১৩ নভেম্বর) রাতে বিএনপির চেয়ারপার্সনের গুলশান রাজনৈতিক কার্যালয়ে এক সভায় এ সিদ্ধান্ত হয়। বৈঠকে বিএনপির শীর্ষ নেতা ও আইনজীবীরা উপস্থিত ছিলেন।

বৈঠক সূত্রে জানা যায়, খালেদা জিয়ার মুক্তির বিষয়টি আইনিভাবে মোকাবেলার সিদ্ধান্ত হয়েছে। আগামী একাদশ নির্বাচনে দলের এ প্রধান যেন অংশ নিতে পারেন সে লক্ষ্যেই এই আইনি সিদ্ধান্ত হয়েছে।

বৈঠকে অংশ নেয়া অ্যাডভোকেট সানাউল্লাহ মিয়া জানান, বিএনপি চেয়ারপারসনকে  অরফানেজ ও চ্যারিটেবল ট্রাস্ট মামলায় মোট ১৭ বছরের সাজা দেয় পৃথক আদালত। যার ফলে তার নির্বাচনে অংশগ্রহণ অনিশ্চিত হয়ে পড়েছে। তাই সেই সাজার বিরুদ্ধে আমরা আইনগত দিক নিয়ে আলোচনা করেছি। বৈঠকে সাজার বিরুদ্ধে আপিল ও জামিনের বিষয়ে সিদ্ধান্ত গৃহীত হয়।

তিনি বলেন, অরফানেজ ট্রাস্ট মামলায় খালেদা জিয়ায় পাঁচ বছরের সাজা বাড়িয়ে দশ বছর করেন হাইকোর্ট। এ রায়ের পূর্ণাঙ্গ কপি এখনো প্রকাশিত হয়নি। কপি প্রকাশিত হলে আমরা লিভ-টু আপিল করব। আগামি নির্বাচনে খালেদা জিয়া যেন অংশগ্রহণ করতে পারেন সেই লক্ষেই এ সিদ্ধান্ত নেয়া হয়েছে বলে জানান তিনি।

এ বৈঠকে বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর, স্থায়ী কমিটির সদস্য ব্যারিস্টার মওদুদ আহমদ, ব্যারিস্টার জমির উদ্দিন সরকার, আমীর খসরু মাহমুদ চৌধুরী, অ্যাডভোকেট খন্দকার মাহবুব হোসেন, অ্যাডভোকেট জয়নুল আবেদীন, এজে মোহাম্মদ আলী, ব্যারিস্টার এম মাহবুব উদ্দিন খোকন, ব্যারিস্টার বদরুদ্দোজা বাদল, অ্যাডভোকেট সানাউল্লাহ মিয়া প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।

সংশ্লিষ্ট সংবাদ

সর্বশেষ সংবাদ

জাতীয় খবর