channel 24

সর্বশেষ

  • লেভেল প্লেয়িং ফিল্ড তৈরির দায়িত্ব ইসির: ওবায়দুল কাদের...

  • ভালো প্রার্থী পেলে মহাজোটের অন্য দলকে আসন ছাড়বে আ.লীগ

  • মুক্তিযুদ্ধের শক্তি ঐক্যবদ্ধ, বিজয় সুনিশ্চিত: নাসিম

  • বর্তমান সরকারের ক্ষমতায় থাকা অসাংবিধানিক: ড. কামাল

  • সরকার ইচ্ছামতো বিচার ব্যবস্থা নিয়ন্ত্রণ করছে: ফখরুল

  • নির্বাচন বানচালের চেষ্টা করলে জাতি তাদের ক্ষমা করবে না: বি. চৌধুরী

  • প্রশ্নবিদ্ধ নির্বাচন চায় না ইসি, নিরপেক্ষতার প্রশ্নে ছাড় নয়: কমিশনার শাহাদাত

  • কাল শুরু পিইসি ও ইবতেদায়ি পরীক্ষা; থাকছে না এমসিকিউ

হাসপাতাল থেকে কারাগারে খালেদা জিয়া

হাসপাতাল থেকে কারাগারে খালেদা জিয়া

বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয় থেকে কারাগারে নেয়া হয়েছে বিএনপি চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়াকে। মাঝে তাকে হাজির করা হয়, ঢাকার পুরাতন কেন্দ্রীয় করাগারে স্থাপিত বিশেষ জজ আদালতে। তার উপস্থিতিতেই শুরু হয় নাইকো দুর্নীতি মামলার অভিযোগ গঠনের শুনানি। মামলার পরবর্তী শুনানি ১৪ নভেম্বর।

তবে, বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীরের দাবি, জোর করে কারাগারে নেয়া হয়েছে বেগম জিয়াকে। যদিও বিএসএমএমইউ কর্তৃপক্ষ বলছে, ছাড়পত্র দিয়েই বেগম জিয়াকে কারাগারে পাঠানো হয়েছে।

গেলো ৬ অক্টোবর থেকে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয় চিকিৎসাধীন ছিলেন বিএনপি চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়া। বৃহস্পতিবার বেলা ১১টার পর তাকে ছাড়পত্র দিয়ে নেয়া হয় ঢাকার পুরাতন কেন্দ্রীয় কারাগারে স্থাপিত অস্থায়ী বিশেষ জজ আদালতে। 

হাসপাতালের পরিচালক জানান, বেগম জিয়ার স্বাস্থ্য স্থিতিশীল রয়েছে। তবে তার চিকিৎসা চলমান থাকবে।

দুপুর বারোটার দিকে শুরু হয় নাইকো দুর্নীতি মামলার কার্যক্রম। যেখানে অভিযোগ গঠনের আংশিক শুনানি করেন মামলার অন্যতম আসামি মওদুদ আহমদ। এসময় বেগম জিয়া দাবি করেন, এই চুক্তি করা হয়েছে ১৯৯৬ সালে ক্ষমতাসীন আওয়ামী লীগ সরকারের আমলে। পরবর্তীতে চারদলীয় জোট সরকার শুধু চুক্তির ধারাবাহিকতা রক্ষা করেছে।

তবে, দুদকের আইনজীবী দাবি করেন, আওয়ামী লীগ সরকারের চুক্তিতে দেশের স্বার্থ থাকলেও সেই অনুযায়ি কাজ করেনি পরবর্তী সরকার। 

এসময় আদালতে উপস্থিত ছিলেন বিএনপি মহাসচিব, মির্জা ফখরুল ইসলাম। আদালতের কার্যক্রম শেষে তিনি দাবি করেন, কোনো ছাড়পত্র ছাড়াই, জোর করে খালেদা জিয়াকে আদালতে আনা হয়েছে।

মামলার কার্যক্রম শেষে বেগম জিয়াকে নেয়া হয় কারাগারে। নাইকো মামলায় ১১ আসামির মধ্যে ৪ জন পলাতক আর ১ জন মারা গেছেন।

 

সংশ্লিষ্ট সংবাদ

সর্বশেষ সংবাদ

জাতীয় খবর