channel 24

সর্বশেষ

  • বিশ্বকাপ: আফগানিস্তানের বিপক্ষে টস হেরে ব্যাট করছে বাংলাদেশ...

  • একাদশে ফিরেছেন মোসাদ্দেক এবং সাইফুদ্দিন

  • মৌলভীবাজারের কুলাউড়ায় ট্রেন দুর্ঘটনায় নিহত ৪, আহত শতাধিক...

  • সারা দেশের সাথে সিলেটের রেল যোগাযোগ বন্ধ...

  • যোগাযোগ স্বাভাবিক হতে ২৪ ঘণ্টা সময় লাগতে পারে: মন্ত্রিপরিষদ সচিব...

  • ঢাকা থেকে আজ সিলেট যাবে না জয়ন্তিকা ও কালনি এক্সপ্রেস

  • অবৈধ সম্পদ অর্জন ও তথ্য গোপনের অভিযোগে ডিআইজি মিজানসহ...

  • ৪ জনের বিরুদ্ধে দুদকের মামলার অনুমোদন

  • খাদ্য আদালতের মামলায় প্রাণ আরএফএলের চেয়ারম্যানের জামিন

  • আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা নামে নতুন পদক দেবে সরকার...

  • জাতীয় ও আন্তর্জাতিক ক্ষেত্রে দুটি করে পদক; মন্ত্রিসভায় খসড়ার অনুমোদন

  • পাবনা মানসিক হাসপাতালে সুস্থ হওয়ার পরও ২৩ জন ভর্তি কেন...

  • সরকারের কাছে জানতে চেয়েছেন হাইকোর্ট

বাবরের ফাঁসি, তারেকের যাবজ্জীবন

বাবরের ফাঁসি, তারেকের যাবজ্জীবন

২১ আগস্ট গ্রেনেড হামলা মামলায়, হামলার সময়ে বিএনপি-জামায়াত সরকারের স্বরাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী লুৎফুজ্জামান বাবর ও সাবেক উপমন্ত্রী আব্দুস সালাম পিন্টুসহ ১৯ জনের মৃত্যুদণ্ড দিয়েছেন আদালত।

২১ আগস্ট গ্রেনেড হামলা মামলায় বিএনপির ভারপ্রাপ্ত চেয়ারপারসন তারেক রহমান ও খালেদা জিয়ার রাজনৈতিক সচিব হারিছ চৌধুরীসহ ১৯ জনের যাবজ্জীবন কারাদণ্ড দেওয়া হয়েছে।

মামলার আরও ১১ আসামিকে বিভিন্ন মেয়াদে সাজার আদেশ দেওয়া হয়েছে। মামলার মোট ৫২ আসামির মধ্যে তিন জনের অন্য মামলায় মৃত্যুদণ্ড কার্যকর হয়েছে।

বুধবার (১০ অক্টোবর) পুরান ঢাকার নাজিমুদ্দিন রোডের পুরাতন কেন্দ্রীয় কারাগারের সামনে স্থাপিত ঢাকার এক নম্বর দ্রুত বিচার ট্রাইব্যুনালের বিচারক শাহেদ নূর উদ্দিনের আদালত এ রায় ঘোষণা করেন।

গ্রেনেড নিক্ষেপ ও বিস্ফোরণ ঘটিয়ে এবং এই অপরাধে সহায়তা করে হত্যার অভিযোগে মৃত্যুদণ্ডের সাজা পাওয়া আসামিরা হলেন: আলহাজ্ব মাওলানা মো. তাজউদ্দিন, মো. লুৎফুজ্জামান বাবর, অবসরপ্রাপ্ত মেজর জেনারেল রেজ্জাকুল হায়দার চৌধুরী, ব্রিগেডিয়ার জেনারেল আব্দুর রহিম, মো. আব্দুস সালাম পিন্টু, হানিফ পরিবহনের মালিক মো. হানিফ, মাওলানা আব্দুস সালাম, মোহাম্মদ আব্দুল মাজেদ ভাট ওরফে মো. ইউসুফ ভাট, আব্দুল মালেক ওরফে গোলাম মোহাম্মদ ওরফে জি. এম, মাওলানা শওকত ওসমান ওরফে শেখ ফরিদ, মহিবুল্লাহ ওরফে মফিজুর রহমান ওরফে অভি, মাওলানা আবু সাঈদ ওরফে ডা. জাফর, আবুল কালাম আজাদ ওরফে বুলবুল, মো. জাহাঙ্গীর আলম, হাফেজ মাওলানা আবু তাহের, হোসাইন আহম্মেদ তামিম, মঈন উদ্দিন শেখ ওরফে মুফতি মঈন ওরফে কাজা ওরফে আবু জানদাল ওরফে মাসুম বিল্লাহ, মো. রফিকুল ইসলাম ওরফে সবুজ ওরফে খালিদ সাইফুল্লাহ ওরফে শামিম ওরফে রাশেদ ও মো. উজ্জল ওরফে রতন। এর মধ্যে মওলানা মো. তাজউদ্দিন পলাতক, বাকি সবাই আদালতে হাজির ছিলেন।

এই ১৯ জনকে ১৯০৮ সালের বিস্ফোরক দ্রব্যাদি আইনের (সংশোধনী-২০০২) ৩ ও ৬ ধারায় দোষী সাব্যস্ত করে মৃত্যুদণ্ড দেওয়া হয়েছে। সেইসঙ্গে প্রত্যেককে এক লাখ টাকা করে জরিমানা করা হয়েছে। রায়ে বলা হয়েছে, মৃত্যু না হওয়া পর্যন্ত আসামিদের গলায় ফাঁসি ঝুলিয়ে রাখার নির্দেশ প্রদান করা হলো।

এর মাধ্যমে ইতিহাসের অন্যতম ভয়াবহ এই গ্রেনেড হামলার ১৪ বছর এবং এ ঘটনায় দায়ের করা মামলার প্রথম অভিযোগপত্র দাখিলের ১০ বছর পর রায় ঘোষণা হলো।

সংশ্লিষ্ট সংবাদ

সর্বশেষ সংবাদ

জাতীয় খবর