channel 24

সর্বশেষ

  • জরুরি অবতরণ ইউএস বাংলার কক্সবাজারগামী ফ্লাইট, আহত ৪...

  • বিকাল সাড়ে ৪টা পর্যন্ত বিমান ওঠানামা বন্ধ

  • রোহিঙ্গা শরণার্থীদের নিয়ে সংকটে ভুগছে বাংলাদেশ: প্রধানমন্ত্রী

  • জিয়া চ্যারিটেবল মামলা: খালেদা জিয়া ও মনির জামিনে থাকবেন...

  • দুদকের রায়ের তারিখ ধার্যের আবেদন বিষয়ে আদেশ ৩০ সেপ্টেম্বর

  • জনগণের তথ্যের অধিকার প্রতিষ্ঠায় গণমাধ্যমকে...

  • অতন্দ্র প্রহরীর ভূমিকা পালন করতে হবে: প্রধান বিচারপতি

  • মালয়েশিয়ার কুয়ালালামপুরে ১৪৫ বাংলাদেশিসহ ১৭৩ জন আটক

  • লিবিয়া থেকে আজ দেশে ফিরছেন ১৫৭ 'অবৈধ' বাংলাদেশি

  • এসকে সিনহার ব্যাংক হিসাবে অর্থ জমার ঘটনা অনুসন্ধানে...

  • ফারমার্স ব্যাংকের সাবেক ব্যবস্থাপনা পরিচালক...

  • এ কে এম শামীমসহ ৬ জনকে জিজ্ঞাসাবাদ করছে দুদক

  • ড. মঈন খানের বাসায় মার্কিন রাষ্ট্রদূতসহ কূটনীতিকরা...

  • নৈশভোজের আয়োজন ছিল, রাজনীতি নিয়ে আলোচনা হয়নি: মান্না

  • মাদকবিরোধী অভিযান: মুন্সিগঞ্জের মীরকাদিমে একজন নিহত

  • এশিয়া কাপ: আজ মুখোমুখি বাংলাদেশ-পাকিস্তান (বিকাল ৫:৩০)...

  • জয়ী দল ফাইনাল খেলবে ভারতের বিপক্ষে

ভুয়া নিয়োগপত্র দিয়ে দেড় কোটি টাকা আত্মসাৎ

 ভুয়া নিয়োগপত্র দিয়ে দেড় কোটি টাকা আত্মসাৎ

সেনাবাহিনীর সিভিল কাজে যোগদানের নকল নিয়োগপত্র দিয়ে নড়াইলের ৩০জন বেকার যুবকের কাছ থেকে দেড় কোটি টাকা হাতিয়ে নিয়েছে একটি চক্র। সরকারি চাকরি পাওয়ার আশায় প্রতারকদের হাতে সর্বস্ব তুলে দিয়ে এখন টাকা ফেরত পাওয়ার আশায় দ্বারে দ্বারে ঘুরছেন তারা। স্থানীয়দের তোপের মুখে এরইমধ্যে গা ঢাকা দিয়েছেন অভিযুক্ত রমজান সিকদার। ঘটনা তদন্ত করে ব্যবস্থার আশ্বাস দিয়েছেন পুলিশ সুপার।
নড়াইলের কালিয়া উপজেলার মাউলী গ্রাম। এই গ্রামের বেকার যুবক রিপন অধিকারী, গত বছরের ডিসেম্বরে স্থানীয় ইউপি সদস্য বাসুদেবের মাধ্যমে সাড়ে ৫ লাখ টাকা দেন। তাকে সেনাবাহিনীর সিভিল কাজের জন্য একটি নিয়োগপত্রও দেয়া হয়। কিন্তু কাজে যোগ দিতে গিয়ে রিপন জানতে পারেন, নিয়োগপত্রটি ভুয়া। অনুপ সরকার ও দেবাশীষ পাল নামে গ্রামের আরও দুই যুবক একইভাবে সাড়ে ৫ লাখ টাকা করে ঘুষের বিনিময়ে নিয়োগপত্র নেন।
একইভাবে প্রতারণা শিকার হয়েছেন, অজয় বিশ্বাস নামে এক দোকানদার। তিনিও সেনাবাহিনীতে মালি পদের জন্য রমজান সিকদার নামে একজনকে এক লাখ টাকা দেন।
কলাগাছি গ্রামের এরশাদ শেখ, তার ভাগ্নে আবু তাহের গাজী এবং শ্যালক হিরাঙ্গির গাজীকে সেনাবাহিনীর মালি পদে চাকরি দেয়ার কথা বলে তাদের কাছ থেকে সাড়ে ১০ লাখ টাকা নেন। তারা সবাই কাজে যোগ দিতে গিয়ে জানতে পারেন, নিয়োগপত্র নকল।
অভিযোগ উঠেছে, অভিযুক্ত রমজান সিকদার এরইমধ্যে গা ঢাকা দিয়েছেন। বাড়িতে গিয়ে পাওয়া যায়নি তাকে। তবে তার স্ত্রী সবকিছু এড়িয়ে গেছেন।
পুলিশ সুপার বলছেন, ঘটনা তদন্ত করে ব্যবস্থা নেয়া হবে।
সেনাবাহিনীতে চাকরির ভুয়া নিয়োগপত্র তৈরির পেছনে বড় কোনো চক্র আছে কিনা, সেটি খতিয়ে দেখার পাশাপাশি অভিযুক্তদের দ্রুত গ্রেপ্তার করে টাকা ফেরতের উদ্যোগ নেবে প্রশাসন, এমন প্রত্যাশা ভূক্তভোগীদের।

সর্বশেষ সংবাদ

জাতীয় খবর