channel 24

সর্বশেষ

  • নিউইয়র্কে গত ২৪ ঘন্টায় ৫ বাংলাদেশি বংশোদ্ভূত নাগরিকের মৃত্যু

  • করোনায় ক্ষতির মুখে ছাপা অক্ষরের গণমাধ্যম

  • নিম্নবিত্তের প্রতিদিনের খাবার জোটাতে নীরব আর্তনাদ

  • গণমাধ্যমের জন্য জরুরি প্রণোদনা প্যাকেজ দাবি এডিটরস গিল্ড বাংলাদেশের

  • ফিলিপাইনে উড্ডয়নের পরপরই বিমানে আগুন, নিহত ৮

  • শেরপুরে জ্বর ও শ্বাসকষ্ট নিয়ে এক নির্মাণ শ্রমিকের মৃত্যু

  • করোনা: বিশ্বে প্রাণহানির সংখ্যা প্রায় ৩৪ হাজার, আক্রান্ত ৭ লাখ ২০ হাজার

  • ইতালিতে গত ২৪ ঘন্টায় আরও ৭৫৬ জনের প্রাণহানি

  • দানব হয়ে উঠছে করোনা, প্রাণহানি ৩২ হাজার ১৩৭ জনের

  • চার মাসের বেতন নেবেন না রোনালদো

  • করোনা প্রতিরোধে দাতব্য সংস্থা 'দ্য সাকিব আল হাসান ফাউন্ডেশন'র আত্মপ্রকাশ

  • বাহাত্তরে বঙ্গবন্ধুর টাঙ্গাইল সফরে ১ লাখ ৪ হাজার অস্ত্র জমা দেন মুক্তিযোদ্ধারা

  • স্পেনে করোনাভাইরাসে গত ২৪ ঘণ্টায় ৮৩৮ জনের প্রাণহানি

  • কাঁচা পাট ও চিংড়ি রপ্তানি বন্ধে খুলনায় কর্মহীন ২৩ হাজারের বেশি শ্রমিক

  • করোনার দুশ্চিন্তায় জার্মান মন্ত্রীর আত্মহত্যা

কোন ধরনের চপিং বোর্ড স্বাস্থ্যকর ও নিরাপদ?

কোন ধরনের চপিং বোর্ড স্বাস্থ্যকর ও নিরাপদ?

রান্নাঘরে বর্তমানে অনেকেই বটির ব্যবহার করেন না। অল্প জায়গায় তৈরি রান্নাঘরে দাঁড়িয়ে ছুরি আর কাটিং বোর্ড বা চপিং বোর্ডে শাক-সবজি, তরকারি কাটতেই সাচ্ছন্দ বোধ করেন বেশির ভাগ গৃহিনী। তাই ধীরে ধীরে বেশির ভাগ রান্নাঘরেই এখন বটির জায়গা এখন দখল করেছে ছুরি আর চপিং বোর্ড।

বাজারে দু’ ধরনের চপিং বোর্ড কিনতে পাওয়া যায়: প্লাস্টিকের আর কাঠের তৈরি। কিন্তু কোন ধরনের চপিং বোর্ড স্বাস্থ্যের পক্ষে নিরাপদ আর কোনটি ক্ষতিকর, তা জানেন কি?

আসুন জেনে নেওয়া যাক:

আমরা অনেকেই মনে করি, প্লাস্টিকের বোর্ড কাঠের বোর্ডের চেয়ে বেশি নিরাপদ, অনেক বেশি পরিচ্ছন্ন। কিন্তু বাস্তবে এ ধারণা সঠিক নয়। একাধিক গবেষণায় দেখা গিয়েছে, প্লাস্টিকের বোর্ডের তুলনায় কাঠের বোর্ড অনেক বেশি স্বাস্থ্যকর। প্রতিদিন ব্যবহারে প্লাস্টিকের বোর্ডে যত খাঁজ বা দাগ পড়ে যায়, সেগুলির মধ্যে অনেক ব্যাকটেরিয়া বাসা বাঁধতে পারে। সাবান পানি দিয়ে ভাল করে ধোয়ার পরও এর মধ্যে জীবনু থেকে যেতে পারে। ফলে আপাত দৃষ্টিতে পরিষ্কার মনে হওয়া প্লাস্টিকের চপিং বোর্ড মোটেই স্বাস্থ্যের জন্য নিরাপদ নয়।

ইউনিভার্সিটি অব ক্যালিফোর্নিয়ার অধ্যাপক ডিন ও’ক্লিভার এ বিষয়ে গবেষণা করে দেখেন, প্লাস্টিকের চেয়ে কাঠের চপিং বোর্ডে স্যালমোনেলার (এক ধরনের ক্ষতিকর ব্যাকটেরিয়া যার প্রভাবে আন্ত্রিকের মতো পেটের রোগ হয়) পরিমাণ কম পাওয়া যায়। কাঠের চপিং বোর্ডে এ সব ব্যাকটেরিয়া বোর্ডের পৃষ্ঠ থেকে নীচের স্তরে চলে যায়। সেখানে স্যালমোনেলার মতো ক্ষতিকর ব্যাকটেরিয়া বংশবিস্তার করতে পারে না, ফলে অল্প সময়ের মধ্যে মারা যায়।

কিন্তু প্লাস্টিক বোর্ডে এ সব ব্যাকটেরিয়া বোর্ডের পৃষ্ঠে থাকা ছুরির দাগে বা ছুরির আঘাতে তৈরি হওয়া খাঁজে আটকে থাকে। বোর্ড পরিষ্কার করা হলেও তা সম্পূর্ণ জীবানুমুক্ত করা যায় না। তাই নতুন প্লাস্টিকের বোর্ড যতই স্বাস্থ্যকর ও পরিষ্কার হোক না কেন, পুরনো প্লাস্টিকের বোর্ড স্বাস্থ্যের জন্য বেশ ঝুঁকিপূর্ণ হতে পারে!

যদিও এ বিষয়ে এখনও মতভেদ রয়েছে। তবে নিয়মিত পরিষ্কার রাখার পরও পুরনো হয়ে যাওয়া প্লাস্টিকের চপিং বোর্ড বদলে নতুন বোর্ড ব্যবহার করাই ভাল। এতে খাবারে ব্যাকটেরিয়ার সংক্রমণের আশঙ্কা কমে যায় অনেকটাই।

তাই বোর্ড যখন পুরনো হয়ে যায় এবং এতে অনেক খাঁজকাটা দাগ পড়ে যায়, তখন নতুন বোর্ড কেনাই উচিত। সম্ভব হলে এমন শক্ত কাঠের বোর্ড ব্যবহার করুন, যাতে প্লাস্টিকের মতো সহজে দাগ পড়ে না। এর ফলে স্বাস্থ্যঝুঁকি যেমন কম থাকে, তেমনি আপনার ছুরির ধারও অক্ষত থাকবে। কারণ, শক্ত কাঠের বোর্ড ব্যবহারে ছুরি সহজে ভোঁতা হবে না।

আর একটা কথা। সম্ভব হলে মাংস এবং সবজি কাটার জন্য আলাদা আলাদা চপিং বোর্ড ব্যবহার করাটা সব চেয়ে নিরাপদ ও স্বাস্থ্যকর। এতে ক্রস কন্টামিনেশন (দূষণ) হবার ঝঁকি থাকে না।

সংশ্লিষ্ট সংবাদ

সর্বশেষ সংবাদ

লাইফস্টাইল খবর