channel 24

সর্বশেষ

  • খালেদা জিয়ার মুক্তিতে দলীয়ভাবে ব্যর্থ হয়ে...

  • বিএনপি সরকারের ঘাড়ে দোষ চাপাচ্ছে: সেতুমন্ত্রী

  • সমঝোতা নয়, আইনি পথেই খালেদা জিয়ার মুক্তি হবে: মওদুদ

  • মানহানির ২ মামলায় হাইকোর্টে খালেদা জিয়ার ৬ মাসের জামিন

  • মেয়াদোত্তীর্ণ ওষুধ বিক্রি বন্ধ ও ধ্বংসের নির্দেশ হাইকোর্টের...

  • একমাসের মধ্যে প্রতিবেদন জমা দেয়ার নির্দেশ

  • শেষ ধাপে ২০ উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে ভোটগ্রহণ চলছে...

  • ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় স্বতন্ত্র প্রার্থী নাসিমার বাড়িতে দুর্বৃত্তের অগ্নিসংযোগ...

  • সিরাজগঞ্জে আ.লীগ ও স্বতন্ত্র প্রার্থীর সমর্থকদের সংঘর্ষে আহত ২...

  • কারচুপির অভিযোগে গাজীপুরে স্বতন্ত্র প্রার্থী ইজাদুরের ভোট বর্জন

  • বিশ্বকাপ: আফগানিস্তানের বিপক্ষে টস জিতে ব্যাট করছে ইংল্যান্ড

কবে, কোথায় প্রথম চালু হয়েছিল 'এপ্রিল ফুলস' দিনটি?

কবে, কোথায় প্রথম চালু হয়েছিল 'এপ্রিল ফুলস' দিনটি?

আজ এপ্রিল ফুল ডে। বছরের এই একটা দিনে বিশ্বের লক্ষ লক্ষ মানুষ অন্যকে ‘বোকা বানিয়ে’ হালকা ঠাট্টা করার সুযোগ খোঁজেন। একটু মন খুলে হাসার রসদ যোগান একে অপরকে।

কিন্তু কী ভাবে এলো এই ‘এপ্রিল ফুল ডে’? আসুন জেনে নেওয়া যাক:

‘এপ্রিল ফুল ডে’-র সূত্রপাত সম্ভবত ১৫৮২ সালে। ওই বছর থেকেই ১ জানুয়ারিতে ফ্রান্স জর্জিয়ান ক্যালেন্ডার অনুযায়ী বছর নির্ধারণ শুরু হয়। কারণ, তার আগে পর্যন্ত ২৫ মার্চ দিনটিকে বছরের প্রথম দিন হিসেবে ধরা হতো। শোনা যায়, একদল মানুষ জর্জিয়ান ক্যালেন্ডারের ব্যবহার চালু হওয়ার পরও ২৫ মার্চকেই বছর শুরুর দিন হিসেবে মেনে চলতেন। এই সব মানুষকেই বাকিরা ‘ফুলস’ বা বোকা বলে বিদ্রুপ করতেন।

এ ছাড়াও, ইউরোপের মধ্যযুগের ইতিহাসে ১ জানুয়ারি ফ্রান্সে ‘ফিস্ট অফ ফুলস’ নামে একটি উত্সব পালিত হত। এই অনুষ্ঠানে খ্রীষ্টান ধর্ম রীতি অনুসারে গির্জার একজন পোপ নির্বাচিত করা হতো। এছাড়া, এ দিনে গির্জার বিভিন্ন আধিকারিকরা নিজেদের কাজ অদল বদল করে নিতেন। শোড়ষ শতকের পর ফ্রান্সে এর পরিবর্তে জায়গা করে নেয় ১ এপ্রিলে পালিত হওয়া ‘পয়জন দি’এভরিল’ নামের একটি আনন্দোত্সব। ‘পয়জন দি’এভরিল’-এর মানে হল এপ্রিল ফিশ। এই দিনে বন্ধুদের পিঠে কাগজের তৈরি মাছ আটকে মজা করা হত। স্কটল্যান্ডে এই অনুষ্ঠানকে বলা হত ‘গকি ডে’। ২ এপ্রিল পালিত হত এই ‘গকি ডে’। এই দিন বন্ধুদের পিঠে সুযোগ বুঝে ‘কিক মি’ লেখা কাগজ আটকে দেওয়া হত। আর তার ফলাফল আন্দাজ করতেই পারছেন!

এই ভাবেই বিশ্বের বিভিন্ন প্রান্তে নানা নামে প্রিয়জনকে বোকা বানিয়ে একটু মন খুলে হাসার রসদ খোঁজার চেষ্টা করেন লক্ষ লক্ষ মানুষ।

সংশ্লিষ্ট সংবাদ

সর্বশেষ সংবাদ

লাইফস্টাইল খবর