channel 24

সর্বশেষ

  • ছেলে সন্তানের বাবা হয়েছেন আশরাফুল

  • শ্বেতাঙ্গ পুলিশের নৃশংসতায় ৯ রাজ্যে বিক্ষোভ; ৪ পুলিশ অফিসার বরখাস্ত

  • মাটিতে পুঁতে রাখার ১১ মাস পর ব্যবসায়ীর মরদেহ উদ্ধার

  • মাঠে গড়ানোর অপেক্ষায় ইংলিশ প্রিমিয়ার লিগ ও সিরি আ

  • সোমবার থেকে চলবে গণপরিবহন, রোববার নৌযান

  • জন্মের মাত্র একদিনের মাথায় প্রাণঘাতী করোনার সাথে যুদ্ধ

  • লিবিয়ায় ২৬ বাংলাদেশিসহ ৩০ জনকে গুলি করে হত্যা, আহত ১১

  • কর্মস্থলে যোগ দিতে চট্টগ্রামে ফিরছে মানুষজন

  • পার্বত্য জেলাগুলোতে সেনাবাহিনীর খাদ্য সহায়তা অব্যাহত

  • করোনা চিকিৎসায় চট্টগ্রামের বেসরকারি হাসপাতালগুলো পুরোপুরি তৎপর নয়

  • কুষ্টিয়ায় করোনা রোগীদের সেবায় একদল স্বেচ্ছাসেবী

  • চট্টগ্রামে নতুন করে ২‘শ ২৯ জন করোনায় আক্রান্ত

  • আর্চ্যারি ঘিরে স্বপ্ন ও ভবিষ্যত পরিকল্পনা জানালেন রোমান সানা

  • করোনায় সর্বোচ্চ ২৫২৩ জন শনাক্তের রেকর্ড, মৃত্যু ২৩

  • কোভিড-১৯ রোগের চিকিৎসায় হাইড্রোক্সো-ক্লোরোকুইন ওষুধ না রাখার পরামর্শ

চা-কফি নয়, ব্রেকফাস্টে নিন উপকারী বিকল্প

চা-কফি নয়, ব্রেকফাস্টে নিন উপকারী বিকল্প

শরীর ভাল রাখার অন্যতম উপায় সময় মতো খাওয়া এবং খাবার পাতে পুষ্টিকর খাবার রাখা। সারা দিনের খাবারে নজর রাখতে গিয়ে অনেকেই অবহেলা করেন ব্রেকফাস্টকে। হয় যা হোক করে সকালের খাওয়া সারেন কেউ কেউ, আবার কখনও দেখা যায় স্রেফ চা-বিস্কুট খেলেই ব্রেকফাস্টের কাজ সারা বলে মনে করেন অনেকে।

আপনিও কি তাঁদের দলেই পড়েন? তা হলে সাবধান হওয়ার সময় এসেছে। বরং ব্রেকফাস্টে চা-কফিকে বন্ধ করার পরামর্শই দিচ্ছেন পুষ্টিবিদরা। জনস্বাস্থ্য বিশেষজ্ঞের মতে, চা ও কফি মূলত উত্তেজক পানীয়। প্রতি দিন এই ধরনের পানীয় নির্দিষ্ট সময় ধরে খেলে নেশাগ্রস্ত হয়ে পড়ার সম্ভাবনা প্রবল। ক্যাফিনের প্রতি আসক্তি জন্মানোও বিস্ময়কর নয়। আর প্রতি দিন চা বা কফি খাওয়া শরীরের জন্যও ভাল নয়। চিনি বাদ দিয়ে লাল চা খান বা চিনি বাদে কালো কফি কোনওটাই একটানা খাওয়া উচিত নয়।

আরও জানতে: শোবার ঘরে গাছ রেখে দূর করুন অনিদ্রা!

সন্ধ্যায় ব্যয়ামের অভ্যেস খিদে কমিয়ে ঝরাবে ওজন

দূর করুন শরীরের স্ট্রেচ মার্ক

পুষ্টিবিদের মতে, শরীরে রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতাও কমে যায় রোজ সকালটা ক্যাফিন আসক্তি দিয়ে শুরু করলে। বরং গ্রিন টি যদি খেতে পারেন, তা হলে তা কিছুটা উপকার দেয়। তবে শরীরকে সতেজ ও অ্যান্টিঅক্সিড্যান্টে ভরপুর রাখতে মাঝে মাঝে ব্রেকফাস্টের তালিকায় স্বাস্থ্যকর কিছু পানীয় রাখুন। ঘুরিয়ে ফিরিয়ে খান এক-একটা।

জানেন কি আপনার ব্রেকফাস্টের তালিকায় কোন কোন পানীয় সহজেই ঠাঁই পেতে পারে, চা-কফির চেয়েও উপকারী হিসাবে?

► ব্রেকফাস্ট শুরু করুন ভারী খাবার দিয়ে। খাদ্য পিরামিড মেনে দিনের প্রথম খাবারটা সবচেয়ে ভারী হওয়া খুবই দরকার। তাই ব্রাউন ব্রেড বা ওটস-মুশলি-ডিম সেদ্ধর সঙ্গে রাখুন লেবুর রস মেশানো এক গ্লাস গরম পানি। প্রথমেই খালি পেটে খেয়ে নিন পানি। তার পর খাবার খান। এতে খাবারের মাত্রা ও পরিমাণও বেড়ে যাওয়ার ভয় থাকবে না। তা ছাড়া শরীরকে টক্সিনমুক্ত করতে লেবু-পানি অত্যন্ত কার্যকর। এই উপকার চা-কফি থেকে মেলে না।

► ভারী খাবারের সঙ্গে পাতে রাখতে পারেন মৌসুমি ফলের রস। তবে দোকান থেকে কিনে আনা প্যাকেটজাত ফলের রস নয়। বাড়িতেই জুশারে রস করে খেতে পারেন। এতে প্রিজারভেটিভসের ভয় থাকে না। তবে সবচেয়ে ভাল হয় যদি গোটা ফল চিবিয়ে খেতে পারেন।

► উইটগ্রাসের (গমের ঘাস) রসে মেটাবলিজম বাড়ে। হজম প্রক্রিয়াকে বাড়ায়। তাই প্রতি দিনের ব্রেকফাস্টে রাখতে পারেন এই পানীয়ও।

► ডাবের পানিতে প্রচুর পরিমাণে পটাশিয়াম থাকে। এ ছাড়া এই পানি নিয়মিত খেলে বাজে কোলেস্টেরল কমে ভালো কোলেস্টেরল বাড়ে। ফলে হার্টের সমস্যা প্রতিরোধ হয়।

► বিভিন্ন ফল দিয়ে বানানো স্মুদিও খেতে পারেন ব্রেকফাস্টে। শরীরের অ্যান্টিঅক্সিড্যান্ট বাড়াতে ও রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতাকে জাগ্রত করতে এই ধরনের স্মুদি খুবই কার্যকর।

সংশ্লিষ্ট সংবাদ

সর্বশেষ সংবাদ

লাইফস্টাইল খবর