channel 24

সর্বশেষ

  • দেশে গণতন্ত্র নেই, অঘোষিত বাকশাল চলছে: মির্জা ফখরুল

  • দুদকের অভিযোগ মিথ্যা, ষড়যন্ত্রের অংশ: মাহী বি চৌধুরী

  • ডেঙ্গু প্রতিরোধে মাস্টারপ্ল্যান হচ্ছে: স্থানীয় সরকার মন্ত্রী

  • সুন্দরবনের ১০ কিলোমিটার সংকটাপন্ন এলাকার মধ্যে...

  • সব স্থাপনা সম্পর্কে মঙ্গলবারের মধ্যে জানতে চেয়েছেন হাইকোর্ট

  • কুমিল্লায় রাষ্ট্রীয় মর্যাদায় ন্যাপ সভাপতি মোজাফফর আহমদের দাফন

  • সাফ অনূর্ধ্ব ১৫ চ্যাম্পিয়নশিপ: বাংলাদেশ ৭-১ শ্রীলঙ্কা...

  • আল আমিন রহমানের হ্যাটট্রিক

  • হত্যার রাজনীতির পরিণতি কখনোই শুভ হয় না: ওবায়দুল কাদের

  • রোহিঙ্গা ঢলের দুই বছর; ৫ দফা দাবিতে ক্যাম্পে বিক্ষোভ

  • দক্ষ জনশক্তি বিদেশ পাঠাতে হবে, দালালের খপ্পরে পড়ে...

  • কেউ যেন প্রতারণার শিকার না হন, খেয়াল রাখতে হবে: প্রধানমন্ত্রী

  • ডেঙ্গুতে মাদারীপুরে গৃহবধূ ও ঢাকা মেডিকেলে একজনের মৃত্যু...

  • ২৪ ঘণ্টায় হাসপাতালে ভর্তি ১ হাজার ২৯৯ জন: স্বাস্থ্য অধিদপ্তর

  • কাবিননামায় 'কুমারী' শব্দ ব্যবহার করা যাবে না: হাইকোর্টের রায়

  • গোপন ভিডিও: জামালপুরের ডিসি আহমেদ কবীরকে ওএসডি...

  • নতুন জেলা প্রশাসক হিসেবে এনামুল হককে নিয়োগ

  • খুলনার সোনাডাঙ্গায় তরুণীকে গণধর্ষণ; থানায় মামলা, গ্রেপ্তার ২

  • সাংবাদিক শিমুল হত্যা: চার্জ গঠনের নতুন তারিখ পয়লা সেপ্টেম্বর

প্যারাসিটামল সম্পর্কে কিছু তথ্য

প্যারাসিটামল সম্পর্কে কিছু তথ্য

জ্বর ও ব্যথা নিরাময়ে প্যারাসিটামলের মতো নিরাপদ ওষুধ খুব বেশি নেই! তাই এই ওষুধ আমাদের দেশে বহুল ব্যবহৃত। অনেকেই শরীরের তাপমাত্রা বাড়লে বা একটু জ্বর জ্বর ভাব দেখলেই প্যারাসিটামল খেয়ে নেন। কারণ, জ্বর গায়ে বাড়িতে শুয়ে থাকলে কী চলবে! তাই ছুটি-ছাটার অভাবে অনেকেই প্যারাসিটামল খেয়ে স্কুলে, কলেজে বা কাজে বেরিয়ে পড়েন।

তবে চিকিৎসকদের মতে, শরীরের তাপমাত্রা ১০১ ডিগ্রি ফারেনহাইটের বেশি না হওয়া পর্যন্ত জ্বরের ওষুধ না খাওয়াই ভাল। কারণ, ভাইরাল ফিভার নিজে থেকেই সেরে যায়। এর জন্য শুধু বিশ্রাম আর পর্যাপ্ত জলীয় খাবার প্রয়োজন। সামান্য তাপমাত্রা বাড়লেই বা গা ব্যথা করলেই প্যারাসিটামল খেয়ে নেওয়ার অভ্যাস অত্যন্ত বিপজ্জনক!

আরও জানতে: ইউএস বাংলার উড়োজাহাজ বিধ্বস্তের শেষ মুহূর্তের ভিডিও

এডিপি থেকে বাদ পড়ছে ৪০০ প্রকল্প

দুর্নীতির ধারণা সূচকে বাংলাদেশের ৪ ধাপ অবনতি

আসুন জেনে নেওয়া যাক প্যারাসিটামল সম্পর্কে এমন কিছু তথ্য, যা জেনে রাখা অত্যন্ত জরুরী।

► দৈহিক ব্যথার উপশমে অধিকাংশ ক্ষেত্রে প্যারাসিটামলই ব্যবহৃত হয়। মাথাব্যথা, গলাব্যথা, পেশির ব্যথা, দাঁতের ব্যথা, ঋতুকষ্ট ইত্যাদিতে প্যারাসিটামল খুবই কার্যকর। চিকিৎসকের প্রেসক্রিপশন ছাড়াই এটি বিক্রি হয় এবং যে কেউ কিনতে পারেন। তবে তাই বলে চিকিৎসকের পরামর্শ ছাড়া প্যারাসিটামল ব্যবহার করা একেবারেই অনুচিত।

► মাথাব্যথা, গলাব্যথা, পেশির ব্যথা, দাঁতের ব্যথা, ঋতুকষ্ট ইত্যাদিতে প্যারাসিটামল খুবই কার্যকর। প্রাপ্তবয়স্কদের জন্য ৫০০ মিলিগ্রামের একটি ট্যাবলেট, কখনও প্রয়োজনে দুটিও খেতে হতে পারে।

► ২৪ ঘণ্টায় চিকিৎসকরা সর্বাধিক তিন থেকে চারবার প্যারাসিটামল খাওয়ার পরামর্শই দেন। কিন্তু খেয়াল রাখতে হবে, ২৪ ঘণ্টায় ৪ গ্রাম বা ৪০০০ মিলিগ্রামের বেশি প্যারাসিটামল খাওয়া যাবে না।

► গা ব্যথা বা জ্বরের জন্য তিন দিন পর্যন্ত প্যারাসিটামল খাওয়া যেতে পারে। তিন দিনে সমস্যা না কমলে দ্রুত চিকিৎসকের পরামর্শ নিন।

► প্যারাসিটামলের পার্শ্বপ্রতিক্রিয়া সাধারণত গুরুতর নয়। তবে শিশুদের বয়স আর ওজন অনুযায়ী প্যারাসিটামল দেওয়া উচিত। তাই শিশুদের প্যারাসিটামল খাওয়ানোর ক্ষেত্রে আগে চিকিৎসকের পরামর্শ অবশ্যই নিতে হবে।

► ৪০০০ মিলিগ্রামের বেশি প্যারাসিটামল খাওয়া মোটেই উচিত নয়। কারণ তাতে কিডনি ও লিভারের মারাত্মক ক্ষতির ঝুঁকি থাকে।

► চিকিৎসকদের মতে, শরীরের তাপমাত্রা ১০১ ডিগ্রি ফারেনহাইটের বেশি না হওয়া পর্যন্ত জ্বরের ওষুধ না খাওয়াই ভাল। কারণ, ভাইরাল ফিভার নিজে থেকেই সেরে যায়।

► সুইডেনের উপসালা বিশ্ববিদ্যালয়ের একদল গবেষকের দাবি, গর্ভাবস্থায় চিকিৎসকের পরামর্শ ছাড়া মাত্রাতিরিক্ত প্যারাসিটামল খেলে অ্যাটেনশন ডেফিসিট হাইপার অ্যাকটিভিটি ডিসর্ডার (ADHD) বা অটিস্টিক স্পেকট্রাম ডিসর্ডার (ASD)-এর মতো মারাত্মক স্নায়ুরোগ দেখা দিতে পারে।

► প্যারাসিটামল কিনার সময় অবশ্যই মেয়াদ উত্তীর্ণ তারিখ ও আসল বা নকল যাচাই করে কিনবেন।

সংশ্লিষ্ট সংবাদ

সর্বশেষ সংবাদ

লাইফস্টাইল খবর