channel 24

সর্বশেষ

  • আজ ২৬ শে মার্চ; মহান স্বাধীনতা দিবস...

  • জাতীয় স্মৃতিসৌধে রাষ্ট্রপতি ও প্রধানমন্ত্রীর শ্রদ্ধা...

  • ধানমন্ডিতে বঙ্গবন্ধুর প্রতিকৃতিতে প্রধানমন্ত্রীর শ্রদ্ধা...

  • সন্ত্রাস, জঙ্গিবাদ ও মাদকমুক্ত দেশ গড়ার প্রত্যয় প্রধানমন্ত্রীর

  • গণতন্ত্র হরণের মাধ্যমে স্বাধীনতার চেতনা ভূলুন্ঠিত করা হয়েছে: ফখরুল

  • ঐক্যবদ্ধ থাকলে জনগণকে কেউ অধিকারবঞ্চিত করতে পারবে না: ড. কামাল

  • কুষ্টিয়ায় স্বাধীনতা দিবসে শ্রদ্ধা জানানো শেষে জেলা বিএনপির...

  • সভাপতি, সাধারণ সম্পাদকসহ ১১ জনকে আটকের অভিযোগ

  • মগবাজারে মনোয়ারা হাসপাতালে বিদ্যুৎ স্পৃষ্টে ২ শ্রমিকের মৃত্যু

চিনির থেকেও বিপজ্জনক কৃত্রিম চিনি

চিনির থেকেও বিপজ্জনক কৃত্রিম চিনি

ডায়াবেটিক হোক বা বাড়তি ওজন অথবা মাত্রাতিরিক্ত মেদ আপনাকে যেন কাবু করতে না পারে, সে জন্য চিনি থেকে দূরে থাকেন। কিন্তু চিনির পরিবর্তে কী খান? সুগার ফ্রি? কেউ আবার চিনি এড়াতে শরণ নিয়ে থাকেন কৃত্রিম চিনির। ভাবছেন, এ ভাবেই চিনি এড়িয়ে কৃত্রিম চিনি খেয়ে রক্তে শর্করা বা শরীরে মেদ রুখতে পারছেন খুব? তা হলে এ বার সাবধান হোন।

কৃত্রিম চিনিতে ওজন তো কমেই না, উল্টে এতে ব্যবহৃত উপাদান রক্তে শর্করার মাত্রাও খুব একটা নিয়ন্ত্রণ করতে পারে না। সম্প্রতি কৃত্রিম চিনির উপর করা এক গবেষণায় এমন তথ্যই প্রকাশ করল বিএমজে মেডিক্যাল জার্নাল। বিশ্বব্যাপী বহুল প্রচারিত এই জার্নালে প্রকাশিত এক গবেষণার রিপোর্টে উঠে এল কৃত্রিম চিনির ভয়াবহতা। কৃত্রিম চিনি নিয়ে সারা বিশ্বে চলা ৫৬টি গবেষণার উপর ভিত্তি করে এই রিপোর্ট প্রকাশিত হয়েছে।

চোখের নীচে ডার্ক সার্কেল দূর করার প্রাকৃতিক উপায়

সাধারণত, রান্নাবান্না থেকে চা-কফির আমেজ, ডায়াবিটিকদের ভরসা কৃত্রিম চিনি। অনেক স্বাস্থ্যসচেতন মানুষও চিনি এড়াতে ভরসা করেন কৃত্রিম চিনির বড়িকে। বিশেষজ্ঞদের দাবি, সাধারণ চিনির চেয়ে প্রায় ২০০ গুণ বেশি মিষ্টি অ্যাসপার্টেম কৃত্রিম চিনির অন্যতম উপাদান।

যে কোনও প্রক্রিয়াজাত খাবার, জাঙ্ক ফুড, ডায়েট পানীয়তেও এই অ্যাসপার্টেমের উপস্থিতি থাকে। এতে তৈরি হওয়া শর্করা সহজে গলে গেলেও কৃত্রিম চিনিতে অ্যাসপার্টেমের পরিমাণ এতটাই বেশি থাকে যে, তা খুব একটা উপকার সাধন করতে পারে না। বরং এসব উপাদান অতিরিক্ত পরিমাণে শরীরে প্রবেশ করলে হানা দিতে পারে কিডনির অসুখ, ক্যান্সারের মতো মরণরোগও।

ছবি থেকে জেনে নিন নিজের মানসিক চরিত্র সম্পর্কে

শুধু অ্যাসপার্টেমই নয়, কৃত্রিম চিনির বড়িতে থাকে স্যাকারিনও। যা ইনসুলিন নিঃসরণ ঘটায় ও প্রয়োজনের বেশি খিদে ডেকে আনে। ফলে ওজন নিয়ন্ত্রণে থাকার পরিবর্তে ওজন বাড়ে। এর আর এক উপাদান সুক্রোজ। যা চিনির তুলনায় প্রায় ৫০০ গুণ বেশি মিষ্টি উপাদান দিয়ে তৈরি। সুতরাং ওজন কমানোর পরিবর্তে কৃত্রিম চিনি ওজন বাড়ায়। এ ছাড়াও মাথা ব্যাথা, কিডনির উপর প্রভাব, হতাশা, খিদে বেড়ে যাওয়ার মতো নানা পার্শ্বপ্রতিক্রিয়াও রয়েছে কৃত্রিম চিনির।

তাই কৃত্রিম চিনি এড়িয়ে সুস্থ থাকতে আজ থেকেই বদলে ফেলুন অভ্যাস।

সংশ্লিষ্ট সংবাদ

সর্বশেষ সংবাদ

লাইফস্টাইল খবর