channel 24

সর্বশেষ

  • সমৃদ্ধির অগ্রযাত্রায় বাংলাদেশ স্লোগানে...

  • আওয়ামী লীগের ইশতেহারে ২১ দফা অঙ্গীকার...

  • অতীতের ভুলভ্রান্তি ক্ষমাসুন্দর দৃষ্টিতে দেখার অনুরোধ প্রধানমন্ত্রীর

  • বিএনপির নির্বাচনি ইশতেহার ঘোষণা করলেন মির্জা ফখরুল...

  • জাতীয় সংসদে উচ্চকক্ষ প্রতিষ্ঠার পাশাপাশি...

  • রাষ্ট্রপতি ও প্রধানমন্ত্রীর ক্ষমতায় ভারসাম্য আনাসহ ১৯ প্রতিশ্রুতি

  • নির্বাচনে অংশ নিতে পারছেন না খালেদা জিয়া...

  • প্রার্থিতা বাতিলের বিরুদ্ধে রিট তৃতীয় বেঞ্চেও খারিজ

  • জামায়াতের ২২ নেতার প্রার্থিতা বাতিলে হাইকোর্টের রুল...

  • তিন কার্যদিবসের মধ্যে নিষ্পত্তি করতে ইসিকে নির্দেশ

ছবিটি আসলে কার?

ছবিটি আসলে কার?

ফেসবুক-সহ সোশ্যাল মিডিয়ার বিভিন্ন প্ল্যাটফর্মে ঘোরা ফেরা করা অজস্র মিম-এর সঙ্গে উপরের এই ছবি স্ট্যাম্পের মতো করে সেঁটে থাকতে অনেকেই দেখেছেন। সাধারণত খুব হাস্যকর কোনও পরিস্থিতি, বিষয় বোঝাতে এই ছবিটির ব্যবহার করা হয়। কিন্তু জানেন কি এ ছবিটি কার? ছবিটি কি কাল্পনিক, নাকি এই ব্যপক ব্যবহৃত এই ছবির আড়ালে লুকিয়ে রয়েছে কোনও বাস্তব চরিত্র?

সোশ্যাল মিডিয়ার বিভিন্ন প্ল্যাটফর্মে ঘোরা ফেরা করা অজস্র মিম-এর সঙ্গে ব্যবহৃত হাস্যকর মুখভঙ্গির এই ছবিটি আসলে ইয়াও মিং-এর। একজন প্রাক্তন বাস্কেটবল খেলোয়াড়। ৩৮ বছর বয়সি মিং-এর জন্ম চিনের সাংহাই প্রদেশে। উচ্চতা সাড়ে ৭ ফুট। খুব ছোটবেলাতেই মিং তাঁর এক কানের শ্রবনশক্তি হারান।

চিনের সাংহাই শার্কস-এর হয়ে দীর্ঘদিন বাস্কেটবল খেলেছেন মিং। আমেরিকায় এনবিএ (NBA)-র হিউস্টন রকেটস দলেও খেলেছেন তিনি। খেলা থেকে অবসর নেওয়ার পর মিং চীনা বাস্কেটবল অ্যাসোসিয়েশনের সভাপতি নিযুক্ত হন।
কিন্তু ইয়াও মিং-এর এই ছবিটি কখন, কী ভাবে ভাইরাল হল?

২০০৯ সালে একটা বাস্কেটবল ম্যাচের পরে সাংবাদমাধ্যমের মুখোমুখি হয়েছিলেন মিং। ওই সময় এই মজার অভিব্যক্তিটি মিং-এর মুখে ফুটে ওঠে।

এর পরের বছর অর্থাৎ, ২০১০ সালে ‘রেজ কমিক্স’ ক্যাম্পেনের মাধ্যমে ‘ডাম্ব বিচ’ নামে ইয়াও মিং-এর এই অভিব্যক্তির ছবি দিয়ে তৈরি মিমটি সোশ্যাল মিডিয়ায় ছড়িয়ে পড়ে। তার পর থেকেই হাস্যকর ‘সোশ্যাল পোস্ট’-এর প্রতীক হয়ে উঠেছে ইয়াও মিং-এর ছবিটি।

সংশ্লিষ্ট সংবাদ

সর্বশেষ সংবাদ

লাইফস্টাইল খবর