থাই গুহার সফল অভিযান দুর্যোগ মোকাবেলায় মাইলফলক 

থাইল্যাণ্ডের গুহা থেকে ১৩ জনকে জীবিত উদ্ধারের ঘটনা থেকে বাংলাদেশের শিক্ষা নেয়ার সুযোগ রয়েছে।

এমনটাই মনে করেন ফায়ার সার্ভিসের মহাপরিচালক। তার দাবি, সমন্বিত পরিকল্পনার কারণেই এই অভিযান সফল হয়েছে। আর একজন বিশেষজ্ঞের মতে, বাংলাদেশে যেকোনো দুর্ঘটনায় ভিড় করেন উৎসুক জনতা এবং ভিআইপিরা। এতে উদ্ধার অভিযানে বিঘ্ন ঘটে। ২০১০ সাল চিলির কয়লা খনির ৭শ মিটার গভীরে আটকে পড়ে ৩৩ জন শ্রমিক। পরে টানা ৬৯ দিনের চেষ্টায় জীবিত উদ্ধার করা হয় তাদের। আর সম্প্রতি থাইল্যাণ্ডে থাম লুং গুহার প্রায় দুই কিলোমিটার ভেতর থেকে পানির বাধা উপেক্ষা বের করে আনা হয় আটকে পড়া ১২ কিশোর ফুটবলার ও তাদের কোচকে। আলাদা আলাদা সময়ের এ দুটি ঘটনাই উদ্বেগ-উৎকণ্ঠা নিয়ে দৃষ্টি রাখে সারা বিশ্ব।  

আগুন লাগা, লঞ্চ ডুবি, ভবন কিংবা পাড়ার ধসের মতো ভয়াবহ দুর্যোগ মোকাবেলার অভিজ্ঞতা রয়েছে বাংলাদেশেরও। তবে ২০১৪ সালে শাহজাহানপুরে শিশু জিহাদকে জীবিত উদ্ধার করতে না পারার ব্যর্থতা প্রশ্নের মুখে ফেলে পুরো অভিযানকে। এ অবস্থায় থাইল্যাণ্ডের অভিযান কী নতুন করে ভাবাচ্ছে বাংলাদেশকে? থাইল্যাণ্ডের অভিযানের পুরোটা সময়ই দুর্ঘটনাস্থলের আশপাশে জনসাধারণ কিংবা গুরুত্বপূর্ণ ব্যক্তিদের প্রবেশে ছিলো কড়াকড়ি। এটিকে উদাহরণ হিসেবে নেয়ার পরামর্শ দুর্যোগ মোকাবেলা বিশেষজ্ঞদের। তারা দুজনই মনে করেন যেকোনো দুর্যোগ মোকাবেলায় দরকার সমন্বিত পদক্ষেপ। 

 

 

 

চ্যানেল 24

387 South, Tejgaon I/A
Dhaka-1208, Bangladesh
Email: newsroom@channel24bd.tv
Tel: +8802 550 29724
Fax: +8802 550 19709

Save

Save

Like us on Facebook
Satellite Parameters
Webmail

Save

Save

Save

Save

Save

Save

Save

Save

Save

Save

Save

Save

Save