গাজায় ইসরায়েলি হামলা: জাতিসংঘের নিরাপত্তা পরিষদ, ইইউসহ বিশ্ব সম্প্রদায়ের নিন্দা

গাজায় ইসরায়েলি হামলায় আহতদের অবস্থাও ভালো নয়। অস্ত্রোপচারসহ প্রয়োজনীয় চিকিৎসা পাচ্ছেন না অনেকে। তবে, আহতদের গাজার বাইরে যেতে দিচ্ছে না ইসরায়েল। নামমাত্র চিকিৎসা সরঞ্জাম প্রবেশের অনুমতি দেয়া হয়। ইসরায়েলি হামলার ঘটনায় জাতিসংঘ নিরাপত্তা পরিষদে তীব্র নিন্দা জানিয়েছে, রাশিয়া-ফ্রান্সসহ সদস্য দেশগুলো। উদ্বেগ জানিয়ে যৌথ বিবৃতি দিয়েছেন ইইউ নেতারা। এদিকে যুক্তরাষ্ট্রের পর দ্বিতীয় দেশ হিসেবে জেরুজালেমে দূতাবাস খুলেছে গুয়েতেমালা।

ইসরায়েলি বাহিনীর হামলায় রক্তাক্ত গাজা। সোমবারের পর মঙ্গলবারও ইসরায়েলিদের গুলিতে প্রাণ হারিয়েছেন নীরস্ত্র ফিলিস্তিনিরা। দেড় মাসের টানা বিক্ষোভে হতাহতদের ভিড়ে, তিল ধারণের ঠাঁই নেই হাসপাতালে। চিকিৎসা সরঞ্জামের অপ্রতুলতায় মিলছে না, প্রয়োজনীয় সেবা।
তারা অসংখ্যবার বলেছে, ১ ঘন্টা পরই অস্ত্রোপচার হবে। ভাঙ্গা পা থেকে এখন বাজে গন্ধ আসছে। আর সহ্য হচ্ছে না।
মানবাধিকার সংগঠনগুলো বলছে, চিকিৎসার জন্য আহত ফিলিস্তিনিদের বেরুতে দিচ্ছে না ইসরায়েল। হামলা ও মানবিক সংকট তৈরি করায়; ইসরায়েলি কূটনীতিককে বহিষ্কার করেছে তুরস্ক।  

এরদোয়ান বলেন, 'ইসরায়েল পরিকল্পিতভাবে আহতদের মরতে দিচ্ছে। আমরা ইসরায়েলের রাষ্ট্রদূতকে বহিষ্কার করেছি। তেল আবিব থেকে আমাদের কূটনীতিককেও ডেকে পাঠিয়েছি।'

জাতিসংঘ নিরাপত্তা পরিষদে গাজায় সহিংসতার তীব্র নিন্দা জানিয়েছে, ফ্রান্স-রাশিয়াসহ সদস্য দেশগুলো। উদ্বেগ জানিয়ে যৌথ বিবৃতি দিয়েছে, ইইউ। সমালোচনা করেছে, আরব লীগ, হিউম্যান রাইটস ওয়াচসহ বিভিন্ন সংগঠন।
জাতিসংঘে নিযুক্ত ব্রিটিশ রাষ্ট্রদূত ক্যারেন পিয়ার্স বলেন, 'সেখানকার ভয়াবহ পরিস্থিতি নিয়ে আমরা উদ্বিগ্ন। গাজাবাসীর শান্তিপূর্ণ বিক্ষোভের অধিকার নিশ্চিতে ও সেনা ব্যবহারে নৈতিকতা মানতে ইসরায়েলকে আহবান জানাচ্ছি।'
গাজা সহিংসতা অবিলম্বে বন্ধ ও প্রধানমন্ত্রী নেতানিয়াহুর পদত্যাগ দাবিতে, তেল আবিবে লিকুদ পার্টির সদর দপ্তরের বাইরে বিক্ষোভ করেছেন, শত শত শান্তিকামী ইসরায়েলি।

Last modified on 16-05-2018 07:37:06 PM

চ্যানেল 24

387 South, Tejgaon I/A
Dhaka-1208, Bangladesh
Email: newsroom@channel24bd.tv
Tel: +8802 550 29724
Fax: +8802 550 19709

Save

Save

Like us on Facebook
Satellite Parameters
Webmail

Save

Save

Save

Save

Save

Save

Save

Save

Save

Save

Save

Save

Save