channel 24

সর্বশেষ

  • বান্দরবানে ঘুমধুম সীমান্তে বিজিবির সাথে 'বন্দুকযুদ্ধে'...

  • ২ রোহিঙ্গা মাদক ব্যবসায়ী নিহত

  • চট্টগ্রামের পাথরঘাটায় গ্যাস লাইন বিস্ফোরণে দেয়ালধস...

  • নিহত ৭, কয়েকজন গুরুতর আহত; ২০ জন চট্টগ্রাম মেডিকেলে ভর্তি

  • ঘটনা তদন্তে ২টি কমিটি; আহতদের সব ধরনের সহায়তার আশ্বাস মেয়রের

  • আজ থেকে নতুন সড়ক পরিবহন আইন কার্যকর...

  • হেলমেটবিহীন মোটরসাইকেল চালকরা অধিকাংশই রাজনৈতিককর্মী: কাদের

  • সরকারি চাকরিতে মুক্তিযোদ্ধাদের অবসরের বয়স ৬০: আপিল বিভাগ

  • স্বাধীন প্রসিকিউশন কমিশন কেন গঠন করা হবে না: হাইকোর্টের রুল

  • পেঁয়াজ নিয়ে নৈরাজ্যের ঘটনা তদন্ত চেয়ে হাইকোর্টে রিট

  • সুষ্ঠু পরীক্ষা নিতে জেলা, বিভাগ পর্যায়ে মনিটরিং সেল...

  • প্রশ্নফাঁসের কোনো খবর নেই: প্রাথমিক ও গণশিক্ষা প্রতিমন্ত্রী

  • দুর্নীতি মামলা: যুবলীগের বহিষ্কৃত নেতা সম্রাট ৬ দিনের রিমান্ডে

  • অনলাইন ক্যাসিনো ব্যবসায়ী সেলিম প্রধানকে...

  • ৭ দিনের রিমান্ডে জিজ্ঞাসাবাদ শুরু করেছে দুদক

  • বনানীর এফ আর টাওয়ারের নকশা জালিয়াতির মামলায় জমির মালিক...

  • ফারুকসহ ৩ জনের জামিন বাতিল, কারাগারে পাঠানোর নির্দেশ

মুখ থুবড়ে পড়েছে কাশ্মীরের আপেল রপ্তানি

মুখ থুবড়ে পড়েছে কাশ্মীরের আপেল রপ্তানি

কাশ্মীরের আপেলের খ্যাতি রয়েছে বিশ্বজুড়ে। কিন্তু মুখ থুবড়ে পড়েছে আপেল রপ্তানি। মূলত কেন্দ্র কর্তৃক আরোপিত অবরোধের পর থেকেই আপেল ব্যবসার এ খারাপ অবস্থা। কাজের জন্য শ্রমিক পাওয়া যাচ্ছে না। ব্যবসায়ী এবং গাড়ির চালকেরা অবরোধের কারণে বাইরে বের হতে ভয় পাচ্ছে। আপেল পিকারদের স্বল্পতার কারণে অর্ধেকেরও বেশি আপেল পঁচে গেছে।

৩৭০ অনুচ্ছেদ বাতিলের পর আড়াই মাস ধরেই অবরুদ্ধ ভারত নিয়ন্ত্রিত জম্মু-কাশ্মীর। সীমান্তে প্রায়ই ঘটছে পাক-ভারত সেনাদের গোলাগুলি। দক্ষিণ সোপিয়ানে গোলাগুলিতে প্রাণ হারান এক আপেল ব্যবসায়ী ও এক শ্রমিক।

কাশ্মীরের আপেলের খ্যাতি রয়েছে বিশ্বজুড়ে। তবে উপত্যকায় টানা অবরোধ আর ১৪৪ ধারায় চরম বিপাকে এ খাতের ব্যবসায়ীরা। এই যেমন, জামশেদ আহমেদ। টানা জরুরি অবস্থায় মুখ থুবড়ে পড়েছে কাশ্মীরের আপেল রপ্তানি।

আপেল বাগান মালিক জামশেদ আহমেদ বলেন, কোন শ্রমিক পাওয়া যাচ্ছে না। তার ওপর আপেল রপ্তানির জন্য পর্যাপ্ত গাড়ি নেই। অল্প কয়েকজন চালক যাদের ব্যক্তিগত গাড়ি রয়েছে তারাও বের হতে সাহস পাচ্ছে না। মানুষজন স্বাধীনভাবে চলাচল করতে পারে না।

আপেল ব্যবসায়ী শিরাজ আহমাদ বলেন, প্রায় তিন মাস হতে চললো। ঘর থেকেই বের হতে পারছি না। প্রায় এক মাস দেরি করে চাষাবাদ শুরু করতে হয়েছে।

আপেল বাগান মালিকরা বলছেন, পন্য পরিবহনের অভাবে লোকসানের পরিমাণ কয়েক গুন বৃদ্ধি পেয়েছে।

সরকারি কর্মকর্তা অশুল মিত্তাল বলেন, দুটো ট্রাককে যেতে দিয়েছি। অল্প সংখ্যক বিক্রেতা ও উৎপাদনকারী ফলের বাজারে এসেছেন। গড়ে দিনে ১০ জন বিক্রেতা ও উৎপাদনকারী বাজারে আসছেন।

বলা হচ্ছে, উপত্যকায় এ বছর ১.৯ বিলিয়ন মার্কিন ডলারের আপেল বিক্রির কথা থাকলেও, এ পর্যন্ত বিক্রি হয়েছে মাত্র ৩ লাখ ডলারের আপেল। ৪ টি পাইকারি বাজার চালু রেখে আপেল ব্যবসায়ীদের সহায়তার চেষ্টা করছে কাশ্মীর প্রশাসন।

সংশ্লিষ্ট সংবাদ

সর্বশেষ সংবাদ

আন্তর্জাতিক খবর