channel 24

সর্বশেষ

  • এসএ গেমস: নেপালের কাছে ১-০ গোলে হেরে...

  • ফাইনালে যাওয়া হলো না বাংলাদেশের

  • বঙ্গবন্ধু বিপিএল-২০১৯ এর উদ্বোধন করলেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা

  • বিএনপির নেতৃত্ব অস্তিত্ব সংকটে, পরিণত হবে মুসলিম লীগের মতো: কাদের

  • মাত্রা কমলেও ঘুষ যে নেই অস্বীকার করা যাবে না: দুদক চেয়ারম্যান

  • এনটিভির ভিডিও এডিটর আতিক হত্যা মামলায়...

  • একজনের মৃত্যুদণ্ড ও ২ জনের যাবজ্জীবন বহাল

  • সিরাজগঞ্জে সরকারি কলেজের বিজয় র‍্যালি ঘিরে আ.লীগ-বিএনপির সংঘর্ষ

  • রংপুরের বোতলায় অন্তঃসত্ত্বা মা ও ২ সন্তানের মরদেহ উদ্ধার...

  • পুলিশের দাবি শ্বাসরোধ করে হত্যা; স্বামী আটক, হত্যার দায় স্বীকার

  • এসএ গেমস: আর্চারিতে দলগত ৩ ইভেন্টে বাংলাদেশের স্বর্ণ জয়

  • এসএ গেমসে আজ নেপালকে হারাতে পারলে...

  • ফুটবলারদের ৪০ হাজার ডলার বোনাস দেবে ফুটবল ফেডারেশন

  • নারী ক্রিকেট: শ্রীলঙ্কাকে ২ রানে হারিয়ে স্বর্ণ জিতেছে বাংলাদেশ...

  • স্কোর: বাংলাদেশ ৯১/৮, শ্রীলঙ্কা ৮৯/৯ (নাহিদা ২/৯)

যুক্তরাজ্যের প্রধানমন্ত্রী হচ্ছেন বরিস জনসন

যুক্তরাজ্যের প্রধানমন্ত্রী হচ্ছেন বরিস জনসন

যুক্তরাজ্যের ক্ষমতাসীন কনজারভেটিভ দলের নেতা নির্বাচিৎ হয়েছেন সাবেক পররাষ্ট্রমন্ত্রী বরিস জনসন। তিনি পেয়েছেন ৯২ হাজার ১৫৩ ভোট।

বুধবার (২৪ জুলাই) থেরেসা মে'র স্থলে ব্রিটিশ প্রধানমন্ত্রীর দায়িত্ব পাবেন তিনি।

বুধবার, থেরেসা মের আনুষ্ঠানিক পদত্যাগের পর বাকিংহাম প্যালেসে শপথ নেবেন নতুন প্রধানমন্ত্রী। এরইমধ্যে কনজারভেটিভ অনেক সিনিয়র নেতা বরিসের অধীনে কাজ না করার ঘোষণা দিয়েছেন। বরিস প্রধানমন্ত্রীন দায়িত্ব নিলে পদ ছাড়বেন চ্যান্সেলর ফিলিপ হ্যামন্ড। বরিসের বিরুদ্ধে ডাউনিং স্ট্রিটে চলছে বিক্ষোভ।

ব্রেক্সিট ইস্যু নিয়ে বর্তমান প্রধানমন্ত্রী থেরেসা মে পদত্যাগের ঘোষণা দিয়েছিলনে। নিজ দলের ভেতর তার গ্রহণযোগ্যতা না থাকায় তিনি এমন সিদ্ধান্ত নিতে বাধ্য হন।

এর আগে বরিস জনসন প্রতিশ্রুতি দিয়েছিলেন, তিনি নেতা নির্বাচিত হলে আগামী অক্টোবরের বেধে দেয়া সময়সীমার মধ্যে যেকেনো মূল্যে ব্রেক্সিট কার্যকর করবেন।

যুক্তরাজ্যে ২০১৬ সালে গণভোটে ইউরোপীয় ইউনিয়ন (ইইউ) থেকে বের হয়ে আসার পক্ষে রায় দেয়। এরপর ব্রেক্সিট কার্যকরের প্রক্রিয়া শুরু হয়। থেরেসা মে ব্রেক্সিট কার্যকর নিয়ে একটি চুক্তি করলেও তাতে সম্মতি দেয়নি দেশটির পার্লামেন্ট। চুক্তি পাসে ব্যর্থ থেরেসা মে গত ৭ জুন পদত্যাগের ঘোষণা দেন।

এক জরিপে দেখা যায়, কনজারভেটিভ দলের ৭৩ শতাংশ নেতা-কর্মী বরিস জনসনকে সমর্থন দেয়ার কথা বলেছেন। অন্যদিকে পররাষ্ট্রমন্ত্রী জেরেমি হান্টের পক্ষে ভোট দেয়ার কথা জানিয়েছেন মাত্র ১৫ শতাংশ টরি সদস্য।

এদিকে দলের বিদ্রোহী প্রার্থীরা হুমকি দিয়েছেন যে, বরিস জনসন যদি ব্যর্থ হয় তাহলে তাকেও ক্ষমতায় রাখা হবে না।

সংশ্লিষ্ট সংবাদ

সর্বশেষ সংবাদ

আন্তর্জাতিক খবর