channel 24

সর্বশেষ

  • বান্দরবানের তারাছা ইউনিয়ন আওয়ামী লীগ সভাপতি...

  • মংমং থোয়াই সন্ত্রাসীদের গুলিতে নিহত

  • ছেলেধরা গুজবে বাড্ডায় নারীকে পিটিয়ে হত্যা মামলায়...

  • গ্রেপ্তার ৩ আসামি ৪ দিনের রিমান্ডে

  • শেখ হাসিনা কখনোই ৩ কোটি ৭০ লাখ মিসিং বলেননি: কাদের...

  • প্রিয়া সাহার বক্তব্যের পেছনে কারও ইন্ধন আছে কিনা...

  • দেশে ফেরার পর খতিয়ে দেখা হবে

  • ছেলেধরা গুজবে নৃশংসতা: মোবাইলে ধারণ করা ফুটেজ দেখে...

  • রাজধানীর বাড্ডায় নারীকে পিটিয়ে হত্যায় চারজন গ্রেপ্তার...

  • শনাক্ত অন্যান্যদের গ্রেপ্তারের চেষ্টা চলছে: ডিবি...

  • কুষ্টিয়ার দৌলতপুরে মানসিক ভারসাম্যহীন নারীকে পিটিয়ে আহত...

  • দক্ষিণখানে আটকে রাখা কিশোরকে উদ্ধার করেছে পুলিশ

  • ডেঙ্গুতে হবিগঞ্জের সিভিল সার্জন ডা. মো. শাহাদৎ হোসেনের মৃত্যু

  • আমিনবাজারের সালেহপুর ব্রিজ থেকে নদীতে পড়ে যাওয়া...

  • প্রাইভেটকারের সন্ধান মেলেনি এখনও; উদ্ধারকাজ চলছে

  • সাত কলেজের অধিভুক্তি বাতিলের দাবিতে আজও...

  • ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রশাসনিক ও একাডেমিক ভবনে তালা

  • মাগুরার পারনান্দুয়ালিতে মা-ছেলের গলাকাটা মরদেহ উদ্ধার...

  • গুরুতর অবস্থায় বাবাকে হাসপাতালে ভর্তি

বাড়ি ফিরতে চায় হোদা মুতানা

বাড়ি ফিরতে চায় হোদা মুতানা

হোদা মুতানা। জন্ম মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রে। যোগ দিয়েছিলেন জঙ্গি সংগঠন আইএসআইএস’এ। এখন থাকছেন উত্তর সিরিয়ার একটি ক্যাম্পে। যিনি এখন যুক্তরাষ্ট্রে ফিরে যেতে চান।

মার্কিন গণমাধ্যম ফক্স নিউজ তাকে সেই ক্যাম্প থেকে খুঁজে বের করেছে। ফক্স নিউজকে হোদা মুতানা জানান, 'আমি বাড়ি ফিরে যেতে চাই। আমি আমার পরিবারকে দেখতে চাই। সিরিয়া নিরাপদ না। আমার সরকার যা বলবে আমি তাই করবো।'

কিন্তু মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র বলছে, হোদা মুতানা তাদের নাগরিক নয়। যুক্তরাষ্ট্রে যখন তার জন্ম হয়, তখন তারা বাবা ইয়েমেনি কূটনীতিক ছিলো।’ যদিও মুতানার আইনজীবী এই বিষয়ে আইনী লড়াই চালিয়ে যাচ্ছেন।

যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট এবং পররাষ্ট্রমন্ত্রী এরই মধ্যে জানিয়ে দিয়েছেন তারা মুতানাকে স্বাগত জানাবে না। ডোনাল্ড ট্রাম্প ফেব্রুয়ারিতে এক টুইটে জানান, তিনি তার পররাষ্ট্রমন্ত্রীকে নির্দেশনা দিয়েছেন হুদা মুতানাকে যুক্তরাষ্ট্রে প্রবেশ করতে যেন অনুমতি না দেয়া হয়।

মুতানা আইএসআইএস’র মুখপাত্র হিসেবে কাজ করেছিলেন এবং তিনি যুক্তরাষ্ট্রের নাগরিক হত্যার আহ্বান জানিয়েছিলেন।
যদিও  মুতানা দাবি করেছেন, আইএসআইএস তার টুইটার অ্যাকাউন্ট হ্যাক করেছিলো। এবং সেখান থেকে যুক্তরাষ্ট্রের বিরুদ্ধে বিভিন্ন কথা বলা হতো।

তবে এখন মুতানা আধুনিক মানুষ হতে চায়। ফক্স নিউজকে সে জানায়, সিরিয়ায় আসার আগে সে কোনো অপরাধ করেনি এবং ফিরে যেতে পারলে ভবিষ্যতে আর কোনো অপরাধ করবে না। 

সে স্বীকার করে বলে, ইতিহাসের সবচেয়ে বর্বরতম জঙ্গি সংগঠনের সাথে সে যুক্ত হয়েছিলো। তার ব্রেন ওয়াশ করা হয়েছিলো। মুতানা জানায় সে যুক্তরাষ্ট্রকে ঘৃণা করে না।

মুতানার জন্ম যুক্তরাষ্ট্রের নিউ জার্সিতে। সে অনলাইনের মাধ্যমে মৌলবাদী হয়। ১৯ বছর বয়সে আইএসআইএস’এ যোগ দিতে প্রথমে সে বিমানে করে তুরস্কে যায়। সেখান থেকে সীমান্ত পার হয়ে সিরিয়ায় প্রবেশ করে। সেখান থেকে মুতানা তার পরিবারকে জানায় সে জঙ্গি সংগঠনের সাথে আছে।

রাকা যখন আইএসআইএস’র এর রাজধানী ছিলো তখন তাকে আটক করা হয়। তার বিয়ে না হওয়া পর্যন্ত আটকে রাখা হয়। তার প্রথম স্বামী ছিলো সুহান রহমান, যে অস্ট্রেলিয়ার যোদ্ধা হিসেবে পরিচিত ছিলো। এরপর তার একাধিক বিয়ে হয়। তবে সব স্বামী মারা গেছে। 
এখন তারা ১৯ মাস বয়সী এক সন্তান আছে।

সংশ্লিষ্ট সংবাদ

সর্বশেষ সংবাদ

আন্তর্জাতিক খবর