channel 24

সর্বশেষ

  • মানবাধিকার কমিশনের নতুন চেয়ারম্যান নাছিমা বেগম

  • পুঁজিবাজারে ব্যাংকগুলোর বিনিয়োগ সামর্থ্য বাড়াতে...

  • সাময়িক তারল্য সুবিধা দিয়ে বাংলাদেশ ব্যাংকের প্রজ্ঞাপন

  • খুলনা জিআরপি থানার সাবেক ওসি উছমান গনিসহ...

  • ৫ পুলিশ সদস্যের বিরুদ্ধে আদালতে গণধর্ষণ মামলা দায়েরের আবেদন

  • ক্যাসিনো অবৈধ, কাউকে বেআইনি ব্যবসা করতে দেয়া হবে না: স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী

  • অনিয়ম, দুর্নীতি রোধে ব্যর্থতায় সরকারের পদত্যাগ করা উচিত: ফখরুল

  • নাব্যতা সংকটে বন্ধ শিমুলিয়া-কাঁঠালবাড়ি নৌরুটে ফেরি চলাচল

  • টেকনাফে পুলিশের সাথে কথিত বন্দুকযুদ্ধে রোহিঙ্গা দম্পতি নিহত

  • উগান্ডায় প্রশিক্ষণ নিতে যাওয়া কর্মকর্তা-কর্মচারীদের অনেকেই প্রকল্প সংশ্লিষ্ট নন; অনিয়মে বারবারই অভিযুক্ত চট্টগ্রাম ওয়াসা।

  • দখল-দূষণে অস্তিত্ব সংকটে বেশিরভাগ নদী; দখলদারদের পূর্ণাঙ্গ তালিকা প্রকাশ ও খননের দাবি পরিবেশবাদীদের।

  • গোপালগঞ্জে বঙ্গবন্ধু বিশ্ববিদ্যালয়ে চতুর্থ দিনের মতো আমরণ অনশনে শিক্ষার্থীরা; ভিসি পদত্যাগ না করা পর্যন্ত আন্দোলন চালানোর ঘোষণা

গ্রেপ্তার নয়, কলকাতা পুলিশ কমিশনারকে জিজ্ঞাসাবাদ করতে পারবে সিবিআই

গ্রেপ্তার নয়, কলকাতা পুলিশ কমিশনারকে জিজ্ঞাসাবাদ করতে পারবে সিবিআই

সারদা কাণ্ড ইস্যুতে আপাতত গ্রেপ্তার নয়, কলকাতার পুলিশ কমিশনার রাজিব কুমারকে জিজ্ঞাসাবাদ করতে পারবে ভারতের কেন্দ্রীয় তদন্ত সংস্থা (সিবিআই)।

কলকাতার পুলিশ কমিশনার রাজিব কুমারের বাড়িতে সিবিআই কর্মকর্তাদের অভিযান নিয়ে উত্তপ্ত পশ্চিমবঙ্গ রাজ্য সরকার ও কেন্দ্র। সোমবার (৪ ফেব্রুয়ারি) বিষয়টি নিয়ে সুপ্রিম কোর্টের দ্বারস্থ হয় সিবিআই। মঙ্গলবার (৫ ফেব্রুয়ারি) মামলার শুনানীতে প্রধান বিচারপতির নেতৃত্বাধীন ৩ সদস্যের বেঞ্চ জানান, রাজিবকে গ্রেপ্তার নয় বরং শিলংয়ে জিজ্ঞাসাবাদ করা হবে।

আরও: যে রোগ হলে মনে থাকে সব কিছু!

রাজধানীর উত্তরায় মাইক্রোবাস চাপায় স্কুলছাত্রী নিহত

স্বামী-স্ত্রীর ঝগড়া থামাতে গিয়ে প্রতিবেশী খুন

আদালতের সিদ্ধান্তকে স্বাগত জানিয়েছেন পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়।

তিনি বলেন, আদালত ও গণমাধ্যমের প্রতি আমরা কৃতজ্ঞ। সুপ্রিম কোর্ট আজ ঐতিহাসিক সিদ্ধান্ত নিয়েছে। শুরু থেকেই আমরা বলে আসছিলাম কখনোই পুলিশ কমিশনারকে এভাবে গ্রেপ্তার করতে পারে না।

এদিকে, মমতা ও কেন্দ্রীয় সরকারের মুখোমুখি অবস্থানে কলকার্তার ধর্মতলা যেন এখন একখণ্ড সরকার বিরোধী মঞ্চ। ৩ দিন ধরেই গণতন্ত্র ও সংবিধান রক্ষার দাবিতে এখানে ধরনা কর্মসূচি পালন করছেন মমতা। যাতে একাত্ততা জানিয়েছে, প্রধান বিরোধী দল কংগ্রেসসহ অখিলেশের সমাজবাদি পার্টি, কেজরিওয়ালের আম আদমিসহ আঞ্চলিক কয়েকটি দল।

নয়াদিল্লি আম আদমি পার্টি নেতা ও মুখ্যমন্ত্রী অরবিন্দ কেজরিওয়াল বলেন, কেন্দ্রীয় সরকার পশ্চিমবঙ্গে যা শুরু করেছে, তা নিরেট আইন ও সংবিধানের লঙ্ঘন। এমনকি এটা গণতন্ত্রেরও পরিপন্থী।

সিবিআই ইস্যুতে মমতার এ সরকার বিরোধী আন্দোলনের কড়া সমালোচনা করেছেন, ক্ষমতাসীন বিজেপি নেতারা।

আইনমন্ত্রী রবি শঙ্কর প্রসাদ বলেন, মাত্র ৫ বছর আগে রাহুল গান্ধী মমতার চিটফাণ্ডের ঘটনার তদন্ত দাবি করেছেন। এখন সেই রাহুল-ই তার পক্ষে মাঠে নেমেছেন। এটা কেমন রাজনীতি। দুর্নীতিবাজরা অন্য আরেক দুর্নীতিবাজকে রক্ষায় জোট বেধেছে। আজ মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় আম আদমি নেতা কেজরিওয়ালের পথ অনুসরণ করে সরকারের বিরুদ্বে মাঠে নেমেছেন।

সিবিআই'র দাবি, কলকাতার পুলিশ কমিশনার রাজীব কুমারের সরাসরি তত্ত্বাবধানে চিট ফান্ড কেলেঙ্কারি মামলা তদন্ত করে পশ্চিমবঙ্গ পুলিশ। কিন্তু তিনি আটককৃত ল্যাপটপ, মোবাইল থেকে যথাযথ তথ্য উদ্ধার করতে ব্যর্থ হন তিনি।

সংশ্লিষ্ট সংবাদ

সর্বশেষ সংবাদ

আন্তর্জাতিক খবর