channel 24

সর্বশেষ

  • বনানী কবরস্থানে শ্রীলঙ্কায় নিহত শিশু জায়ানের দাফন সম্পন্ন

  • লন্ডনে অর্থপাচার মামলায় তারেক রহমানের বন্ধু ব্যবসায়ী...

  • গিয়াসউদ্দিন আল মামুনের ৭ বছরের কারাদণ্ড; ১২ কোটি টাকা জরিমানা

  • শ্রীলঙ্কা ট্র্যাজেডি: নিহতের সংখ্যা বেড়ে ৩৫৯; আটক ৫৮...

  • নিরাপত্তা ব্যবস্থা ঢেলে সাজানো হবে: প্রেসিডেন্ট...

  • ক্রাইস্টচার্চের ঘটনার প্রতিশোধ নিতেই শ্রীলঙ্কায় হামলা...

  • এমন কোনো গোয়েন্দা তথ্য ছিল না: নিউজিল্যান্ডের প্রধানমন্ত্রী

  • মানবতাবিরোধী অপরাধ: নেত্রকোণার সোহরাব ফকিরসহ ২ জনের মৃত্যুদণ্ড..

  • একাত্তরের গণহত্যার স্বীকৃতি দিতে বিশ্বসম্প্রদায়ের প্রতি...

  • আন্তর্জাতিক অপরাধ ট্রাইব্যুনালের আহবান

  • পাবনায় ৩ পুলিশ হত্যা মামলায় ৮ জনের যাবজ্জীবন; খালাস ৩

  • রাজধানীর নিউমার্কেট মোড়ে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় অধিভুক্ত...

  • সাত কলেজ শিক্ষার্থীদের আজও অবস্থান; যান চলাচল বন্ধ

  • চিকিৎসকের পরামর্শ ছাড়া যত্রতত্র অ্যান্টিবায়োটিক বিক্রি বন্ধ চেয়ে রিট

আফ্রিকা মহাদেশের অদ্ভুত সুন্দর দ্বীপরাষ্ট্র সেশালস

আফ্রিকা মহাদেশের অদ্ভুত সুন্দর দ্বীপরাষ্ট্র সেশালস

আফ্রিকা মহাদেশে সাগর মাঝের এক অদ্ভুত সুন্দর দ্বীপরাষ্ট্র সেশালস। যার নামও হয়ত আপনারা কখনোই শোনেননি। অথচ সেখানেও পড়েছে জলবায়ু পরিবর্তনের প্রভাব। সমুদ্রের পানির তাপমাত্রা বৃদ্ধির সাথে সাথে হারিয়ে যাচ্ছে সাগরতলের জীব বৈচিত্র। যেই সমস্যা সমাধানে অবশ্য শিগগিরিই শুরু হচ্ছে গবেষণা। যা করবে স্বেচ্ছাসেবী সংগঠন নেকটন ডিপ ocean রিসার্চ ইনস্টিটিউট। চলুন জেনে আসি কীভাবে করা হবে সেই গবেষণা।

সাগরের সাথে বালুকার যেখানে মাখামাখি ঠিক সেখানেই সেশালস। একটি দ্বীপরাষ্ট্র। যা অনেকের কাছে অজানা।

স্বচ্ছ পানিতে সাগরের হাতছানি পেতে অনেক পর্যটকই আসেন ভারত মহাসাগরের এই ছোট্ট দ্বীপে। আফ্রিকা মহাদেশের দেশটির অর্থনীতির চাকা সচল রাখে পর্যটন ব্যবসা।

দিন দিন বাড়ছে সমুদ্রের পানির তাপমাত্রা। এতে ব্যাহত হচ্ছে জলজ জীবন। হারিয়ে যাচ্ছে সমুদ্রের তলদেশের উদ্ভিদ ও প্রাণী। ১৯৯৮ সালের এক সমীক্ষায় দেখা যায় কিছু কিছু এলাকার ৯০ শতাংশ উদ্ভিদ মরে গেছে। ফলে বিপন্ন হয়ে পড়েছে এর ওপর নির্ভরশীল অন্যান্য প্রাণীদের জীবন।  

আমরা দেখেছি অতিরিক্ত উষ্ণতার কারণে উপকুলীয় উদ্ভিদগুলো কিভাবে শুকিয়ে গেছে। আরো কি কি কারনে সামুদ্রিক উদ্ভিদ ও প্রাণিদের জীবন বিপন্ন হচ্ছে আমরা তা খুজে বের করবো।

কেন মারা যাচ্ছে এসব জলজ উদ্ভিদ, তা জানতে শিগগিরই শুরু যাচ্ছে সমুদ্রের নিচে গবেষনার কাজ।  ৭ সপ্তাহ জুড়ে গবেষকরা সেশালস চারপাশে সমুদ্রের তলদেশ পর্যবেক্ষণ করবেন। সেই সাথে ২ হাজার মিটার গভীরে সেন্সর ফেলে চালাবেন পরীক্ষা-নিরীক্ষা।

দূর্গম এ স্থানের ব্যাপারে খুব কম তথ্যই আছে বিজ্ঞানিদের কাছে। দূর নিয়ন্ত্রীত ছোট সাবমেরিনের সাহায্যে তারা ৩০ মিটার গভীরে প্রবেশ করবেন।

সমুদ্র হচ্ছে আমাদের গ্রহের প্রাণ। এ প্রান কতটা সুস্থ আমরা তা খুব একটা জানি না। সুতরাং আমরা তথ্য সংগ্রহ করবো। যাতে এর অবস্থা সম্পর্কে জানতে পারি।

৩ মার্চ শুরু হবে গবেষনা কর্যক্রম। যার রিপোর্ট তুলে ধরা হবে ২০২১ সালে অনুষ্ঠিতব্য ভারত মহাসাগরীয় দেশগুলোর সম্মেলনে। জলজ প্রাণ রক্ষায় এই গবেষণা ভূমিকা রাখবে বলে আশা প্রকাশ করছেন সংশ্লিষ্ট বিজ্ঞানীরা।

সংশ্লিষ্ট সংবাদ

সর্বশেষ সংবাদ

আন্তর্জাতিক খবর