channel 24

সর্বশেষ

  • ফরিদপুরের মেধাবী দুই শিক্ষার্থীকে প্রতি বছর বৃত্তি দেবে হা-মিম গ্রুপ

  • বগুড়ায় ডাকসুর ভিপি নুরের ওপর হামলা

  • বাংলাদেশ দলে ধারাবাহিকতার প্রতীক মুশফিক

  • প্রিয় ডটকমের সহকারী সম্পাদক ফাগুনের মরদেহ উদ্ধারের ঘটনায় মামলা

  • বিশ্বকাপে চ্যাম্পিয়ন ভারতের পরিসংখ্যান

  • অন্যায়ের সঙ্গে আপস করেননি বলেই খালেদা জিয়া কারাগারে বন্দি: ফখরুল

  • বিশ্বকাপে বাংলাদেশর শুভেচ্ছাদূত আব্দুর রাজ্জাক

  • বিশ্বকাপে সাকিব হতে পারে প্রতিপক্ষের জন্য ভয়ঙ্কর: রিকি পন্টিং

  • চিকিৎসা শেষে দেশে ফিরলেন রাষ্ট্রপতি

  • বৃষ্টি বাধায় বাংলাদেশ-পাকিস্তান প্রস্তুতি ম্যাচ পরিত্যক্ত

  • 'আদর্শিক ও রাজনৈতিকভাবে জঙ্গিবাদকে মোকাবিলা করতে হবে'

  • শূন্য থেকে শুরু; এখন ২শ' বিঘা জমিতে গড়া বাগানের মালিক আলফাজুল

  • কক্সাবাজারে দুর্বৃত্তের ছুরিকাঘাতে শিক্ষার্থী নিহত

  • কক্সবাজারে জেলেদের সহায়তার দাবিতে মানববন্ধন

  • ট্রেনের আগাম টিকিট বিক্রির শেষদিনেও পিছু ছাড়েনি ভোগান্তি

আইন করে ইউঘুর মুসিলমদের আটকে রাখার বৈধতা দিল চীন

আইন করে ইউঘুর মুসিলমদের আটকে রাখার বৈধতা দিল চীন

আইন করে উইঘুর মুসলিমদের জোর করে আটকে রাখার শিবির গুলোকে বৈধতা দিলো চীন। নতুন এই আইনে বন্দী শিবিরগুলো কারিগরি প্রশিক্ষণ কেন্দ্র বলে উল্লেখ করা হয়েছে।

বন্দী শিবিরগুলোতে বৈধতা দিতে গত বছর থেকে চালু হওয়া দেশটির সন্ত্রাস-বিরোধি আইনে নতুন ধারা যোগ করা হয়।

এতে বলা হয়, চরমপন্থায় উদ্বুদ্ধ উইঘুর মুসলিমদের শিক্ষিত ও পরিবর্তিত করতে এসব কারিগরি প্রশিক্ষণ কেন্দ্রে রাখা হয়েছে। তবে ওই সব বন্দী শিবিরে থাকা বাসিন্দাদের অভিযোগ, চীনের প্রেসিডেন্ট সি চিন পিংয়ের প্রতি আনুগত্য এবং ইসলাম অবমাননা করতে বাধ্য করা হয়।

এরআগে জাতিসংঘের এক কমিটি অভিযোগ তোলে, শিনজিয়াং প্রদেশের বন্দী শিবিরে কমপক্ষে ১০ লাখ উইঘুর সম্প্রদায়ের মানুষকে আটকে রেখেছে চীন। হত্যা, গুম, নিখোঁজসহ নানা ধরণের অভিযোগ আসে এসব বন্দী শিবিরের বিরুদ্ধে।

সর্বশেষ সংবাদ

আন্তর্জাতিক খবর