channel 24

সর্বশেষ

  • পরিবেশের ভারসাম্য রক্ষায় কক্সবাজার সমুদ্র সৈকতে...

  • নতুন স্থাপনা নির্মাণ করা যাবে না: আপিল বিভাগ

  • খালেদা জিয়ার প্রার্থিতা নিয়ে হাইকোর্টের বিভক্ত আদেশ...

  • জ্যেষ্ঠ বিচারপতি বৈধ বললেও, কনিষ্ঠ বিচারপতির নাকচ...

  • তৃতীয় বেঞ্চ গঠনের জন্য নথি পাঠানো হয়েছে প্রধান বিচারপতির কাছে...

  • দণ্ডপ্রাপ্তকে নির্বাচনের সুযোগ দিলে সংবিধানের লঙ্ঘন হবে: অ্যাটর্নি জেনারেল

বিমানকর্মীর ভুলে নাক দিয়ে রক্তক্ষরণে অসুস্থ জেট এয়ারওয়েজের ৩০ যাত্রী

বিমানকর্মীর ভুলে নাক দিয়ে রক্তক্ষরণে অসুস্থ জেট এয়ারওয়েজের ৩০ যাত্রী

বৃহস্পতিবার সকালে ভয়াবহ দুর্ঘটনার হাত থেকে রক্ষা পেল জেট এয়ারওয়েজ-এর একটি বিমান। প্রাণে বাঁচলেন বিমানের ১৬৬ জন যাত্রী।

জেট এয়ারওয়েজের ৯ডব্লিউ ৬৯৭ উড়ান মুম্বাই বিমানবন্দর থেকে জয়পুরের উদ্দেশে টেক অফ করে বৃহস্পতিবার ভোর ৫টা ৫৫ মিনিটে। কিন্তু ওড়ার কিছুক্ষণের মধ্যেই যাত্রীদের মধ্যে শুরু হয় প্রচণ্ড কোলাহল। কানে ও নাকে প্রচণ্ড চাপ পড়তে শুরু করে। নাক ও কান দিয়ে রক্ত বের হতে শুরু অনেকের। যাত্রীদের অক্সিজেন মাস্ক দেওয়া হয়। তখনই পাইলটরা বুঝতে পারেন, বিমানের ভিতরে এয়ার প্রেশার বা বায়ুর চাপ নিয়ন্ত্রণের সুইচটিই অন করা হয়নি। এয়ার ট্রাফিক কন্ট্রোলে যোগাযোগ করে কিছুক্ষণের মধ্যেই ফের মুম্বাই বিমানবন্দরে জরুরি অবতরণ করে বিমানটি। যাত্রীদের নামিয়ে সবাইকে প্রাথমিক চিকিৎসা করানো হয় বিমানবন্দরেই। চিকিৎসকরা জানিয়েছেন, অন্তত ৩০ জনের নাক বা কান দিয়ে রক্ত বের হয়েছে। অনেকেই মাথাব্যথায় ছটফট করছিলেন।

এ ঘটনার প্রাথমিক তদন্তের পর জানা যায়, বিমানের প্রেশার নিয়ন্ত্রণের সুইচ অন করতে ভুলে যান বিমানকর্মী। যার জেরেই কেবিনে প্রেশার কমে গিয়ে এই বিপত্তি বাধে। জেট এয়ারওয়েজ-এর পক্ষ থেকে জানানো হয়েছে, অভিযুক্ত বিমানকর্মীর বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়া হয়েছে। আপাতত ওই বিমানকর্মীকে বরখাস্ত করা হয়েছে। এয়ারক্রাফট অ্যাক্সিডেন্ট ইনভেস্টিগেশন ব্যুরো ইতিমধ্যেই ঘটনাটির বিস্তারিত তদন্ত শুরু করেছে।

জেট এয়ারওয়েজ কর্তৃপক্ষ অবশ্য বিষয়টিকে লঘু করে দেখানোর চেষ্টা করেছেন। সংস্থার এক মুখপাত্র বোয়িং ৭৩৭ গোত্রের বিমানটি নিরাপদেই অবতরণ করে। কয়েক জন যাত্রীর কানে ব্যথা, নাকে রক্তপাত হওয়ায় তাঁদের প্রাথমিক চিকিৎসা করানো হয়। যাত্রীদের জন্য বিকল্প উড়ানের বন্দোবস্তও করেছে সংস্থা। কিন্তু গুরুতর এই অপরাধের জন্য কী ব্যবস্থা নেওয়া হয়েছে বা হবে, সে বিষয়ে কিছুই জানায়নি সংস্থাটি।

সংশ্লিষ্ট সংবাদ

সর্বশেষ সংবাদ

আন্তর্জাতিক খবর