channel 24

সর্বশেষ

  • তাজিয়া মিছিলের নিরাপত্তায় সর্বোচ্চ ব্যবস্থা: ডিএমপি কমিশনার

  • কোটা নিয়ে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে পাল্টাপাল্টি মিছিল

  • একুশ আগস্ট গ্রেনেড হামলার বিচার কাজ শেষ; রায় ১০ অক্টোবর

  • ইভিএম কিনতে ৪ হাজার কোটি টাকার প্রকল্প অনুমোদন একনেকে

  • বিএনপি নেতা আমীর খসরুর সম্পদ অনুসন্ধানে দুদকের অভিযান

  • ২০১৭-১৮ অর্থ বছরে জিডিপি প্রবৃদ্ধি ৭.৮৬ শতাংশ: পরিকল্পনামন্ত্রী

নারীরা সুন্দরী বলেই ধর্ষণ বাড়ছে : রদ্রিগো দুতের্তে

নারীরা সুন্দরী বলেই ধর্ষণ বাড়ছে : রদ্রিগো দুতের্তে

দক্ষিণাঞ্চলীয় শহর দাভাওয়ে আশঙ্কাজনক হারে ধর্ষণের ঘটনা বৃদ্ধি নিয়ে বৃহস্পতিবার জনসম্মুখে ফিলিপাইনের প্রেসিডেন্ট রদ্রিগো দুতের্তে বলেন, তার শহরের নারীরা সুন্দরী বলেই ধর্ষণ হয়।

এর আগে ২০১৭ সালে বলেছিলেন, কোনো শাস্তি ছাড়াই একজন পুরুষ চাইলেই তিনজন নারীকে ধর্ষণ করতে পারে।

এ ঠাট্টায় ক্ষুব্ধ হয় ফিলিপাইনের নারী অধিকার সংগঠনগুলো। দেশটির নারী অধিকার নেত্রী এলিজাবেথ আঙ্গসিকো বলেন, প্রেসিডেন্টের এ বক্তব্যের ফলে নারীর মর্যাদা আরও হুমকির মুখে পড়ল।

আলজাজিরাকে তিনি বলেন, এমন মন্তব্য কোনোভাবেই গ্রহণযোগ্য নয়। কারও কাছ থেকে বিশেষ করে দেশের শীর্ষপর্যায় থেকে এমন মন্তব্য কোনোভাবে আশা করা যায় না। তার মন্তব্যে এটাও প্রকাশ পেয়েছে যে, সুন্দরী নারীরাই শুধু ধর্ষণের শিকার হন। তার মানে নারীরা সুন্দর বলেই তাদের ধর্ষণ করা যাবে। তার কাছে যেন এটা স্বাভাবিক ঘটনা। আঙ্গসিকো বলেন, গত কয়েক দশক ধরে ফিলিপিনো নারীবাদী কর্মীরা এখানকার নারী অধিকার নিয়ে কাজ করছেন। সেই সঙ্গে এজন্য সমাজের দৃষ্টিভঙ্গি পরিবর্তন ও আইনি পদক্ষেপ নিয়ে কাজ করে যাচ্ছেন। এর ফলে আমাদের কিছু সাফল্যও এসেছে। কিন্তু দুতের্তের এমন মন্তব্য আমাদের সব অর্জনকে বিনষ্ট করে দিয়েছে। সেই সঙ্গে আমাদের আরও অন্ধকার যুগে ঠেলে দিয়েছে।

প্রসঙ্গত, রদ্রিগো দুতের্তে এর আগেও ধর্ষণ নিয়ে ঠাট্টা-মশকরা ও নারীদের কটাক্ষ করে গেছেন।

উল্লেখ্য যে, ২০১৭ সালের জুলাই মাসে তিনি মন্তব্য করেছিলেন, মিস ইউনিভার্সকে ধর্ষণ করা তিনি গ্রহণযোগ্য মনে করেন।

সংশ্লিষ্ট সংবাদ

সর্বশেষ সংবাদ

আন্তর্জাতিক খবর