channel 24

সর্বশেষ

  • সম্পদের তথ্য গোপন: বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য...

  • ব্যারিস্টার রফিকুল ইসলাম মিয়ার ৩ বছরের কারাদণ্ড

  • এবার সব দলের অংশগ্রহণে অবাধ ও সুষ্ঠু নির্বাচন হবে...

  • কোনো পর্যবেক্ষণ সংস্থা দায়িত্ব পালনে অনিয়ম করলে ব্যবস্থা: ইসি সচিব

  • তৃতীয় দিনের মতো চলছে বিএনপির মনোনয়নপ্রত্যাশীদের সাক্ষাৎকার

  • গুলশানে জাপার মনোনয়নপ্রত্যাশীদের সাক্ষাৎকার অনুষ্ঠান চলছে...

  • জাতীয় পার্টি যে জোটে তারাই ক্ষমতায় আসবে: রুহুল আমিন হাওলাদার

মিয়ানমারের উপকূলে জনমানবশূন্য বিশাল এক জাহাজ

মিয়ানমারের উপকূলে জনমানবশূন্য বিশাল এক জাহাজ

মিয়ানমারের বাণিজ্যিক রাজধানী ইয়াঙ্গুনের শহরতলি থংওয়ার উপকূলে ভেসে আসে জনমানবশূন্য বিশাল একটি জাহাজ। ভেসে আসা জাহাজটিতে কোনো নাবিক কিংবা কোন পণ্যের সন্ধান পাওয়া যায় নি। জনমানবশূন্য এই জাহাজটির দৈর্ঘ্য ৫৮০ ফুট। কন্টেইনারবাহী বিশাল এই জাহাজের নাম ‘স্যাম রাতুলাঙ্গি পিবি ১৬০০’।

ইয়াঙ্গুনের শহরতলি থংওয়ার পুলিশ জানিয়েছে, গত মঙ্গলবার সন্ধ্যায় থামা সেইতা গ্রাম থেকে সাত কিলোমিটার দূরে জাহাজটি প্রথম চোখে পড়ে। এরপর কোস্ট গার্ড, নৌবাহিনী ও পুলিশের একটি যৌথ দল জাহাজে তল্লাশি চালায়। তবে কাউকেই পাওয়া যায়নি।

এদিকে ইয়াঙ্গুন পুলিশ জানিয়েছে, জাহাজটি ইন্দোনেশিয়ার পতাকাবাহী। এটি সৈকতে পতিত অবস্থায় পড়ে রয়েছে। ইনডিপেনডেন্ট ফেডারেশন অব মিয়ানমার সিফারার্সের জেনারেল সেক্রেটারি অং কিও লিন মিয়ানমার টাইমসকে বলেছেন, জাহাজটি এখনো ব্যবহারের উপযোগী। তবে তিনি সন্দেহ করছেন, জাহাজটি সম্প্রতি পরিত্যক্ত ঘোষণা করা হয়েছে। তবে নিশ্চয়ই এর পেছনে কোন কারণে রয়েছে।

বিশ্বজুড়ে জাহাজের গতিবিধি পর্যবেক্ষণকারী মেরিন ট্রাফিক ওয়েবসাইটে বলা হয়েছে, ৫৮০ ফুট দীর্ঘ এই জাহাজটি ২০০১ সালে তৈরি হয়েছে। এএফপির খবরে জানানো হয়, মিয়ানমারে জাহাজটি চোখে পড়ার আগে সর্বশেষ রেকর্ড অনুয়ায়ী এটি ২০০৯ সালে তাইওয়ান উপকূলে অবস্থান করছিল।

সংশ্লিষ্ট সংবাদ

সর্বশেষ সংবাদ

আন্তর্জাতিক খবর