বাল্যবিবাহ থেকে বাচঁতে জীবন দিতে হলো কিশোরীকে | দেশ 24

CHANNEL 24



Back প্রচ্ছদ দেশ 24 বাল্যবিবাহ থেকে বাচঁতে জীবন দিতে হলো কিশোরীকে

দেশ 24

বাল্যবিবাহ থেকে বাচঁতে জীবন দিতে হলো কিশোরীকে

বাল্যবিয়ে  নামক  অভিশাপ থেকে  বাচঁতে, শেষ পর্যন্ত  জীবনটাই দিতে হলো সাবিনা  আক্তার  নামে শরিয়তপুরের পঞ্চম শ্রেণীর এক কিশোরীকে।

এলাকাবাসী বলছে বিয়েতে রাজি  না হওয়ায় তাকে হত্যা করেছে পরিবারের লোকজন। আর পুলিশ জানিয়েছে, ময়না তদন্তের পর জানা যাবে মৃত্যুর কারণ। ঘটনার  পর থেকে পলাতক  রয়েছে সাবিনার মা ও ভাই।

মৃত্যুই শরীয়তপুরের সাবিনাকে বাঁচিয়ে দিল বাল্য বিয়ের হাত থেকে।

মাত্র দুদিন আগে পিইসি পরীক্ষা শেষে ফেরার পথে সাবিনা হয়তো ভাবছিল নিশ্চিন্ত মনে পুতুল খেলার কথা। কিন্তু বাড়িতে গিয়ে জানতে পারে তার বিয়ে ঠিক হয়েছে। এতে স্বভাবতই প্রতিবাদ করে সাবিনা। এর ফলে মা ও ভাইয়ের হাতে মারও খেতে হয় তাকে।

পরিবারের দাবি, পরদিন সকালে বিছানায় মরদেহ দেখতে পেয়ে প্রতিবেশীদের খবর দেয় সাবিনার মা। কিন্তু এলাকাবাসী বলছে অন্য কথা। তাদের দাবি অর্থের লোভে এক বয়স্ক পুরুষের সাথে সাবিনার বিয়ে ঠিক করা হয়েছিলো। যার রয়েছে দুই সন্তান। আর তাতে রাজি না হওয়ায় সাবিনাকে নির্যাতন করে মেরে ফেলেছে তার মা ও ভাই।

ঘটনার পর থেকে পলাতক রয়েছে সাবিনার মা ও ভাই। তবে এ বিষয়ে কিছু জানেন না বলে দাবি সাবিনার বাবার।

সোমবার বিকেলে গোপনে সাবিনার মরদেহ দাফন করতে যায় তার স্বজনরা। খবর পেয়ে পুলিশ এসে ময়না তদন্তের জন্য সাবিনার মরদেহ শরিয়তপুর সদর হাসপাতালে পাঠায়।

সঠিক তদন্তের মাধ্যমে সাবিনার মৃত্যুর রহস্য উন্মোচন ও দোষীদের বিচারের দাবি তার সহপাঠি ও এলাকাবাসীর।