channel 24

সর্বশেষ

  • কমলাপুর স্টেশনে ট্রেনের বগি থেকে নারীর মরদেহ উদ্ধার

  • ২২ তারিখের বৈঠকে বকেয়া বিষয়ে সিদ্ধান্ত: ট্যানার্স অ্যাসোসিয়েশন...

  • পাওনা পরিশোধের নির্দেশনা না এলে...

  • তৈরি হবে অচলাবস্থা: হাইড অ্যান্ড স্কিন মার্চেন্ট অ্যাসোসিয়েশন

  • জাতীয় স্কুল মিল নীতিমালার খসড়া মন্ত্রিসভায় অনুমোদন...

  • প্রাথমিকে মোট ক্যালরির ৩০ ভাগ পূরণ করতে হবে স্কুলকে

  • নকশা জালিয়াতি: বনানীর এফ আর টাওয়ারের মালিক ফারুক গ্রেপ্তার

  • খালেদা জিয়াকে মুক্ত করতে না পেরে বিদেশে নালিশ করছে বিএনপি: সেতুমন্ত্রী

  • ডেঙ্গু: ২৪ ঘণ্টায় হাসপাতালে ভর্তি ১,৬১৫ জন: স্বাস্থ্য অধিদপ্তর

  • ঢাকা, বরিশাল, খুলনা, ফরিদপুর ও ময়মনসিংহে ৬ জনের মৃত্যু

  • বঙ্গবন্ধু হত্যায় জিয়া নয়, আ.লীগের লোকজন জড়িত: ফখরুল

  • জীবনের নিরাপত্তা চেয়ে প্রধানমন্ত্রীর হস্তক্ষেপ কামনা ভিপি নুরের

  • নবম ওয়েজ বোর্ড নিয়ে রাষ্ট্রপক্ষের আবেদনের ওপর আদেশ কাল...

  • সাংবাদিক ছাড়া গণমাধ্যম মালিকদের অস্তিত্ব নেই: আপিল বিভাগ

  • খুলনা উন্নয়ন কর্তৃপক্ষ কার্যালয়ে দুদকের অভিযান চলছে

  • তিন দিনের সফরে রাতে ঢাকায় আসছেন ভারতের পররাষ্ট্রমন্ত্রী

এক লাখ ডাক্তারের তথ্য যুক্ত হলো বিএমডিসির ওয়েবসাইটে

এক লাখ ডাক্তারের তথ্য যুক্ত হলো বিএমডিসির ওয়েবসাইটে

বাংলাদেশের সরকারি অথবা বেসরকারি মেডিকেল ও ডেন্টাল কলেজ থেকে এমবিবিএস ও বিডিএস কোর্স থেকে সনদ পাওয়া চিকিৎসকদের তথ্য যুক্ত করা হচ্ছে বিএমডিসির ওয়েবসাইটে (bmdc.org.bd/doctors-info)।

এখন পর্যন্ত সনদপ্রাপ্ত এক লাখ চিকিৎসকের নাম ও পরিচয় এ ওয়েবসাইটে যুক্ত করা হয়েছে। যার মধ্যে এমবিবিএস ডাক্তার ৯১ হাজার ও বিডিএস ৯ হাজার।

ভুয়া ডাক্তারদের অপচিকিৎসার হাত থেকে রক্ষা করতে ওয়েবসাইটে ডাক্তারদের প্রাথমিক তথ্য-উপাত্ত দেয়া আছে। শুধু ডাক্তারের রেজিস্ট্রেশন নম্বর জানলে ওয়েবসাইটে ঢুকে নম্বরটি বসিয়ে ক্লিক করে যে কেউ জেনে নিতে পারবেন তিনি বিএমএর বৈধ রেজিস্ট্রেশনপ্রাপ্ত ডাক্তার কি না।

বাংলাদেশ মেডিকেল অ্যান্ড ডেন্টাল কাউন্সিল (বিএমডিসি) জানায়, ভুয়া সনদ ব্যবহার করে নিজেদের ডাক্তার পরিচয়ে প্রতারণা করছেন অনেকেই। এমন অভিযোগের সুরাহা করতে বিএমডিসি তিন বছর আগে ডিজিটাল প্রযুক্তির সহায়তায় তাদের নিজস্ব ওয়েবসাইটে দেশের বিভিন্ন

সরকারি-বেসরকারি মেডিকেল ও ডেন্টাল কলেজ থেকে পাস করা বৈধ রেজিস্ট্রেশনপ্রাপ্ত এমবিবিএস ও ডেন্টাল ডাক্তারদের তথ্য সংগ্রহ শুরু করে। পর্যায়ক্রমে ওয়েবসাইটে চিকিৎসকের সংখ্যা এক লাখ ছাড়িয়েছে।

দেশের সব সরকারি-বেসরকারি মেডিকেল ও ডেন্টাল কলেজ থেকে পাস করা ডাক্তারদের বাধ্যতামূলকভাবে বিএমডিসির রেজিস্টার্ড সনদ নিতে হয়। তাদের সনদ ছাড়া দেশ-বিদেশের কোথাও ডাক্তারদের চাকরি বা প্রাইভেট প্র্যাকটিস করার নিয়ম নেই।

তিন বছর আগে থেকেই ওয়েবসাইটি চালু রয়েছে। এখন পর্যন্ত ওয়েবসাইটিতে ক্রমানুসারে এক থেকে এক লাখ ডাক্তারের নাম ও ছবি, রেজিস্ট্রেশন নম্বর, বাবার নাম ও ঠিকানা দেয়া আছে।

বিএমডিসি জানিয়েছে, খুব শিগগিরই বৈধ রেজিস্ট্রেশনপ্রাপ্ত সব ডাক্তারের তথ্য বিএমডিসির ওয়েবসাইটে পাওয়া যাবে।

সংশ্লিষ্ট সংবাদ

সর্বশেষ সংবাদ

স্বাস্থ্য খবর