channel 24

সর্বশেষ

  • কমলাপুর স্টেশনে ট্রেনের বগি থেকে নারীর মরদেহ উদ্ধার

  • ২২ তারিখের বৈঠকে বকেয়া বিষয়ে সিদ্ধান্ত: ট্যানার্স অ্যাসোসিয়েশন...

  • পাওনা পরিশোধের নির্দেশনা না এলে...

  • তৈরি হবে অচলাবস্থা: হাইড অ্যান্ড স্কিন মার্চেন্ট অ্যাসোসিয়েশন

  • জাতীয় স্কুল মিল নীতিমালার খসড়া মন্ত্রিসভায় অনুমোদন...

  • প্রাথমিকে মোট ক্যালরির ৩০ ভাগ পূরণ করতে হবে স্কুলকে

  • নকশা জালিয়াতি: বনানীর এফ আর টাওয়ারের মালিক ফারুক গ্রেপ্তার

  • খালেদা জিয়াকে মুক্ত করতে না পেরে বিদেশে নালিশ করছে বিএনপি: সেতুমন্ত্রী

  • ডেঙ্গু: ২৪ ঘণ্টায় হাসপাতালে ভর্তি ১,৬১৫ জন: স্বাস্থ্য অধিদপ্তর

  • ঢাকা, বরিশাল, খুলনা, ফরিদপুর ও ময়মনসিংহে ৬ জনের মৃত্যু

  • বঙ্গবন্ধু হত্যায় জিয়া নয়, আ.লীগের লোকজন জড়িত: ফখরুল

  • জীবনের নিরাপত্তা চেয়ে প্রধানমন্ত্রীর হস্তক্ষেপ কামনা ভিপি নুরের

  • নবম ওয়েজ বোর্ড নিয়ে রাষ্ট্রপক্ষের আবেদনের ওপর আদেশ কাল...

  • সাংবাদিক ছাড়া গণমাধ্যম মালিকদের অস্তিত্ব নেই: আপিল বিভাগ

  • খুলনা উন্নয়ন কর্তৃপক্ষ কার্যালয়ে দুদকের অভিযান চলছে

  • তিন দিনের সফরে রাতে ঢাকায় আসছেন ভারতের পররাষ্ট্রমন্ত্রী

শারীরিক যন্ত্রণার সাথে মানসিক কষ্টে কুষ্ঠ রোগীরা

শারীরিক যন্ত্রণার সাথে মানসিক কষ্টে কুষ্ঠ রোগীরা

শুধু শারীরিক যন্ত্রণা নয়, সামাজিকভাবে অনেকটা বিচ্ছিন্ন মেহেরপুরের কুষ্ঠ রোগীরা। বিশেষ করে যাদের শরীর থেকে মাংস খসে পড়ছে, সবাই এড়িয়ে চলেন তাদের। সামাজিক লোকলজ্জার ভয়ে চিকিৎসা নিতেও যান না অনেকে। ৪ মাস আগে মেহেরপুরের তিন উপজেলার মাত্র ৬টি ইউনিয়নে জরিপে ৩৭জন কুষ্ঠ রোগীর সন্ধান পায়, স্বাস্থ্য অধিদপ্তর। কর্তৃপক্ষের ধারণা, পুরো জেলায় আক্রান্তের সংখ্যা আরও বেশি। সিভিল সার্জন বলছেন, পর্যাপ্ত বাজেট না থাকায় রোগী সনাক্তের কাজ এগিয়ে নেয়া যাচ্ছে না।

শরীরে পচন ধরেছে, তাই সবাই এড়িয়ে চলেন। সমাজের ভেতরে থেকেও যেনো এক বিচ্ছিন্নতা। শারীরিক যন্ত্রণার সাথে এমন মানসিক কষ্টও বয়ে বেড়াতে হয় কুষ্ঠ রোগীদের।

মেহেরপুরের মুজিবনগর উপজেলার সোনাপুর মাঝপাড়া গ্রামের ৬৪ বছর বয়সী আব্দুল মজিদ। ৮ বছর ধরে ভুগছেন এই রোগে। পা থেকে খসে পড়েছে মাংস। সহমর্মিতা তো দূরে থাক, সামাজিক প্রতিবন্ধকতার কারণে অনেকে চিকিৎসা নিতেও ভয় পান।

গত বছরের সেপ্টেম্বরে স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের হিসাব মতে, মেহেরপুরের তিন উপজেলার মাত্র ৬ ইউনিয়নে জরিপ চালিয়েই কুষ্ঠ রোগী পাওয়া গেছে ৩৭জন। তাই কতৃপক্ষের ধারণা, জরিপের এই তথ্যের চেয়েও কুষ্ঠরোগীর সংখ্যা বেশি। স্থানীয় হাসপাতালের তথ্য বলছে, ২০১৮ সালে মেহেরপুরে কুষ্ঠ রোগের চিকিৎসা নিয়েছেন ১৫৬জন।

মসজিদের দান বাক্সে এক কোটি ১৩ লাখ ৩৩ হাজার ৪৭৩ টাকা

অস্তিত্ব সংকটে ঝিনাইদহের নদীগুলো

সময় মতো চিকিৎসা নিয়ে সুস্থ হয়েছে অনেকেই। তবে দেরি করায় অনেকেই এখন মৃত্যু পথযাত্রী। বিশেষজ্ঞ চিকিৎসকরা বলছেন, হাঁচি কাশি থেকে কুষ্ঠ রোগের জীবানু ছড়ায়। তবে প্রাথমিক পর্যায়ে চিকিৎসা নিলে এ রোগ নিরাময় সম্ভব। যদিও পর্যাপ্ত বাজেটের অভাবে নতুন করে রোগী শনাক্তের কাজ করা সম্ভব হচ্ছে না বলে জানিয়েছেন সিভিল সার্জন।

সীমিত সাধ্যের মধ্যেই কুষ্ঠ রোগের বিষয়ে সচেতনতা বাড়াতে নানা কর্মসূচি হাতে নেয়ার কথাও বলছেন সিভিল সার্জন।

সংশ্লিষ্ট সংবাদ

সর্বশেষ সংবাদ

স্বাস্থ্য খবর