channel 24

সর্বশেষ

  • ধ্বংসাত্মক রাজনীতির কারণে ভুলের চোরাবালিতে বিএনপি: ওবায়দুল কাদের

  • ভারতের নয়াদিল্লিতে অল ইন্ডিয়া মেডিকেল ইনস্টিটিউটে আগুন...

  • নিয়ন্ত্রণে কাজ করছে ফায়ার সার্ভিসের ৩৪টি ইউনিট

  • অবসর বিষয়ে মাশরাফীর সিদ্ধান্ত দুই মাস পর: বিসিবি সভাপতি

  • ক্রিকেট দলের নতুন হেড কোচ দক্ষিণ আফ্রিকার রাসেল ক্রেগ ডোমিঙ্গো...

  • দায়িত্ব নেবেন ২১ আগস্ট, চুক্তি দুই বছরের: বিসিবি সভাপতি

  • গত ২৪ ঘণ্টায় সারা দেশে ভর্তি ১ হাজার ৪শ' ৬০: স্বাস্থ্য অধিদপ্তর

  • ডেঙ্গুতে ঢাকা মেডিকেলে নারী ও ফরিদপুর মেডিকেলে কলেজছাত্রের মৃত্যু

  • ডেঙ্গু প্রতিরোধ: ঢাকা উত্তরের প্রতিটি ওয়ার্ডকে...

  • ১০ ভাগে ভাগ করে চিরুনি অভিযান: মেয়র আতিকুল

  • ঢাকাকে হংকং, সিঙ্গাপুর বানানোর ঘোষণা স্থানীয় সরকার মন্ত্রীর

  • বকেয়া পরিশোধ না করায় ট্যানারিতে আপাতত...

  • চামড়া না দেয়ার ঘোষণা পোস্তার আড়তদারদের...

  • কাল সরকারের সাথে বৈঠকের পর চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত...

  • চামড়া বিক্রি করা না করা তাদের নিজস্ব ব্যাপার...

  • বকেয়া পরিশোধ হবে কেস টু কেস ভিত্তিতে: ট্যানার্স অ্যাসোসিয়েশন

  • সুপরিকল্পিতভাবে রাজনীতিকে শূন্য করার চক্রান্ত চালাচ্ছে সরকার: ফখরুল

  • কলকাতায় সড়ক দুর্ঘটনায় ২ বাংলাদেশি নিহত

সাইনোসাইটিসের সমস্যা? সুস্থ থাকুন ওষুধ ছাড়াই

সাইনোসাইটিসের সমস্যা? সুস্থ থাকুন ওষুধ ছাড়াই

সাইনাসের জন্য প্রবল মাথা যন্ত্রণা, সারাক্ষণ নাক-মাথায় ভারী ভাব এমনকি ব্যথার কারণে জ্বর চলে আসা। মুখের হাড়ের ভিতর যে ফাঁপা, বায়ুভর্তি জায়গা থাকে, তার ভিতরের ঝিল্লিতে কোনও রকম বাধা এলে বা জ্বালা করলে সেখান থেকেই সাইনোসাইটিসের সমস্যা শুরু হয়।

সাইনোসাইটিসের সমস্যা হানা দিলে নিয়ম মেনে কিছু ওষুধ খাওয়ার প্রয়োজন পড়ে ঠিকই। তবে, সারা বছর বেশ কিছু ঘরোয়া উপায় মেনে চললে এই অসুখ ঠেকিয়ে রাখা যায় অনেকটাই। জেনে নিন সেসব উপায়-

সাইনোসাইটিসের সমস্যা নিয়ন্ত্রণ করতে প্রতি দিন ডায়েটে রাখুন এক কোয়া রসুন ও মধু। এই দুই উপাদানেই একাধিক রোগ প্রতিরোধের ক্ষমতা রয়েছে। বিশেষ করে শ্লেষ্মাজনিত অসুখ ঠেকাতে এদের জুড়ি নেই। এক কোয়া রসুনের সঙ্গে দু’চামচ মধু মিশিয়ে খেলে সাইনাসের আক্রমণ ঠেকাতে পারবেন অনেকটাই।

অদ্ভুত রোগ! কেবলমাত্র পুরুষের স্বর শোনা যায় না

২০১৯ এর ক্যালেন্ডার ঠিক ১৮৯৫ এর মতো!

কম জলীয় বাষ্পযুক্ত স্থান এড়িয়ে চলুন। সাইনোসাইটিসের ক্ষেত্রে স্যাঁতসেঁতে বা অতিরিক্ত শুষ্ক আবহাওয়াও ক্ষতিকারক। পর্যাপ্ত আলো-বাতাস আছে, এমন জায়গায় থাকুন।

শ্লেষ্মাজনিত সমস্যাকে দূরে রাখলেই সাইনাসের সমস্যা অনেকটা দূরে থাকে। তাই গরম পানির ভাপ নেন প্রায়। কোনও দিন কোনও কারণে একটু ঠান্ডার প্রবণতা বাড়লে গরম পানির ভাপ নিন। এতে নাসাপথ ভিজে থাকে ও শ্লেষ্মা পাতলা হয়ে বেরিয়ে আসে।

আদা, মধুর মিশ্রণ শ্লেষ্মার জন্য অত্যন্ত উপকারী। মধুর অ্যান্টিইনফ্ল্যামেটরি ক্ষমতা শরীর গরম রাখে। আদা প্রাকৃতির ভাবেই অ্যান্টিব্যাক্টিরিয়াল। এই দুই উপাদানের মিশ্রণ প্রতি দিন খেতে পারলে সাইনাসের সমস্যা থেকে অনেকটাই দূরে থাকা যায়।

গরম পানীয় খান। চা-কফি খেলে তাতে চিনি বাদ দিন। স্যুপ খেলেও তা যেন খুব মশলাদার না হয়।

গরম পানিতে একটি তোয়ালে ভিজিয়ে ভাল করে নিংড়ে নিন। এ বার এই তোয়ালে মুখের উপর দিয়ে কিছু ক্ষণ শুয়ে থাকুন। এতে অনেকটা আরাম পাওয়া যায়।

সিগারেটের ধোঁয়া, বডি স্প্রে, ধুলোবালি ইত্যাদিথেকে দূরে থাকুন। এ সব নাসিকাপথে প্রবেশ করে সাইনোসাইটিসের সমস্যা বাড়ায়।

সংশ্লিষ্ট সংবাদ

সর্বশেষ সংবাদ

স্বাস্থ্য খবর