channel 24

সর্বশেষ

  • নয়াপল্টনে বিএনপি নেতাকর্মীদের সাথে পুলিশের ধাওয়া পাল্টা ধাওয়া...

  • ইটপাটকেল-টিয়ারশেল নিক্ষেপ; পুলিশের গাড়ি ভাঙচুর ও আগুন

বিচ্ছুর কামড়ে মৃত্যুর হার বৃদ্ধি ব্রাজিলে

বিচ্ছুর কামড়ে মৃত্যুর হার বৃদ্ধি ব্রাজিলে

ব্রাজিলে বেড়েছে বিচ্ছুর কামড়ে মৃত্যুর হার। দেশটির স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের হিসাবে, গত এক বছরে এই মৃত্যুহার দ্বিগুণ হয়েছে। যার বেশিরভাগই শিশু। চিকিৎসকরা বলছেন, গ্রামে পর্যাপ্ত প্রতিষেধক না থাকায় বাঁচানো যাচ্ছে না, বিচ্ছুর কামড়ে অসুস্থদের। তাই আক্রমণ ঠেকাতে বাড়ির আশপাশ পরিষ্কার রাখার পরামর্শ তাদের।
বিচ্ছু ছোট হলেও প্রাণঘাতি হতে পারে এর কামড়। আর সম্প্রতি এই বিচ্ছুর কামড়ে প্রাণহানি ঠেকাতে হিমশিম খাচ্ছে ব্রাজিল।
সবচেয়ে বেশি প্রাণহানির খবর মিলেছে রিও ডি জেনিরো থেকে ৩০০ কিলোমিটার দূরের সাও ফ্রান্সিসকো ডি ইটাবাপোয়ানায়। দেশটির স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয় বলছে, ২০১৩ সালের মৃত্যুর সংখ্যা ৭০ থেকে ২০১৭ সালে এই সংখ্যা দাঁড়িয়েছে ১৮৪ জনে। আর বিচ্ছুর কামড়ে আক্রান্ত হয়েছেন এক লাখ ২৫ হাজারেরও বেশি মানুষ।
বিচ্ছুর কামড়ের পর, পেট, পিঠ, হাড়ের সংযোগস্থল সবখানেই ব্যথা অনুভব করি। আমার পুরো শরীর এমনকি দাঁতের মাড়ি, কান আর গলাও বাদ নেই।
হাতে গ্লাভস পরে মাঠে কাজ করছিলাম। বিচ্ছু গ্লাভস বেয়ে উঠে তিন জায়গায় কামড়ে দেয়।
এমন ঘটনা সবচেয়ে বেশি ঘটছে প্রত্যন্ত এলাকায়। আর শিশুদের মারা যাওয়ার সংখ্যাটাই বেশি। অভিযোগ উঠেছে, প্রত্যন্ত এলাকার স্বাস্থ্য সেবা কেন্দ্র ও হাসপাতালগুলোতে পর্যাপ্ত প্রতিষেধক না থাকাই এর কারণ।
বিচ্ছুর কামড়ে আক্রান্ত হওয়ার পর হাসপাতালে যাই। সেখানে আমাকে কেবল ব্যথানাশক ওষুধ দেয়া হয়। কারণ তাদের কাছে কোনো প্রতিষেধক ছিলো না।
শিশুদের জন্য বিচ্ছুর বিষ বেশি মারাত্মক। শিশুদের দৈহিক ওজন কম হওয়ায় শরীরে দ্রুত ছড়িয়ে পড়ে বিষ।
বিচ্ছুর বিষের প্রতিষেধকও তৈরি হয় এর বিষ থেকেই। তবে প্রতিষেধক সহজলভ্য না হওয়ায়, বাড়ির আশপাশ পরিচ্ছন্ন রাখার পরামর্শ চিকিৎসকদের।

 

সংশ্লিষ্ট সংবাদ

সর্বশেষ সংবাদ

স্বাস্থ্য খবর