channel 24

সর্বশেষ

  • বিশ্বকাপে বাংলাদেশের অর্জন নিয়ে আশাবাদী ক্রিকেটভক্তরা

  • সাকিব আল হাসানের ব্যাক টু ব্যাক সেঞ্চুরি

  • ব্যাংক কমিশন গঠনের প্রস্তাবকে নেতিবাচক বলছেন বিশ্লেষকরা

  • বিশ্বকাপের সর্বশেষ পয়েন্ট টেবিল

  • রামসাগর জাতীয় উদ্যানের তত্ত্বাবধায়কের বাড়িতে দুদকের অভিযান

  • পায়রায় কয়লা সরবরাহে ইন্দোনেশীয় কোম্পানির সঙ্গে চুক্তি সই

  • উপজেলা নির্বাচনের শেষ দফার ভোট শুরু

  • মধ্যপ্রাচ্যে আরো ১ হাজার সেনা পাঠাবে যুক্তরাষ্ট্র

  • মৌলভীবাজারের মনু ও ধলাই নদী পাড়ের মানুষের অনিশ্চিত জীবন

  • সঠিক মান বজায় রেখে লবণ উৎপাদনের আহ্বান বিএসটিআই'র

  • আদালতে মোহাম্মদ মুরসির মৃত্যুতে প্রশ্নবিদ্ধ মিশরের বিচারব্যবস্থা

  • উপজেলা নির্বাচনের শেষ দফার ভোট আজ

  • কর্মবিরতি প্রত্যাহার করলো কলকাতায় আন্দোলনরত চিকিৎসকরা

  • গোপালগঞ্জে প্রতিবন্ধী নারী ধর্ষণের অভিযোগে গ্রেপ্তার ১

  • বিশ্বকাপে টানা দ্বিতীয় সেঞ্চুরি করলেন সাকিব

'মাংস রান্না ও খাওয়া সতর্কতায় স্বাস্থ্যঝুঁকি থেকে দূরে থাকা সম্ভব'

 'মাংস রান্না ও খাওয়া সতর্কতায় স্বাস্থ্যঝুঁকি থেকে দূরে থাকা সম্ভব'

হোক না কোরবানীর মাংস? তাতে কি? খেতে হবে পরিমিত পরিমাণে। লাল মাংসের অতিরিক্ত চর্বি হৃদরোগ, ডায়াবেটিসসহ নানা রোগের দরজা খুলে দিতে পারে। চিকিৎসকদের পরামর্শ কোরবানি ঈদে মাংস রান্না, খাওয়া ও সংরক্ষণে সতর্কতা অবলম্বন করলে স্বাস্থ্যঝুঁকি থেকে দূরে থাকা সম্ভব।

কোরবানি ঈদের চিরচেনা দৃশ্য। চলছে মাংস কাটাকাটি, বিলিবন্টন। এরপর এই মাংস চড়বে হাঁড়িতে। রান্না হবে গরু-খাসির মুখোরোচক নানা পদ। সাধারণত সারা বছরের চেয়ে কোরবানি ঈদের এই সময়টায় প্রায় প্রতিটি মুসলিম ঘরে মাংস খাওয়া বেড়ে যায়।

অনেকেই মানেন না খাওয়ার পরিমিতিবোধও। তাই তৈরি হয় নানা স্বাস্থ্যগত ঝুঁকি।
চিকিৎসক আর পুষ্টিবিদরা বলছেন, লাল মাংস হৃদরোগ, কোলোর‍্যাক্টাল ক্যান্সার, ডায়াবেটিসসহ নানা রোগের সাথে সরাসরি সম্পৃক্ত। এই মাংস খাওয়ার ক্ষেত্রে পরিমিতি খুব জরুরি। তা না হলে ঈদ আনন্দ মাটি করে দিতে পারে স্বাস্থ্য সমস্যা।
এক্ষেত্রে মাংস কাটা ও রান্নার সময় একটু সতর্ক হলেই অতিরিক্ত চর্বি বাদ দেয়া যায়। বিশেষজ্ঞরা পরামর্শ দিচ্ছেন রান্নায় বিশেষ পদ্ধতি মেনে চলার। একইসাথে সংরক্ষণ পদ্ধতিতেও নেয়া দরকার বাড়তি সতর্কতা।
বিশেষজ্ঞদের পরামর্শ কোরবানি ঈদে প্রতি বেলায় মাংস না খাওয়ায়। দিনে একবেলা মাংস খেলে প্রোটিনের চাহিদাও যেমন পূরণ হবে তেমনি দূরে থাকা যাবে নানা রোগের ঝুঁকি থেকে।

 

সর্বশেষ সংবাদ

স্বাস্থ্য খবর