channel 24

সর্বশেষ

  • প্রিয়া সাহার বক্তব্য ত্রুটিপূর্ণ ও উদ্দেশ্যপ্রণোদিত: পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়...

  • অভিযোগ প্রমাণ করতে না পারলে আইনি ব্যবস্থা: স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী...

  • প্রিয়া সাহার বক্তব্য অগ্রহণযোগ্য ও উসকানিমূলক: ওবায়দুল কাদের...

  • উপজেলা নির্বাচনে বিদ্রোহী ও মদদদাতাদের বিরুদ্ধে ২৮ জুলাই থেকে ব্যবস্থা

  • যোগাযোগে বিঘ্ন ঘটায় বন্যাদুর্গত এলাকায় ত্রাণ পৌঁছাতে সময় লাগছে: প্রতিমন্ত্রী

  • সরল বিশ্বাসের ব্যাখ্যায় দুর্নীতি শব্দটি ছিল না, দাবি দুদক চেয়ারম্যানের

  • আগস্টের মধ্যে মালয়েশিয়ার শ্রমবাজার উন্মুক্ত হবে, আশা প্রবাসীকল্যাণ মন্ত্রীর

  • 'ছেলেধরা' সন্দেহে গণপিটুনি: ঢাকা ও নারায়ণগঞ্জে নারীসহ নিহত ২...

  • চট্টগ্রাম, ময়মনসিংহ, গাজীপুরে ৩ নারী ও পাবনায় যুবক আহত; কুষ্টিয়ায় আটক ১

  • তিন ওয়ানডে খেলতে শ্রীলঙ্কার পথে বাংলাদেশ দল...

  • সাকিব-মাশরাফী না থাকায় সিরিজ কঠিন হবে: তামিম ইকবাল

অ্যালকোহল যক্ষা রোগে আক্রান্ত ব্যক্তিদের মৃত্যু ঝুঁকি বাড়ায়

অ্যালকোহল যক্ষা রোগে আক্রান্ত ব্যক্তিদের  মৃত্যু ঝুঁকি বাড়ায়

অ্যালকোহল পান টিবি বা যক্ষা রোগে আক্রান্ত ব্যাক্তিদের মৃত্যু ঝুঁকি বাড়ায়। এমনি তথ্য উঠে এসেছে যুক্তরাষ্ট্রের  ইউনিভার্সিট অব টেক্সাসের গবেষনায়। বিশেষজ্ঞরা বলছেন, অ্যালকোহল গ্রহন সুপ্ত অবস্থায় টিবির সংক্রমণ আছে এমন শরীরে আইএফএন প্রোটিনের মাত্রা আনেক অংশে বাড়িয়ে দেয়। যার ফলে বাড়ে মৃত্যুর ঝুঁকি।

অতিরিক্ত অ্যালকোহল পান, টিউবারকিউলোসিস  বা টিবি আক্রান্ত ব্যাক্তির মৃত্যুর ঝুঁকি আরও বাড়িয়ে দেয়। ইউনিভার্সিটি অব টেক্সাসের নতুন এক গবেষণায় উঠে এসেছে এমন তথ্য।

গবেষণা বলছে, দীর্ঘদিন ধরে অ্যালকোহল গ্রহণ, দেহের রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতায় পরিবর্তন আনে। শরীরে থাকা বিভিন্ন রোগের সংক্রমণের হারও বাড়িয়ে দেয়। এমন একটি রোগ, মাইকো ব্যাকটেরিয়াম টিউবারকিউলোসিস বা এম.টিবি।

পিএলওএস পেথোজেন্স, জার্নালে প্রকাশিত প্রতিবেদন বলছে, একদল ইদুরের ওপর চলে গবেষণাটি। যেখানে অল্প বয়সী ও বয়স্ক দুই প্রজাতির ইদুরকে এক মাস অ্যালকোহল খাওয়ানোর পর শরীরে দেয়া হয়, এমটিবি ভাইরাস।

এতে দেখা গেছে,  এমটিবি আক্রান্ত, কম বয়সী ইদুরের ৮০ শতাংশই ৬ মাসের মধ্যে মারা যায়। অপরদিকে বয়স্ক ইদুরের মৃত্যু হার মাত্র ২৫ শতাংশ।

গবেষণা রিপোর্ট বলছে, অ্যালকোহল সেবনে মানব দেহে আইএফএন প্রোটিনের মাত্রা অতিরিক্ত হারে বেড়ে যায়। যা মাইকো ব্যাকটেরিয়াম টিউবারকিউলোসিস বা এম.টিবি এর সংক্রমণকে সক্রিয় করতে সহায়তা করে।

গবেষনায় মিলেছে সুপ্ত অবস্থায় টিবির সংক্রমণ আছে এমন শরীরে আইএনএফ প্রোটিন উৎপাদনের মাত্রা সবচেয়ে বেশি। ফলে বাড়ে মৃত্যুর ঝুঁকি।

 

সংশ্লিষ্ট সংবাদ

সর্বশেষ সংবাদ

স্বাস্থ্য খবর