channel 24

সর্বশেষ

  • তাজিয়া মিছিলের নিরাপত্তায় সর্বোচ্চ ব্যবস্থা: ডিএমপি কমিশনার

  • কোটা নিয়ে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে পাল্টাপাল্টি মিছিল

  • একুশ আগস্ট গ্রেনেড হামলার বিচার কাজ শেষ; রায় ১০ অক্টোবর

  • ইভিএম কিনতে ৪ হাজার কোটি টাকার প্রকল্প অনুমোদন একনেকে

  • বিএনপি নেতা আমীর খসরুর সম্পদ অনুসন্ধানে দুদকের অভিযান

  • ২০১৭-১৮ অর্থ বছরে জিডিপি প্রবৃদ্ধি ৭.৮৬ শতাংশ: পরিকল্পনামন্ত্রী

ঘুমের ভেতর শ্বাস-প্রশ্বাস নেয়ার কষ্টে ভুগছেন বিশ্বের লাখো মানুষ

ঘুমের ভেতর শ্বাস-প্রশ্বাস নেয়ার কষ্টে ভুগছেন বিশ্বের লাখো মানুষ

ঘুমের ভেতর শ্বাস-প্রশ্বাস নিতে কষ্ট বা স্লিপ অ্যাপনিয়ায় ভুগছেন বিশ্বের প্রায় লাখো মানুষ। যাতে বহুল প্রচলিত চিকিৎসা হলো, 'কন্টিনিউয়াস পজেটিভ এয়ারওয়ে প্রেসার ডিভাইস' বা সিপিএপি। তবে, 'ড্রনাবিনল' নামে একটি ওষুধ আবিষ্কার করেছেন বিজ্ঞানীরা। যা এখন পরীক্ষামূলক পর্যায়ে রয়েছে।

মার্টিন ব্রাউন, স্লিপ অ্যাপনিয়ায় আক্রান্ত ব্যাক্তি। 'সারাদিন আমার ঝিমুনি লাগে। কোনো কাজে আমি মন দিতে পারিনা। সমস্যাটা খুবই ভয়াবহ।' বলছিলেন ৭৬ বছর বয়েসি মার্টিন ব্রাউন। যিনি ১০ বছর ধরে ভুগছেন স্লিপ অ্যাপনিয়ায়। যা এখন তার দুশ্চিন্তার প্রধান কারন।

বিশেষজ্ঞদের মতে, ঘুমের মাঝে গলা ও জিহ্বার মাংসপেশী শিথিল হয়ে সৃষ্ট শ্বাসকষ্টের নাম স্লিপ অ্যাপনিয়া। যেখানে রাতে ঘুমানোর সময় একাধিক বার স্বাভাবিক শ্বাস প্রক্রিয়ায় ব্যঘাত ঘটে। এতে সৃষ্টি হয় নিদ্রাহীনতা। যা বিভিন্ন স্বাস্থ্য সমস্যার মূল কারন।

স্লিপ অ্যাপনিয়া রোগের চিকিৎসায় বহুল প্রচলিত পদ্ধতি হল কন্টিনিউয়াস পজেটিভ এয়ারওয়ে প্রেসার ডিভাইস বা সিপিএপি। যেখানে ঘুমানোর সময় রোগীর নাকে একটি পাইপ লাগানো হয়। যার ফলে শ্বাস নিতে সুবিধা হয় রোগীর। তবে অনেকের কাছেই এই প্রক্রিয়া কষ্টদায়ক।

স্লিপ অ্যাপনিয়ার চিকিৎসার জন্য পরীক্ষামূলক পর্যায়ে রয়েছে ড্রনাবিনল নামের ওষুধ। যা তৈরিতে ব্যবহার হয়েছে গাজার অন্যতম উপাদান টিএইচসি'র। এরইমধ্যে ৭৩ জনের ওপর ওষুধের পরীক্ষা চালায় সিকাগোর ইলিনোয়িস বিশ্ববিদ্যালয়ের গবেষক ডেভিড চারলি।

ইলিনোয়িস বিশ্ববিদ্যালয়ের গবেষক ডেভিড চারলি বলেন, 'স্লিপ অ্যাপনিয়ার চিকিৎসায় ড্রনাবিনল খুবই কার্যকারী। এই ওষুধের ব্যবহারে স্লিপ অ্যাপনিয়ার আক্রমন অন্তত ৩০ শতাংশ কমিয়ে আনা সম্ভব।'    

এছাড়াও রয়েছে ডেন্টাল ডিভাইস, অস্ত্রপচার ও ওজন কমানোর মাধ্যমেও এই রোগের প্রতিকার সম্ভব বলে মনে করেন চিকিৎসকেরা।

সর্বশেষ সংবাদ

স্বাস্থ্য খবর