channel 24

সর্বশেষ

  • তাজিয়া মিছিলের নিরাপত্তায় সর্বোচ্চ ব্যবস্থা: ডিএমপি কমিশনার

  • কোটা নিয়ে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে পাল্টাপাল্টি মিছিল

  • একুশ আগস্ট গ্রেনেড হামলার বিচার কাজ শেষ; রায় ১০ অক্টোবর

  • ইভিএম কিনতে ৪ হাজার কোটি টাকার প্রকল্প অনুমোদন একনেকে

  • বিএনপি নেতা আমীর খসরুর সম্পদ অনুসন্ধানে দুদকের অভিযান

  • ২০১৭-১৮ অর্থ বছরে জিডিপি প্রবৃদ্ধি ৭.৮৬ শতাংশ: পরিকল্পনামন্ত্রী

জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কারের সবোর্চ্চ ৭টি জিতেছে আয়নাবাজি

জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কারের সবোর্চ্চ ৭টি জিতেছে আয়নাবাজি

জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কারের ঝলমলে গল্পেই শুরু করবো আজকের আয়োজন। আয়নাবাজির পাশাপাশি, যে মঞ্চ জুড়ে ছিলো নতুনের জয়ধ্বনী। এবার ২৬টি ক্যাটাগরীতে পুরস্কার প্রাপ্ত ৩২ জনের মধ্যে, ১৮ জনই নতুন। রোববার সন্ধ্যায় বঙ্গবন্ধু আন্তর্জাতিক সম্মেলন কেন্দ্রে, ৪১ তম আসরে সবোর্চ্চ ৭টি পুরস্কার জিতে ভেলকি দেখিয়েছে আয়নাবাজি।

ঝলমলে মঞ্চ ছিলো প্রস্তুত, আর আলোকিত সেই মঞ্চ জুড়েই যেনো ছিলো আয়নাবাজির ভেলকি।
ছবিতে, অনবদ্য অভিনয়ে সেরা অভিনেতার পুরস্কার পান চঞ্চল চৌধুরী। আর সেরা পরিচালকের পুরস্কারটিও গেছে আয়নাবাজি নির্মাতা অমিতাভ রেজার ঝুলিতে।
একই সিনেমার জন্য সম্পাদনায় ইকবাল আহসানুল কবির, চিত্রনাট্যে অনম বিশ্বাস ও গাউসুল আলম, চিত্রগ্রহনে রাশেদ জামান, শব্দগ্রহণে রিপন নাথ ও পোশাক-সাজসজ্জায় ফারজানা সান পেয়েছেন জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কার।
আয়োজনে যৌথভাবে অস্তিত্ব ছবির জন্য নুসরাত ইমরোজ তিশা এবং শঙ্খচিল সিনেমার জন্য কুসুম শিকদার পেয়েছেন শ্রেষ্ঠ অভিনেত্রীর পুরস্কার।
সেরা ছবির পুরস্কার সহ মোট তিনটি পুরস্কার ঘরে তুলেছে অজ্ঞাতনামা। এর মধ্যে সেরা কাহিনীকার তৌকির আহমেদ এবং সেরা খল অভিনেতা শহীদুজ্জামান সেলিম।
পুড়ে যায় মন ছবির জন্য আলীরাজ এবং মেয়েটি এখন কোথায় যাবে সিনেমার জন্য ফজলুর রহমান বাবু যৌথভাবে পেয়েছেন সেরা পার্শ্ব চরিত্রের পুরস্কার। কৃষ্ণপক্ষ ছবির জন্য পার্শ্ব অভিনেত্রীর পুরস্কারটি গেছে তানিয়া আহমদের ঘরে।  এছাড়া, শঙ্খচিল ছবির জন্য, সেরা শিশুশিল্পী হয়েছেন আনুম রহমান খান, আর সেরা শিল্প নির্দেশক উত্তম গুহ।
বর্ষসেরা স্বল্পদৈর্ঘ্য ঘ্রাণ আর প্রামাণ্যচিত্র জন্মসাথী। মেয়েটি এখন কোথায় যাবে ছবির জন্য, শ্রেষ্ঠ সংগীত পরিচালক ও সুরকার ইমন সাহা। একই ছবিতে গান লিখে, পুরস্কার জিতেছেন গাজী মাজহারুল আনোয়ার। দর্পণ বিসর্জন আর কৃষ্ণপক্ষ চলচ্চিত্রে কণ্ঠ দিয়ে সেরা গায়ক-গায়িকার পুরস্কার উঠেছে ওয়াকিল আহমেদ আর মেহের আফরোজ শাওনের হাতে। এছাড়া আন্ডার কন্সট্রাকশন ছবির জন্য সেরা সংলাপের পুরস্কার জিতেছেন রুবাইয়াত হোসেন, আর মেকাপে মানিক। নিয়তি ও আয়নাবাজি ছবির জন্য যৌথভাবে পোশাক ও সাজসজ্জায় পুরস্কার পেয়েছেন সাত্তার ও ফারজানা সান।
৪১তম আসরে বিজয়ীদের হাতে পুরস্কার তুলে দেন প্রধাণমন্ত্রী শেখ হাসিনা। তবে, এর আগে সিনেমার নানা বিষয় নিয়ে কথা বলেন তিনি।
এবারের আসরে ৩২ জনের বিজয়গাঁথায়, ১৮ জনই প্রথমবারের মতো ছুঁয়ে দেখলেন; সিনেমায় রাষ্ট্রিয়ভাবে দেয়া সর্বোচ্চ স্বীকৃতি।

সর্বশেষ সংবাদ

বিনোদন খবর