channel 24

সর্বশেষ

  • বিচারপতিদের শপথ ভিডিও কনফারেন্সিংয়ে; ফুল কোর্ট সভা বাতিল

  • লিবিয়ায় নিহত ২৬ বাংলাদেশির মধ্যে ২৩ জনের পরিচয় মিলেছে

  • 'আদালতের অনুমতি ছাড়া মোরশেদ খানের বিদেশ যাওয়া আইন সিদ্ধ হয়নি'

  • ছেলে সন্তানের বাবা হয়েছেন আশরাফুল

  • শ্বেতাঙ্গ পুলিশের নৃশংসতায় ৯ রাজ্যে বিক্ষোভ; ৪ পুলিশ অফিসার বরখাস্ত

  • মাটিতে পুঁতে রাখার ১১ মাস পর ব্যবসায়ীর মরদেহ উদ্ধার

  • মাঠে গড়ানোর অপেক্ষায় ইংলিশ প্রিমিয়ার লিগ ও সিরি আ

  • সোমবার থেকে চলবে গণপরিবহন, রোববার নৌযান

  • জন্মের মাত্র একদিনের মাথায় প্রাণঘাতী করোনার সাথে যুদ্ধ

  • লিবিয়ায় ২৬ বাংলাদেশিসহ ৩০ জনকে গুলি করে হত্যা, আহত ১১

  • কর্মস্থলে যোগ দিতে চট্টগ্রামে ফিরছে মানুষজন

  • পার্বত্য জেলাগুলোতে সেনাবাহিনীর খাদ্য সহায়তা অব্যাহত

  • করোনা চিকিৎসায় চট্টগ্রামের বেসরকারি হাসপাতালগুলো পুরোপুরি তৎপর নয়

  • কুষ্টিয়ায় করোনা রোগীদের সেবায় একদল স্বেচ্ছাসেবী

  • চট্টগ্রামে নতুন করে ২‘শ ২৯ জন করোনায় আক্রান্ত

প্রেম-দ্রোহ আর ভালোবাসার কবি হেলাল হাফিজ

প্রেম-দ্রোহ আর ভালোবাসার কবি হেলাল হাফিজ

নিজের লেখার মাঝেই খুঁজে পান সময়কে খুঁজে পান দীর্ঘ জীবনের হাতছানি। তাইতো কলম কালিতে লিখেছেন 'এখন যৌবন যার মিছিলে যাবার তার শ্রেষ্ঠ সময় এখন যৌবন যার যুদ্ধে যাবার তার শ্রেষ্ঠ সময়'। নিষিদ্ধ সম্পাদকীয় কবিতার এই দুটো চরণই তাকে চিনিয়ে দেবার জন্য যথেষ্ট। এমন দৃপ্ত সব চরণে যিনি বলেছেন, প্রেম-দ্রোহ আর ভালোবাসার কথকতা। তিনি কবি হেলাল হাফিজ। সোমবার তার ৭১তম জন্মদিন।

কবি হেলাল হাফিজ বিশ্ববিদ্যালয়ের মুক্ত প্রাঙ্গণে বিহঙ্গের জীবন, পরে স্বাধীনতার পটভূমি রচিত হওয়ার অগ্নিগর্ভ সময়ে দ্রোহের স্লোগান হয়ে মিছিলের কণ্ঠে কণ্ঠে ছিলো তার কবিতা। ঢাকা শহরের দেয়ালে দেয়ালে অগ্নিস্ফূলিঙ্গ হয়ে ভেসে উঠেছে তার বিদ্রোহের বানী।

বাল্যকালে বেড়ে ওঠেন মাতৃবিয়োগের বেদনায় নিভৃত জীবন বেছে নিলেও ছাত্রজীবনেই তার কষ্টের পঙ্কতি ঘুরে ফিরেছে ক্যাম্পাসে। যেন হেয়ালির ছলেই পেরিয়েছে জীবনের ৭১টি বসন্ত। তবুও দীর্ঘ জীবনের হাতছানিতে নিজেকে খুঁজে পান তারুণ্যে আঠারোতেই। বয়সটা যেনো শুধুই এক সংখ্যা তার কাছে।

স্বাধীনতার পর যোগ দেন দৈনিক পূর্বদেশ পত্রিকায় সাংবাদিকতা পেশাতেই কাটিয়েছেন লম্বা সময়। ব্যক্তি জীবনের দুঃখবোধের সাথে সাথে প্রথম প্রকাশিত কাব্যগ্রন্থের আকাশচুম্বি খ্যাতির মাঝেই হঠাৎই লোকচক্ষুর আড়াল হন কবি।

বার্ধক্য আর শারীরিক অসুস্থতা এখন কবির নিত্যদিনের সঙ্গী। তবুও মনের প্রেমে এখনও রাঙিয়ে যাচ্ছেন পাঠকমন। শব্দের মালা গেথে যে জাদুকর গেয়ে চলেছেন তারুণ্যের জয়গান, প্রেরণার উৎস হয়ে সৃষ্টিশীলতার মধ্যদিয়ে সমৃদ্ধ করছেন বাংলা সাহিত্যকে। তার জন্মদিনে রইল শুভেচ্ছা।

সংশ্লিষ্ট সংবাদ

সর্বশেষ সংবাদ

বিনোদন খবর