channel 24

সর্বশেষ

  • কমলাপুর স্টেশনে ট্রেনের বগি থেকে নারীর মরদেহ উদ্ধার

  • ২২ তারিখের বৈঠকে বকেয়া বিষয়ে সিদ্ধান্ত: ট্যানার্স অ্যাসোসিয়েশন...

  • পাওনা পরিশোধের নির্দেশনা না এলে...

  • তৈরি হবে অচলাবস্থা: হাইড অ্যান্ড স্কিন মার্চেন্ট অ্যাসোসিয়েশন

  • জাতীয় স্কুল মিল নীতিমালার খসড়া মন্ত্রিসভায় অনুমোদন...

  • প্রাথমিকে মোট ক্যালরির ৩০ ভাগ পূরণ করতে হবে স্কুলকে

  • নকশা জালিয়াতি: বনানীর এফ আর টাওয়ারের মালিক ফারুক গ্রেপ্তার

  • খালেদা জিয়াকে মুক্ত করতে না পেরে বিদেশে নালিশ করছে বিএনপি: সেতুমন্ত্রী

  • ডেঙ্গু: ২৪ ঘণ্টায় হাসপাতালে ভর্তি ১,৬১৫ জন: স্বাস্থ্য অধিদপ্তর

  • ঢাকা, বরিশাল, খুলনা, ফরিদপুর ও ময়মনসিংহে ৬ জনের মৃত্যু

  • বঙ্গবন্ধু হত্যায় জিয়া নয়, আ.লীগের লোকজন জড়িত: ফখরুল

  • জীবনের নিরাপত্তা চেয়ে প্রধানমন্ত্রীর হস্তক্ষেপ কামনা ভিপি নুরের

  • নবম ওয়েজ বোর্ড নিয়ে রাষ্ট্রপক্ষের আবেদনের ওপর আদেশ কাল...

  • সাংবাদিক ছাড়া গণমাধ্যম মালিকদের অস্তিত্ব নেই: আপিল বিভাগ

  • খুলনা উন্নয়ন কর্তৃপক্ষ কার্যালয়ে দুদকের অভিযান চলছে

  • তিন দিনের সফরে রাতে ঢাকায় আসছেন ভারতের পররাষ্ট্রমন্ত্রী

ষাট বছর পর আবার আসছে অপু ট্রেজেডি নিয়ে সিনেমা 'অভিযাত্রিক'

ষাট বছর পর আবার আসছে অপু ট্রেজেডি নিয়ে সিনেমা 'অভিযাত্রিক'

ষাট বছর পর দর্শকের সামনে ফের হাজির হতে চলেছে অপু। সত্যজিৎ রায়ের অপু ট্রাজেডি শেষ করেছিলেন ১৯৫৯ সালের অপুর সংসার ছবিতে। ঠিক সেখান থেকেই শুরু হবে নতুন পথচলা। সিনেমাটির নাম 'অভিযাত্রিক'।

পরিচালক শুভ্রজিৎ মিত্র জানিয়েছেন, অপরাজিত উপন্যাসের শেষ ৪০ ভাগ নিয়ে তৈরি হবে এই 'অভিযাত্রিক'। যেখানে চিত্রনাট্যের বাঁধনে ফিরে আসছে দূর্গা, অপর্ণা, রাণু এমনকি লীলাও।

অপরাজিত উপন্যাসের একটি বড় অংশ জুড়ে রয়েছে লীলা। যদিও ট্রেজেডিতে ছিলো না এই চরিত্রটি। মূলত অপুর জার্নির যে পথ চলাটুকু রয়ে গেছে সেটাই বলবেন পরিচালক। ছবির গল্প নির্বাচন হলেও এখনও চূড়ান্ত নয় নায়িকা-নায়িকা।

ওপার বাংলার চলচ্চিত্রে অভিনয়ে জাহিদ হাসান

পুরনো ছবিতেই প্রেক্ষাগৃহ সচল রাখছেন হল মালিকরা

অভিযাত্রিক ছবির গল্প মূল চরিত্রের ভ্রমণক্ষুধা আর পিতাপুত্রের মধ্যকার সম্পর্ক। অপু আর তার ছয় বছরের ছেলে কাজলকে নিয়েই অভিযাত্রিকের কাহিনী। ৬০ বছর পর কিংবদন্তি চলচ্চিত্রকার সত্যজিতের অপু বড় পর্দায় ফিরছে।

ছবিটির পুরো ধারণ কাজ হবে সাদাকালোয়, ১৯৪০ সালের ভারতকে শিল্পীতরূপে ফুটিয়ে তোলার উদ্দেশ্যেই এ পরিকল্পনা।

ছবির সংগঠক বানদারকার এ রকম একটি উদ্যোগ নিতে পেরে উচ্ছ্বাস প্রকাশ করে বলেন, একজন পরিচালক ও চলচ্চিত্রামুদে হিসেবে বলব, আমি সত্যজিতের একজন বিশাল ভক্ত এবং অপুর ভ্রমণ আমাকে সবসময়ই আকৃষ্ট করেছে। তিনি আরো বলেন, ছবির সহপ্রযোজক গৌরাং জালানকে আমি চিনি এক দশকেরও বেশি সময় ধরে, তাই আমার আশা এটা বিশ্বের সব চলচ্চিত্র দর্শক, সঙ্গে প্রবাসী বাঙালির কাছেও সমাদৃত হবে।

সংশ্লিষ্ট সংবাদ

সর্বশেষ সংবাদ

বিনোদন খবর