channel 24

ব্রেকিং নিউজ

  • রাজধানীর চকবাজারে আগুনে মৃত্যুর মিছিল; নিহত ৭৮...

  • আগুন নিয়ন্ত্রণ কাজের সমাপ্তি ঘোষণা ফায়ার সার্ভিসের...

  • ৩৫ জনের মরদেহ শনাক্ত, চলছে ময়নাতদন্ত ও হস্তান্তর প্রক্রিয়া...

  • রাষ্ট্রপতি আবদুল হামিদ ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার শোক...

  • শোক জানিয়েছেন স্পিকার, এরশাদ, ওবায়দুল কাদের ও ফখরুল...

  • নিহতদের পরিবার ও আহতদের সহযোগিতার নির্দেশ প্রধানমন্ত্রীর...

  • কিছু মরদেহ মুখ দেখে শনাক্ত করা যাবে...

  • বাকিদের ডিএনএ পরীক্ষা: ঢামেক ফরেনসিক প্রধান...

  • আহত অর্ধশতাধিক; হাসপাতালে সর্বোচ্চ সেবা দিতে স্বাস্থ্যমন্ত্রীর নির্দেশ..

  • নিহত ও আহত শ্রমিকদের জন্য আর্থিক সহায়তার ঘোষণা শ্রম মন্ত্রণালয়ের...

  • স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয় ও ফায়ার সার্ভিসের আলাদা তদন্ত কমিটি গঠন...

  • এক সপ্তাহের মধ্যে রিপোর্ট দিতে স্বরাষ্ট্র সচিবের নির্দেশ...

  • ঘটনাস্থলে কেমিক্যালের অবৈধ মজুদ ছিল: বিস্ফোরক অধিদপ্তর...

  • পুরান ঢাকা থেকে কেমিক্যাল গোডাউন সরাতে...

  • নগর কর্তৃপক্ষ দৃঢ়প্রতিজ্ঞ: মেয়র সাঈদ খোকন...

  • ক্ষতিগ্রস্তদের সব ধরনের সহায়তা দেয়া হবে: ওবায়দুল কাদের...

  • সরকারের দায়িত্বহীনতার কারণে প্রাণহানির ঘটনা বাড়ছে: ফখরুল

বিক্রি হয়ে যাচ্ছে রাজ কাপুরের স্বপ্নের আর কে স্টুডিও

বিক্রি হয়ে যাচ্ছে রাজ কাপুরের স্বপ্নের আর কে স্টুডিও

বিক্রি হয়ে যাচ্ছে রাজ কাপুরের স্বপ্নের আর কে স্টুডিও। কাপুর পরিবারের সকলের সম্মতিতেই বিক্রি হয়ে যাচ্ছে চার দশকের পুরনো এই স্টুডিও। রাজ কাপুরের ছেলে তথা জনপ্রিয় অভিনেতা ঋষিকাপুর এই খবরের সত্যতা শিকার করেছন ৷
অভিনয় জগতের সঙ্গে ওতপ্রোত ভাবে জড়িয়ে থাকা রাজ কাপুর ১৯৪৮ সালে  নির্মাণ করেন ‘আর কে স্টুডিও’। অনেক সুপার হিট ছবির শুটিং হয়েছে এই স্টুডিওতে। তৎকালীন বোম্বের চেম্বুর অঞ্চলের এই স্টুডিওর প্রথম ছবি ছিল ‘আগ’ (১৯৪৮)। ‘আওয়ারা’ (১৯৫১), ‘শ্রী ৪২০’ (১৯৫৫), ‘সঙ্গম’ (১৯৬৪), ‘মেরা নাম জোকার’ (১৯৭০), ‘ববি’ (১৯৭৩), ‘রাম তেরি গঙ্গা ময়লি’ (১৯৮৫), ‘হিনা’ (১৯৯১) ইত্যাদি আরো বেশ কিছু ছবি।
গত বছর রিয়্যালিটি শো ‘সুপার ডান্সার’ এর শুটিংয়ের সময়ে আগুন লাগে আর কে স্টুডিওতে। স্টুডিওর বেশ কিছু অমূল্য সম্পদ পুড়ে ছাই হয়ে যায়। পুড়ে যায় ছাই হয় যে অভিনেত্রীরা অভিনয় করেছিলেন তাঁদের পোশাক। নার্গিস, বৈজন্তীমালা থেকে শুরু করে ঐশ্বর্যা রাইদের সেই সব পোশাকের সঙ্গে সঙ্গে তাঁদের গয়নাগাটিও পুড়ে ছাই হয়ে যায়। নষ্ট হয়ে যায় ‘মেরা নাম জোকার’-এর সেই মুখোশ, ‘জিস দেশ মে গঙ্গা বহতি হ্যয়’-এর সেই বন্দুক। ‘আওয়ারা’, ‘সঙ্গম’, ‘ববি’ এই সব ছবিতে ব্যবহৃত সেই বিরাট পিয়ানো প্রায় শেষ হয়ে যায়।
ঋষি কাপুর ও তাঁর পরিবার নিশ্চিত করেছেন এই ঐতিহ্যবাহী স্টুডিওটি পুনরায় আগের রূপে ফিরিয়ে নিতে গেলে প্রচুর অর্থ ব্যায় করতে হবে ৷ তাও এই বিষয়ে সন্দেহ আছে ধ্বংস্তুপ থেকে উদ্ধার করে আগের মত অবস্থায় ফিরিয়ে নিয়ে যাওয়া কতখানি সম্ভব সেই বিষয়ে। তবে কবে বিক্রি হচ্ছে আর কে স্টুডিয়ো সে বিষয়টা খোলসা করেননি ঋষি কপূর। হতে পারে দু’দিন, দু’মাস। হয়তো বা দু’বছরও লেগে যেতে পারে এই স্টুডিও বিক্রি হতে, জানিয়েছেন ঋষি।

সংশ্লিষ্ট সংবাদ

সর্বশেষ সংবাদ

বিনোদন খবর