channel 24

সর্বশেষ

  • সমৃদ্ধির অগ্রযাত্রায় বাংলাদেশ স্লোগানে...

  • আওয়ামী লীগের ইশতেহারে ২১ দফা অঙ্গীকার...

  • অতীতের ভুলভ্রান্তি ক্ষমাসুন্দর দৃষ্টিতে দেখার অনুরোধ প্রধানমন্ত্রীর

  • বিএনপির নির্বাচনি ইশতেহার ঘোষণা করলেন মির্জা ফখরুল...

  • জাতীয় সংসদে উচ্চকক্ষ প্রতিষ্ঠার পাশাপাশি...

  • রাষ্ট্রপতি ও প্রধানমন্ত্রীর ক্ষমতায় ভারসাম্য আনাসহ ১৯ প্রতিশ্রুতি

  • নির্বাচনে অংশ নিতে পারছেন না খালেদা জিয়া...

  • প্রার্থিতা বাতিলের বিরুদ্ধে রিট তৃতীয় বেঞ্চেও খারিজ

  • জামায়াতের ২২ নেতার প্রার্থিতা বাতিলে হাইকোর্টের রুল...

  • তিন কার্যদিবসের মধ্যে নিষ্পত্তি করতে ইসিকে নির্দেশ

প্রথম দিনে প্রার্থিতা ফিরে পেলেন যারা

প্রথম দিনে প্রার্থিতা ফিরে পেলেন যারা

একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে মনোনয়নপত্র বাতিল হওয়া প্রার্থীদের আপিল শুনানি শুরু হয়েছে।

বৃহস্পতিবার (৬ ডিসেম্বর) সকাল ১০টায় নির্বাচন কমিশনের (ইসি) অস্থায়ী এজলাসে প্রধান নির্বাচন কমিশনার (সিইসি) কে এম নূরুল হুদার নেতৃত্বে এ শুনানি শুরু হয়।

চাঁপাইনবাবগঞ্জ-১ আসনের স্বতন্ত্র প্রার্থী মো. শামসুল হুদার আবেদনের শুনানির মাধ্যমে কমিশন এ কার্যক্রম শুরু করে।

মনোনয়নপত্র বাতিলের বিরুদ্ধে মোট ৫৪৩ জন আপিল করেছে। বুধবার (৫ ডিসেম্বর) শেষদিনে ২২২টি আপিল জমা পড়েছে। এর আগে, সোমবার ৮৪টি ও মঙ্গলবার ২৩৭টি আবেদন পড়ে।

আপিল শুনানির প্রথম দিনের শুরুতেই প্রার্থিতা ফিরে পেয়েছেন বগুড়া-৭ আসনে বিএনপির প্রার্থী মোর্শেদ মিল্টন, ঢাকা-২০ আসনে ধামরাই উপজেলা বিএনপির সভাপতি মো. তমিজ উদ্দিন, ঢাকা-১ আসনে বিএনপি প্রার্থী খন্দকার আবু আশফাক, কিশোরগঞ্জ-২ আসনে বিএনপির প্রার্থী মেজর (অব.) আখতারুজ্জামান, পটুয়াখালী-৩ আসনে বিএনপি প্রার্থী গোলাম মাওলা রনি, ঝিনাইদহ-২ আসনে বিএনপি প্রার্থী আব্দুল মজিদ, জামালপুর-৪ আসনে ফরিদুল কবির তালুকদার শামীম।

পটুয়াখালী-৩ আসনে মোহম্মদ শাহজাহান, পটুয়াখালী-১ আসনে মো. সুমন সন্যামত, মাদারীপুর-১ আসনে জহিরুল ইসলাম মিন্টু, সিলেট-৩ আসনে আবদুল কাইয়ুম চৌধুরী, জয়পুরহাট-১ আসনে ফজলুর রহমান, পাবনা-৩ আসনে হাসাদুল ইসলাম, মানিকগঞ্জ-২ আসনে আবিদুর রহমান খান, সিরাজগঞ্জ-৩ আসনে আয়নাল হক, গাজীপুর-২ আসনে মাহবুব আলম, গাজীপুর-২ আসনে জয়নাল আবেদীন, ব্রাহ্মণবাড়িয়া-৬ আসনে জেসমিন নূর বেবী, রংপুর-৪ আসনে মোস্তফা সেলিম, খুলনা-৬ আসনে এস এম শফিকুল আলম, হবিগঞ্জ-১ আসনে জুবায়ের আহমেদ।

ময়মনসিংহ-৭ আসনে জয়নাল আবেদীন, ব্রাহ্মণবাড়িয়া-৩ আসনে আবদুল্লাহ আল হেলাল, ঝিনাইদহ-৩ আসনে কামরুজ্জামান স্বাধীন, কুমিল্লা-৩ আসনে কে এম মুজিবুল হক, মানিকগঞ্জ-১ আসনে মো. তোজাম্মেল হক, সিলেট-৫ আসনে ফয়জুল মুনীর চৌধুরী, ময়মনসিংহ-৩ আসনে আহাম্মদ তায়েবুর রহমান, ঝিনাইদহ-৪ আসনে আব্দুল মান্নান, ব্রাহ্মণবাড়িয়া-৩ আসনে সৈয়দ আনোয়ার আহাম্মদ লিটন, ব্রাহ্মণবাড়িয়া-৫ আসনে মামুনুর রশিদ, ব্রাহ্মণবাড়িয়া-২ আসনে আবু আসিফ, ঢাকা-১৪ আসনে জাকির হোসেন ও ময়মনসিংহ-২ আসনে মো. আবু বকর সিদ্দিক প্রার্থিতা ফিরে পেয়েছেন।

শেরপুর-২ আসনে এ কে মুখলেসুর রহমান, হবিগঞ্জ-৪ আসনে মাওলানা মোহাম্মদ সোলায়মান খান রাব্বানী, নাটোর-৪ আসনে আলাউদ্দিন মৃধা, কুড়িগ্রাম-৪ আসনে মো. ইউনুছ আলী, বরিশাল-২ আসনে আনিছুজ্জামান, ঢাকা-৫ আসনে সেলিম ভূঁইয়া, পঞ্চগড়-২ আসনে মো. ফরহাদ হোসেন, মানিকগঞ্জ-৩ আসনে মো. আতাউর রহমান, ময়মনসিংহ-৮ আসনে এম এ বাশার, ঢাকা-১৪ আসনে সৈয়দ আবু বকর সিদ্দিক, কুড়িগ্রাম-৩ আসনে আব্দুল খালেক, কুড়িগ্রাম-৪ আসনে মো. মাহফুজার রহমান।

চট্টগ্রাম-১ আসনে নূরুল আমিন, ব্রাহ্মণবাড়িয়া-২ আসনে মুখলেসুর রহমান, লক্ষ্মীপুর-১ আসনে মো. মাহবুব আলম, কুমিল্লা-৫ আসনে মো. ইউনুছ, চাঁদপুর-৫ আসনে মো. নেয়ামুল বশির, বরিশাল-২ আসনে মোয়াজ্জেম হোসেন, চট্টগ্রাম-৩ আসনে মোস্তফা কামাল পাশা, রংপুর-১ আসনে মো. আসাদুজ্জামান, গাইবান্ধা-৩ আসনে মো. আবু জাফর, কুড়িগ্রাম-৪ আসনে শাহ আলম, গাইবান্ধা-৩ আসনে মো. রফিকুল ইসলাম, গাইবান্ধা-৫ আসনে মো. নাজিবুল ইসলাম (শর্ত সাপেক্ষে), যশোর-৬ আসনে সাইদুজ্জামান, নড়াইল-২ আসনে ফকির শওকত আলি।

নাটোর-৪ আসনে আব্দুল আজিজ, সিরাজগঞ্জ-৬ আসনে এম এ মুহিত, সিরাজগঞ্জ-৪ আসনে আব্দুর রহমান, সিরাজগঞ্জ-৫ আসনে মেজর (অব.) মনজুর কাদের, বগুড়া-৫ আসনে মো. আব্দুর রউফ মণ্ডল জন, সিরাজগঞ্জ-৬ আসনে মো. হাবিবুর রহমান, বগুড়া-২ আসনে শফিকুল ইসলাম, বগুড়া-৬ আসনে মোহাম্মদ ফয়সাল বিন, রাজশাহী-১ আসনে মো. আমিনুল হক, দিনাজপুর-১ আসনে মোহাম্মদ হানিফ, গাইবান্ধা- ৩ আসনে আমিনুল ইসলাম, চট্টগ্রাম-৮ আসনে এরশাদ উল্লাহ, চট্টগ্রাম-১০ আসনে মো. আনিছুর রহমান, গাইবান্ধা-৪ আসনে আব্দুর রহিম সরকার, কুমিল্লা-১১ আসনে মো. তাজুল ইসলাম, চট্টগ্রাম-১৬ আসনে মোহাম্মদ জহিরুল ইসলাম, চট্টগ্রাম-৯ আসনে মোহাম্মদ দুলাল খান ও ঝিনাইদহ-৩ আসনে মো. কামরুজ্জামান স্বাধীন।

আজ তালিকায় থাকা ১ থেকে ১৬০ জন মনোনয়ন প্রার্থীর আপিল নিষ্পত্তি করা হবে।

শুক্রবার ১৬১ থেকে ৩১০ এবং শনিবার ৩১১ থেকে ৫৪৩ পর্যন্ত বাতিল হওয়া মনোনয়নের আপিল নিষ্পত্তি করা হবে।

প্রার্থিতা ফিরে পেতে গেলো তিন দিন আপিলের জন্য নির্বাচন কমিশনে ভিড় করেন বিভিন্ন দলের প্রার্থীরা।

৯ ডিসেম্বর প্রার্থিতা প্রত্যাহারের শেষ দিন। আর প্রতীক বরাদ্দ দেয়া হবে ১০ ডিসেম্বর।

সংশ্লিষ্ট সংবাদ

সর্বশেষ সংবাদ

একাদশ জাতীয় নির্বাচন খবর