channel 24

সর্বশেষ

  • লেভেল প্লেয়িং ফিল্ড তৈরির দায়িত্ব ইসির: ওবায়দুল কাদের...

  • ভালো প্রার্থী পেলে মহাজোটের অন্য দলকে আসন ছাড়বে আ.লীগ

  • মুক্তিযুদ্ধের শক্তি ঐক্যবদ্ধ, বিজয় সুনিশ্চিত: নাসিম

  • বর্তমান সরকারের ক্ষমতায় থাকা অসাংবিধানিক: ড. কামাল

  • সরকার ইচ্ছামতো বিচার ব্যবস্থা নিয়ন্ত্রণ করছে: ফখরুল

  • নির্বাচন বানচালের চেষ্টা করলে জাতি তাদের ক্ষমা করবে না: বি. চৌধুরী

  • প্রশ্নবিদ্ধ নির্বাচন চায় না ইসি, নিরপেক্ষতার প্রশ্নে ছাড় নয়: কমিশনার শাহাদাত

  • কাল শুরু পিইসি ও ইবতেদায়ি পরীক্ষা; থাকছে না এমসিকিউ

জয়পুরহাটের দুটি আসনই ধরে রাখতে চায় আ.লীগ

জয়পুরহাটের দুটি আসনই ধরে রাখতে চায় আ.লীগ

একাদশ জাতীয় নির্বাচন ঘিরে জয়পুরহাটে ব্যস্ততা বেড়েছে রাজনৈতিক দলের নেতা-কর্মীদের। জেলার দুটি আসনই ধরে রাখতে চায় আওয়ামী লীগ। বিএনপির প্রত্যাশা হারানো আসন পুনরুদ্ধার হবে সুষ্ঠু নির্বাচন হলে। অন্যদিকে বড় দু-দলেরই অভ্যন্তরীণ কোন্দলের সুযোগ নিতে চায়, মহাজোটের শরীক দল জাতীয় পার্টি। তবে ভোটাররা চাইছেন সুষ্ঠ নির্বাচনী পরিবেশ আর এলাকার উন্নয়ন।

উত্তরের সীমান্ত ঘেঁষা জেলা জয়পুরহাট। কৃষি প্রধান জেলা হিসেবে পরিচিত এ জেলায় লতি রাজ কচু আর সোনালী মোরগীর খামার জয়পুরহাটের মানুষের ভাগ্যন্নোয়নে রেখেছে বড় ভূমিকা। যার খ্যাতি ছড়িয়েছে সারা দেশে।

৯ শ ৬৫ বর্গকিলোমিটার আয়তনের জয়পুরহাট জেলায় উপজেলায় ৫ টি। সংসদীয় আসন ২ টি। মোট ভোটার ৭ লাখ ৬ হাজার। এরমধ্যে পুরুষ ও নারী ভোটার প্রায় সমান। নতুন ভোটার যোগ হয়েছে ৬৬ হাজার।

একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচন ঘিরে মাঠে নেমেছেন রাজনৈতিক দলগুলোর মনোনয়ন প্রত্যাশিরা। জেলার দুটি আসনেই আওয়ামী লীগ থেকে মনোনয়ন প্রত্যাশি একাধিক। মাঠে আছে জাতীয় পার্টিও।

বিএনপি শক্তিশালী ঘাটি হিসেবে পরিচিতি থাকলেও কেন্দ্রের নির্দেশনার অপেক্ষায় স্থানীয় নেতাকার্মীরা। তাদের দাবি, অতীতের অভিজ্ঞতায় সংসদ নির্বাচনে জয়পুরহাটে বিএনপির কোন প্রস্তুতি লাগে না।

একাদশ জাতীয় নির্বাচন ঘিরে সবখানেই চলছে চুলচেরা বিশ্লেষণ। আগ্রহের কমতি নেই ভোটারদের মাঝেও।

জাতীয় রাজনীতিতে সংলাপ ও সমঝোতার হাওায় কিছুটা স্বস্থিতে আছেন তৃণমূলের নেতাকর্মীরাও।

সংশ্লিষ্ট সংবাদ

সর্বশেষ সংবাদ

একাদশ জাতীয় নির্বাচন খবর