channel 24

ব্রেকিং নিউজ

  • ব্রাহ্মণবাড়িয়ার মন্দবাগে তূর্ণা নিশীথা ও উদয়ন এক্সপ্রেসের সংঘর্ষে...

  • নিহত অন্তত ১৬; রাষ্ট্রপতি ও প্রধানমন্ত্রীর শোক...

  • ৫ জনের পরিচয় নিশ্চিত; একজন হবিগঞ্জ জেলা ছাত্রদল সহসভাপতি...

  • রেল চালকদের আরও উন্নত প্রশিক্ষণ প্রয়োজন: প্রধানমন্ত্রী...

  • নিহতদের পরিবারকে ১ লাখ ও আহতদের ১০ হাজার টাকা ক্ষতিপূরণ: রেলমন্ত্রী...

  • তূর্ণা নিশীথা ট্রেন সিগন্যাল অমান্য করে: প্রত্যক্ষদর্শীদের অভিযোগ...

  • তদন্তে ৫টি কমিটি; তূর্ণা নিশীথার ২ সহকারী পরিচালক সাময়িক বরখাস্ত...

  • কুমিল্লা মেডিকেলসহ আশপাশের হাসপাতালে আহতদের চিকিৎসা চলছে...

  • প্রায় ৮ ঘণ্টা পর রেল যোগাযোগ স্বাভাবিক

কড়া নজরদারি আর জেল-জরিমানার পরও থেমে নেই ইলিশ ধরা

কড়া নজরদারি আর জেল-জরিমানার পরও থেমে নেই ইলিশ ধরা

প্রশাসনের কড়া নজরদারি আর জেল-জরিমানার পরও থামছে না নিষিদ্ধ মৌসুমে ইলিশ শিকার। রাত নামলেই মাদারীপুরের শিবচর, শরীয়তপুরের জাজিরা, মুন্সিগঞ্জের লৌহজং, ঢাকার দোহার, ফরিদপুরের সদরপুর অংশের পদ্মা নদীতে চলে ইলিশ ধরার উৎসব। আর এই মাছ চরের কাশবনে রেখেই মোবাইল ফোনে যোগাযোগ করে বিক্রি করা হয় নদীপাড়ের বাজারে।

রাতের নিরবতা ভেঙে স্পিডবোট আর ট্রলারে প্রশাসনের এই অভিযান পদ্মার বুকে। ধরা পড়ছে মাছবোঝাই একের পর এক নৌকা।

জেলেরদের প্রতিটি জালেই ছিল মা ইলিশ ও জাটকা। অনেকে নৌকা ও জাল ফেলেই পালিয়ে যান। আটক করা হয় কয়েকজনকে। জিজ্ঞাসাবাদে বের হয়ে আসে প্রজনন মৌসুমে ইলিশ ধরার কৌশল।

প্রশাসন বলছে, দিনের বেলায় কড়াকড়ি থাকায় সন্ধার পর থেকে ভোর রাত পর্যন্ত ইলিশ ধরেন জেলেরা। এ সময় নৌকা ও ট্রলারে কোনো বাতি ব্যবহার করা হয় না। আর যেসব মাছ ধরা পড়ে তা বিক্রি করা হয় নদীর চরে কাশবনে। ক্রেতাদের সাথে যোগাযোগ করা হয় মোবাইল ফোনে।

মাদারীপুর জেলা নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট মো. আল নোমান বলেন, অভিযোগের বিষয়টি সত্য, আমরা এসে দেখলাম তাই, একটা বাজারের মতন অবস্থা ছিল, প্রচুর ক্রেতা-বিক্রেতা এবং সারা নদী থেকে মাছ ধরে এনে তারা এখানে বিক্রি করে থাকে।

শিবচর উপজেলা মৎস্য কর্মকর্তা এটিএম শামসুজ্জামান বলেন, চুরির মতো করে জেলেরা মাছ ধরার প্রবনতায় লিপ্ত এবং আমরাও রাতের অভিযানটা বৃদ্ধি করেছি। ক্রেতারা বলছেন, তারা সারা ব্ছরই কম দামে ইলিশ খেতে চান। এজন্য মা ইলিশ রক্ষার বিকল্প নেই।
 
মা ও জাটকা ইলিশ সংরক্ষণে শুধু নিয়মিত অভিযান নয়, বরং এই সময়ে জেলেরা যাতে খেয়েপড়ে বেঁচে থাকতে পারেন, সেজন্য সরকারি সহায়তা প্রকৃত জেলেদের কাছে পৌঁছে দেয়ার দাবি জানিয়েছেন মাদারীপুরের সাধারণ মানুষ।

 

সংশ্লিষ্ট সংবাদ

সর্বশেষ সংবাদ

দেশ 24 খবর