channel 24

সর্বশেষ

  • চ্যানেল 24 এ সংবাদ প্রচারের পর ৩০ বছর আগের...

  • সগিরা মোর্শেদ হত্যা মামলার তদন্তে নতুন মোড়...

  • তার স্বামীর বড় ভাই ও ভাবিসহ গ্রেপ্তার ৪, আদালতে স্বীকারোক্তি...

  • ভিকারুননিসা নূন স্কুল থেকে মেয়েকে আনতে গিয়ে খুন হন তিনি...

  • ছিনতাইকারীর হাতে এ হত্যাকাণ্ড বলে সেই সময় প্রচার হয় গণমাধ্যমে

  • প্রথমবারের মতো আয়কর মেলায় প্রধানমন্ত্রীর পক্ষে...

  • রিটার্ন দাখিল ও কর পরিশোধ করেছেন তার প্রতিনিধি

  • কলকাতায় খেলা দেখতে প্রধানমন্ত্রীকে মোদির আনুষ্ঠানিক আমন্ত্রণ...

  • প্রবাসী নারী শ্রমিক নির্যাতন বন্ধে উদ্যোগ নেয়া হয়েছে: পররাষ্ট্রমন্ত্রী

  • সিরাজগঞ্জের উল্লাপাড়ায় রংপুর এক্সপ্রেসের ৯টি বগি লাইনচ্যুত...

  • ৩টি বগিতে আগুন, ঢাকার সাথে উত্তর ও দক্ষিণের যোগাযোগ বন্ধ...

  • আগুন নিয়ন্ত্রণে, কোনো হতাহত নেই: রেলসচিব

  • ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় সংঘর্ষের আগে তূর্ণার গতি ছিল ঘণ্টায় ২০ কি.মি...

  • চালক ওভার ডিউটি করেনি: রেলমন্ত্রী

  • দেশীয় ও আন্তর্জাতিক আইন ভঙ্গ করে চলছে জাহাজভাঙা শিল্প: হাইকোর্ট

  • সাগর-রুনি হত্যা: আগামী বছরের ৪ মার্চের মধ্যে..

  • হাইকোর্টে অগ্রগতি রিপোর্ট দাখিলের নির্দেশ

  • ইন্দোর টেস্ট: প্রথম দিন প্রথম ইনিংসে ব্যাট করছে ভারত...

  • স্কোর: বাংলাদেশ ১৫০ (মুশফিক ৪৩, শামি ৩/২৭)

সাঁথিয়া উপজেলা শিক্ষা অফিসার ও উচ্চমান সহকারীর বিরুদ্ধে ঘুষ বাণিজ্যের অভিযোগ

সাঁথিয়া উপজেলা শিক্ষা অফিসার ও উচ্চমান সহকারীর বিরুদ্ধে ঘুষ বাণিজ্যের অভিযোগ

ঘুষ বাণিজ্যের অভিযোগ উঠেছে পাবনার সাঁথিয়া উপজেলা শিক্ষা অফিসার মর্জিনা পারভীন ও উচ্চমান সহকারি গোলজার হোসেনের বিরুদ্ধে। সম্প্রতি গোলজার হোসেনের ঘুষ গ্রহনের একটি ভিডিও সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ছড়িয়ে পড়লে জেলায় তোলপাড় সৃষ্টি হয়। জেলা শিক্ষা কর্মকর্তা বলছেন, কারণ দর্শানোর নোটিশ দেয়া হয়েছে, জবাব পেলে নেয়া হবে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা।

সম্প্রতি পাবনা সাঁথিয়া উপজেলা শিক্ষা অফিসের উচ্চমান সহকারি কাম হিসাবরক্ষক গোলজার হোসেনের ঘুষ নেয়ার এই ভিডিও ছড়িয়ে পড়ে ফেসবুকে। সৃষ্টি হয় তোলপাড়।

অভিযোগ রয়েছে, উপজেলা শিক্ষা অফিসার মর্জিনা পারভীনের নির্দেশেই ঘুষ নেন গোলজার হোসেন। উপজেলার ১৭৫টি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের মধ্যে যারা ঘুষের টাকা দিয়েছেন, কেবল তারাই পেয়েছেন স্কুলভিত্তিক উন্নয়ন পরিকল্পনা বা স্লিপ প্রকল্পে বরাদ্দের চেক।

যদিও এই অভিযোগ অস্বীকার করেছেন, শিক্ষা অফিসার মর্জিনা পারভীন ও উচ্চমান সহকারি গোলজার হোসেন। বলছেন, তারা ষড়যন্ত্রের শিকার।

জেলা শিক্ষা কর্মকর্তা বলছেন, অভিযোগ পেয়ে দু'জনকেই কারণ দর্শানোর নোটিশ দেয়া হয়েছে, জবাব পেলে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেয়া হবে।

পাবনা সাঁথিয়া উপজেলায়, প্রাথমিক বিদ্যালয়ের ক্যাটাগরি অনুযায়ী স্লিপ প্রকল্পের বরাদ্দ এসেছে ৫০ হাজার থেকে ১ লাখ টাকা পর্যন্ত।

সংশ্লিষ্ট সংবাদ

সর্বশেষ সংবাদ

দেশ 24 খবর