channel 24

সর্বশেষ

  • জিততে না পারলেও সন্তুষ্ট কোচ, শেষ মুহূর্তে গোলে হতাশ জামাল

  • ভৈরবে এক কোটি টাকার কারেন্ট জালসহ আটক ৩

  • ফেনীর সোনাগাজীতে বন্দুকযুদ্ধে নিহত ১

  • ৩ দিন ধরে বন্ধ শিমুলিয়া-কাঁঠালবাড়ি নৌরুটে ফেরি চলাচল

  • লালন ফকিরের ১২৯ তম তিরোধান দিবস আজ

  • ২০২০ সালে সম্ভাব্য বৈশ্বিক প্রবৃদ্ধি ৩ দশমিক ৪ শতাংশ: আইএমএফ

  • এগিয়ে থেকেও ভারতের সঙ্গে ড্র করলো বাংলাদেশ

  • কাশ্মীরের সাবেক মুখ্যমন্ত্রী আব্দুল্লাহর দুই মেয়ে ও বোন আটক

  • বুয়েট ক্যাম্পাস জুড়ে রঙিন গ্রাফিতি যেন পথচারীদের ডেকে বলছে আর কতো, এবার থামো

  • সরকার দলীয় এমপি শামসুল ও শাওনের বিরুদ্ধে দুদকের অনুসন্ধান শুরু

  • পাবিপ্রবি'তে ইটিই বিভাগকে ট্রিপল-ই রূপান্তর দাবিতে আন্দোলন

  • কয়লা দুর্নীতি: বড়পুকুরিয়ার সাবেক ৭ এমডিসহ ২৩ জনের বিরুদ্ধে গ্রেপ্তারি পরোয়ানা

  • রূপপুর বালিশকাণ্ড: গণপূর্তের ১৬ কর্মকর্তা সাময়িক বরখাস্ত

  • মুসলিম বান্ধব পর্যটনের জন্য প্রয়োজনীয় সব উপাদান দেশে আছে: পর্যটন প্রতিমন্ত্রী

  • মনপুরায় আলাউদ্দিন মোল্লা হত্যাকারীদের ফাঁসির দাবিতে বিক্ষোভ

মেহেদি দিতে গিয়ে গণধর্ষণ: ২ ধর্ষক 'বন্দুকযুদ্ধে' নিহত

মেহেদি দিতে গিয়ে গণধর্ষণ: ২ ধর্ষক 'বন্দুকযুদ্ধে' নিহত

ঈদের আগের রাতে মেহেদি দিয়ে হাত রাঙাতে গিয়ে গণধর্ষণের শিকার ষষ্ঠ শ্রেণির ছাত্রীর দুই ধর্ষক পুলিশের সঙ্গে 'বন্দুকযুদ্ধে' নিহত হয়েছেন। ভোলা সদর উপজেলায় মঙ্গলবার রাত আড়াইটার দিকে পুলিশের সঙ্গে এ 'বন্দুকযুদ্ধের' ঘটনা ঘটে।

'বন্দুকযুদ্ধে' নিহত দুই ব্যক্তি স্কুলছাত্রী গণধর্ষণ মামলার প্রধান দুই আসামি ছিলেন। নিহতরা হলো- সদর উপজেলার চরসামাইয়া ইউনিয়নের আল আমিন (২৫) ও মঞ্জুর আলম (৩০)।

পুলিশ জানায়, মঙ্গলবার রাত আড়াইটার দিকে রাজাপুর ইউনিয়নের ৪নং ওয়ার্ডের দক্ষিণ রাজাপুর এলাকায় স্কুলছাত্রী গণধর্ষণ মামলার আসামিদের ধরতে গেলে পুলিশকে লক্ষ্য করে গুলি ছোড়ে। এ সময় আত্মরক্ষার্থে পাল্টা গুলি ছোড়ে পুলিশ। এতে গণধর্ষণ মামলার প্রধান দুই আসামি নিহত হয়েছেন। নিহত দুই ব্যক্তি চরসামাইয়া এলাকার স্কুলছাত্রী গণধর্ষণ মামলার আসামি আল আমিন ও মঞ্জুর আলম। নিহতদের মরদেহ ভোলা সদর হাসপাতালে রয়েছে।

প্রসঙ্গত, সদর উপজেলার উপজেলার চরসামাইয়া ইউনিয়নের ৩নং ওয়ার্ডের চরসিফলি গ্রামের এক কৃষক ঈদ উপলক্ষে তার দুই মেয়ের জন্য বাজার থেকে মেহেদি কিনে আনেন।

রোববার (১১ আগস্ট) সন্ধ্যার দিকে তাদের বাবা গরু বিক্রি করার টাকা আনতে ভোলা শহরে যান। বাবা শহরে চলে যাওয়ার পর দুই বোন রাত ৮টার দিকে প্রতিবেশী মাহফুজের স্ত্রীর কাছে হাতে মেহেদি দিয়ে সাজতে যায়। ওই সময় আগে থেকে অপেক্ষমাণ মাহফুজের ঘরের ভাড়াটিয়া আল আমিন ষষ্ঠ শ্রেণিতে পড়ুয়া স্কুলছাত্রীকে ডেকে তার ঘরে নিয়ে যায়। এ সময় আলমিনের স্ত্রী ঘরে ছিল না। এ সুযোগে ওই ছাত্রীকে আলামিন ও তার সহযোগী মঞ্জুর আলম হাত-পা ও মুখে কাপড় বেঁধে ধর্ষণ করে পালিয়ে যায়।

পরে ছাত্রীর চিৎকারে স্থানীয়দের সহযোগিতায় তাকে উদ্ধার করে মুমূর্ষু অবস্থায় ভোলা সদর হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। পরে ওই ছাত্রীকে সোমবার ঈদের দিন বরিশালের শের-ই-বাংলা চিকিৎসা মহাবিদ্যালয় ( শেবাচিম) হাসপাতালে পাঠানো হয়।

JEWEL commented 1 days ago
আলহামদুলিল্লাহ
Shuvo commented 1 days ago
Well done BangladeshPolice

সংশ্লিষ্ট সংবাদ

সর্বশেষ সংবাদ

দেশ 24 খবর