channel 24

সর্বশেষ

  • ৩০ মে'র পর বাড়ছে না সাধারণ ছুটি

  • এক্সিম ব্যাংকের এমডিকে হত্যাচেষ্টা, জানেনা কেন্দ্রীয় ব্যাংক

  • ঈদে থানায় প্রীতি ভোজ: সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে সমালোচনার ঝড়

  • ডলফিনের সবচেয়ে বড় বিচরণক্ষেত্র হালদা নদীই যেন এখন মৃত্যুকুপ

  • করোনায় দেশে আরও ২২ জনের মৃত্যু, নতুন শনাক্ত ১৫৪১

  • শুরু থেকে লকডাউন দিলে পরিস্থিতি এতোটা ভয়োবহ হতো না: ফখরুল

  • তামিম ইকবালের সাথে একান্ত আলাপচারিতায় চ্যানেল ২৪

  • আম্পানে বাঁধ ভেঙ্গে ভেসে গেছে ৪ হাজারেরও বেশি চিংড়ি ঘের

  • মুন্সিগঞ্জে নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে মাইক্রোবাস খাদে পড়ে নিহত ৩

  • কৃষি বিজ্ঞানী ও কর্মকর্তাদের প্রণোদনার কথা ভাবছেন কৃষিমন্ত্রী

  • দিনাজপুরে বিষাক্ত মদপানে ৪ জনের মৃত্যু, অসুস্থ ১

  • ঝড়-বৃষ্টিতে রাজধানীর বেশ কিছু স্থানে গাছ উপড়ে পড়ে যান চলাচল বন্ধ

  • করোনায় থমকে গেছে কমিউনিটি সেন্টার ও কনভেনশন হলের ব্যবসা

  • করোনা মহামারীর নতুন কেন্দ্র: পেলে, রোনালদো, নেইমারদের দেশ ব্রাজিল

  • নিজের আইনজীবীর কাছে মামলার ভবিষ্যত জানতে চান খালেদা জিয়া

পানির দামে চামড়া কিনছেন আড়তদাররা, ক্ষতির মুখে মৌসুমী ব্যবসায়ীরা

পানির দামে চামড়া কিনছেন আড়তদাররা, ক্ষতির মুখে মৌসুমী ব্যবসায়ীরা

এবার আড়তে নয়, চট্টগ্রামে কাঁচা চামড়ার একটি বড় অংশের জায়গা হয়েছে করপোরেশনের ভাগাড়ে। পানির দরেও চামড়া কিনছেন না আড়তদাররা। এতে ক্ষতির মুখে পড়েছেন মৌসুমী ব্যবসায়ীরা। যদিও পুঁজি সংকটের অজুহাত আড়তদারদের। এছাড়া, নাটোর, যশোরসহ বিভিন্ন স্থানেও চামড়ার বাজারে ধস নেমেছে।

বিক্রি হয়নি, তাই রাস্তায় চামড়া ফেলে গেছেন ব্যবসায়ীরা। আগ্রাবাদের চৌমুহনীতে শত শত কোরবানির পশুর চামড়া, বর্জ্য হিসেবে অপসারণ করেছে, চট্টগ্রাম সিটি করপোরেশনের পরিচ্ছন্নতা কর্মীরা।

প্রতিবছর কোরবানির পরপরই এই বাজার থেকে চামড়া সংগ্রহ করেন আড়তদাররা। কিন্তু এবারের চিত্র ভিন্ন। যা আগে কখনো দেখেননি ব্যবসায়িরা। লাভ তো দূরের কথা, কম মূল্যে বিক্রি করে কেউ কেউ পুঁজি তোলার চেষ্টা করলেও অনেকের পুঁজিই জলে গেছে।

আড়তদারদের দাবি, ঢাকার ট্যানারি মালিকরা কয়েক বছরের পাওনা টাকা পরিশোধ না করায়, পুঁজি সংকটে ব্যবসায় করতে পারেননি তারা। যারা নতুন করে বিনিয়োগ করে চামড়া সংগ্রহ করেছেন, শঙ্কায় আছেন তারাও।

কাঁচা চামড়ার অন্যতম বড় আড়ৎ নাটোরের চকবৈদ্যনাথ। উত্তরের কয়েক জেলা থেকে বিক্রি করতে আসা ব্যবসায়ীদের মূল অভিযোগ দরদাম নিয়ে। তারা বলছেন, আড়তদারদের সিন্ডিকেটের কারণে পানির দামে চামড়া দিতে হচ্ছে তাদের।

লাভের আশায় সাভারের ট্যানারি পল্লিতে গরু-ছাগলের চামড়া নিয়ে এসেছেন ব্যবসায়ীরা। কিন্তু এখানেও একই অবস্থা। গরুর চামড়া বিক্রি করতে হচ্ছে ১০০ থেকে ১২০ টাকায়। আর খাসির চামড়া নিচ্ছেই না কেউ।

যশোরের রাজারহাটেও জমেনি চামড়ার বাজার। দাম কম হওয়ায় হতাশা আছে এখানকার ব্যবসায়ীদের মাঝে। এছাড়া গাইবান্ধা, ভৈরবসহ দেশের বিভিন্ন চামড়ার বাজারে একই সংকট।

 

 

সংশ্লিষ্ট সংবাদ

সর্বশেষ সংবাদ

দেশ 24 খবর