channel 24

সর্বশেষ

  • সড়ক দুর্ঘটনায় সৌদি আরবের মদিনায় ৪ বাংলাদেশিসহ নিহত ৭

  • রোহিঙ্গা ইস্যুতে আন্তর্জাতিক সমর্থন আদায়ে সরকার ব্যর্থ...

  • মিয়ানমারের কাছে নতি স্বীকার করেছে: মির্জা ফখরুল

  • শুধু আ.লীগ নয়, সব দলেরই বঙ্গবন্ধুর ছবি ব্যবহার করা উচিত: সালমান এফ রহমান

  • সড়ক দুর্ঘটনায় ফরিদপুর সদরে ৮ ও তালমায় ২ জন নিহত

  • রোহিঙ্গা প্রত্যাবাসনে সরকারের ব্যর্থতা নেই: ওবায়দুল কাদের

  • ডেঙ্গুতে আক্রান্ত হয়ে ময়মনসিংহ মেডিকেলে শিশুর মৃত্যু...

  • গত ২৪ ঘণ্টায় হাসপাতালে ভর্তি ১,১৭৯: স্বাস্থ্য অধিদপ্তর

  • ডেঙ্গু নিয়ন্ত্রণের জন্য আমাকে সম্মাননা দেয়া হয়নি: স্থানীয় সরকার মন্ত্রী

  • শিশু আইন নিয়ে হাইকোর্টের নির্দেশনা এখন থেকে...

  • আইন হিসেবে কার্যকর হবে: বিচারপতি ইমান আলী

  • শিশুকে অপরাধী বলা যাবে না; আসামি বা সাক্ষী হলে...

  • ছবি ও পরিচিতি দেখানো যাবে না: বিচারপতি শেখ হাসান আরিফ

  • জাহালম ইস্যু: দায় স্বীকার করে হাইকোর্টে সোনালী ব্যাংকের প্রতিবেদন...

  • জড়িত ৮ জনের বিরুদ্ধে নেয়া হয়েছে বিভাগীয় ব্যবস্থা

  • সংসদের দক্ষিণ প্লাজায় কমরেড মোজাফফর আহমদের জানাজা শেষে...

  • রাষ্ট্রপতির পক্ষে সামরিক সচিব, প্রধানমন্ত্রী ও স্পিকারের শ্রদ্ধা

  • রংপুরে বেগম রোকেয়া বিশ্ববিদ্যালয়ে বঙ্গবন্ধুর ছবি ভাঙচুরের অভিযোগে...

  • ছাত্রলীগ নেতা ফয়সালসহ গ্রেপ্তার ২; অতিরিক্ত পুলিশ মোতায়েন

রংপুর রোকেয়া বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্যের বিরুদ্ধে নানা অভিযোগ

রংপুর রোকেয়া বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্যের বিরুদ্ধে নানা অভিযোগ

দীর্ঘদিন ধরে কর্মস্থলে অনুপস্থিতি, পছন্দের লোককে নিয়োগ দিতে আইন অমান্যসহ নানা অভিযোগ উঠেছে বেগম রোকেয়া বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্যের বিরুদ্ধে। শিক্ষকরা বলছেন, তার একনায়কতন্ত্রে ক্যাম্পাসে তৈরি হয়েছে অচলাবস্থা। এ বিষয়ে জানতে কার্যালয় ও বাস ভবনে গিয়েও পাওয়া যায়নি উপাচার্য কলিমউল্লাহকে।

নাজমুল আহসান কলিম উল্লাহ। বেগম রোকেয়া বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য।

২০১৭ সালে নিয়োগ পান এই বিশ্ববিদ্যালয়ের সর্বোচ্চ অভিভাবক হিসেবে। নিয়োগের পর হতে বিশ্ববিদ্যালয়ে অনুপস্থিত থাকার রেকর্ড গড়েন তিনি। দুই বছরে ৭শ ৪৪ দিনের মধ্যে ৫শ ৩৭ দিনই দেখা মেলেনি তার। এছাড়া পছন্দের লোকদের নিয়োগ দিতে একের পর এক করেছেন বিধির লঙ্ঘন।

গত বছর ডিসেম্বরে লোক প্রশাসন বিভাগে ২জন শিক্ষক নিয়োগ দেয়া হয়। নিয়ম অনুযায়ী, প্লানিং কমিটির সদস্য থাকবেন বিভাগের শিক্ষক। অভিযোগ, যোগ্য শিক্ষক থাকার পরও সদস্য হয়েছেন উপাচার্য নিজেই। একইভাবে সমাজ বিজ্ঞান, রাষ্ট্রবিজ্ঞান ও জেন্ডার স্টাডিজ বিভাগে নিয়ম ভেঙ্গে নিয়োগ প্রক্রিয়া সেরেছেন উপাচার্য নাজমুল আহসান কলিমুল্লাহ।

সম্প্রতি তিনদফা দাবিতে আন্দোলনে নামেন বিশ্ববিদ্যালয়ের কর্মচারীরা। এতে অচলাবস্থা দেখা দিলেও উপাচার্যেরে অনুপস্থিতির কারণে হয়নি কোনো সুরাহা।

এছাড়া সম্প্রতি ছাত্রীদের সাথে নাচের ভিডিও সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ছড়িয়ে পড়লে তৈরি হয় তীব্র সমালোচনা। এসব অভিযোগ ও অনিয়মের ব্যাপারে বক্তব্য জানতে কার্যালয় ও বাসায় গেলেও তাকে পাওয়া যায়নি। ধরেননি ফোনও।

সংশ্লিষ্ট সংবাদ

সর্বশেষ সংবাদ

দেশ 24 খবর