channel 24

সর্বশেষ

  • রাষ্ট্রীয় ব্যস্ততার কারণেই ভারত যাননি স্বরাষ্ট্র-পররাষ্ট্রমন্ত্রী: কাদের

  • খালেদা জিয়াকে জামিন না দেয়ার সিদ্ধান্ত আদালতের নয়, সরকারের: রিজভী

  • কেরাণীগঞ্জের প্লাস্টিক কারখানার অগ্নিকাণ্ডে দগ্ধ আরও ১০ জনের অবস্থা আশঙ্কাজনক

  • ব্রিটেনের নির্বাচনে টিউলিপসহ বাংলাদেশি বংশোদ্ভূত ৪ নারীর জয়

  • যুক্তরাজ্যে নির্বাচনে একক সংখ্যাগরিষ্ঠতা পেল কনজারভেটিভ পার্টি

'দাঁড়ানো ছেলেগুলোই প্রথমে রিফাতকে হামলা করে'

'দাঁড়ানো ছেলেগুলোই প্রথমে রিফাতকে হামলা করে'

শাহ নেয়াজ রিফাত শরীফের স্ত্রী আয়েশা সিদ্দিকা মিন্নি জানান, কোপানোর সময় যারা চারপাশে দাঁড়িয়েছিল তারাই প্রথমে আক্রমণ করে ও রিফাতকে মারধর করে।

আয়েশা সিদ্দিকা মিন্নি চ্যানেল টুয়েন্টিফোরকে বলেন, ভিডিও ফুটেজে যে কিছু ছেলে দেখে গিয়েছে তাদের কয়েকজন প্রথমে রিফাতকে আক্রমণ করে। আর কিছু মানুষ দাঁড়িয়ে দেখছে। পরে রাম দা নিয়ে দুই তিন জন কোপায়। যে ছেলেগুলো দাঁড়ানো ছিল তারা, তারাই হামলা করে।

মিন্নি ক্ষোভের সঙ্গে বলেন, বারবার সাহায্য চাওয়ার পরও দূরে দাঁড়িয়ে যারা দেখছিল তাদের কেউ রিফাতকে বাঁচাতে বা হাসপাতালে নিয়ে যাওয়ার জন্য এগিয়ে আসেনি।

তিনি বলেন, আমি বারবার তাদের বলছি, আমার স্বামীকে বাঁচাও, ছাইড়া দাও ওরে। কিন্তু কেউ আগায় আসে নাই। আমি একলাই তারে হাসপাতালে নিয়া গেছি।

মিন্নি বলেন, আমি কলেজ থেকে বের হবার সময় রিফাত আমার সাথে ছিল। কিছু ছেলে এসে কিছু একটা বলতেই সেখানে আরো কিছু ছেলে চলে আসে এবং সবাই একসাথে কোপানো শুরু করেছে। আমি অনেক চেষ্টা করেছি, নিজের জীবন বিপন্ন করেও চেষ্টা করেছি তবে ফিরাতে পারি নাই।

খুনিদের দুই একজনকে চিনলেও সবাইকে তিনি চিনেন না। রিফাত ফরাজী, রিশান ফরাজী, নয়ন এদেরকে তিনি চিনেন। তিনি হত্যাকাণ্ডের সুষ্ঠু বিচারের জন্য প্রধানমন্ত্রীর সাহায্য কামনা করেন।

প্রসঙ্গত, বুধবার (২৬ জুন) সকাল সাড়ে ১০টার দিকে বরগুনা সরকারি কলেজের সামনে সন্ত্রাসীরা প্রকাশ্যে দা দিয়ে কুপিয়ে গুরুতর আহত করে রিফাত শরীফকে। তার স্ত্রী আয়শা আক্তার মিন্নি হামলাকারীদের বাধা দিয়েও স্বামীকে বাঁচাতে পারেননি। রিফাতকে কুপিয়ে অস্ত্র উঁচিয়ে এলাকা ত্যাগ করে দুর্বৃত্তরা। গুরুতর আহত রিফাত শরীফকে বরিশাল শের-ই-বাংলা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হলে বিকালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় তিনি মারা যান।

সংশ্লিষ্ট সংবাদ

সর্বশেষ সংবাদ

দেশ 24 খবর