channel 24

সর্বশেষ

  • ডোপটেস্টে মাদকের উপস্থিতি থাকলে সরকারি চাকরিতে নিয়োগ বাতিল: স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী

  • এবার বাজারের পাস্তুরিত দুধে আশঙ্কাজনক কিছু পাওয়া যায়নি...

  • হাইকোর্টে বিএসটিআইয়ের রিপোর্ট জমা...

  • দুধে উদ্বেগজনক হারে অ্যান্টিবায়োটিক, ফরমালিন ও ডিটারজেন্ট...

  • পাওয়া গেছে: ঢাবির বায়োমেডিকেল রিসার্চ ও ফার্মেসি অনুষদ

  • পুরানো সব রেল ও সড়ক সেতু মেরামতের নির্দেশ প্রধানমন্ত্রীর

  • ডোপটেস্টে মাদকের উপস্থিতি থাকলে সরকারি চাকরিতে নিয়োগ বাতিল: স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী

  • এবার বাজারের পাস্তুরিত দুধে আশঙ্কাজনক কিছু পাওয়া যায়নি...

  • হাইকোর্টে বিএসটিআইয়ের রিপোর্ট জমা...

  • দুধে উদ্বেগজনক হারে এন্টিবায়োটিক, ফরমালিন ও ডিটারজেন্ট...

  • পাওয়া গেছে: ঢাবির বায়োমেডিকেল রিসার্চ ও ফার্মেসি অনুষদ

  • বাসচাপায় পা হারানো রাসেলকে ক্ষতিপূরণের বাকি ৪৫ লাখ টাকা...

  • দিতেই হবে গ্রিন লাইনকে, কমানোর সুযোগ নেই: হাইকোর্ট

  • বঙ্গবন্ধু মেডিকেলে প্রথমবারের মতো লিভার ট্রান্সপ্লান্ট চালু হয়েছে: উপাচার্য

দিনাজপুরের বিরলে কবরস্থান ও শ্মশান দখলের অভিযোগ

দিনাজপুরের বিরলে কবরস্থান ও শ্মশান দখলের অভিযোগ

দিনাজপুরের বিরল উপজেলায় যুগ যুগ ধরে ব্যবহৃত কবরস্থান ও শ্মশান দখল করে নেয়ার অভিযোগ উঠেছে, স্থানীয় প্রভাবশালীদের বিরুদ্ধে। এতে মরদেহ দাফন ও সৎকারে সমস্যায় পড়েছেন ১৫টি গ্রামের প্রায় ২০ হাজার মানুষ।

স্থানীয়দের কল্যাণে জমিদারদের দানকরা জমি ফেরত চেয়ে হামলারও শিকার হয়েছেন কেউ কেউ। স্থানীয় প্রশাসন বলছে, তদন্ত করে এ বিষয়ে ব্যবস্থা নেয়া হবে। শত বছর ধরে এই শ্মশান ও সমাধি ব্যবহার করে আসছিলেন দিনাজপুরের বিরল উপজেলার উত্তর মাধবপুর এলাকার প্রায় ১৫ গ্রামের মানুষ।

কিন্তু চার দশক আগে পাশ্ববর্তী পুকুর লিজ নেন স্থনীয় ৫ জন। এরপর থেকে ধীরে ধীরে এই সমাধি ও শ্মশানে স্থানীয়দের প্রবেশে বাধা আসতে থাকে। ফলে বেশ কয়েক বছর ধরেই মৃত ব্যক্তির দাফন ও সংকারে সমস্যায় পড়ছেন হিন্দু-মুসলমান সবাই।

কবরস্থান ও শ্মশানের জন্য নির্ধারিত জমি ফেরত নিতে গিয়ে আন্দোলনও করেছেন স্থানীয়রা। তাতেও সমাধান হয়নি। বরং হামলার শিকার হয়েছেন কেউ কেউ। স্থানীয় জনপ্রতিনিধি বলছেন, কাগজপত্রের হিসেবে জমিগুলো স্থানীয়দের দাফন ও সৎকারের জন্য দান করে গিয়েছিলেন জমিদারারা।

এ ব্যাপারে উপজেলা প্রশাসনকে লিখিত অভিযোগও দেয়া হয়েছে। তদন্ত করে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেয়ার আশ্বাস দিয়েছেন উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা।

শ্মশান ঘাট ও সামাধির জন্য নির্ধারিত প্রায় ১৫ এক জায়গা দখল করে রাখার অভিযোগ যাদের বিরুদ্ধে তাদের কেউ এ বিষয়ে কথা বলতে রাজি হননি।

সংশ্লিষ্ট সংবাদ

সর্বশেষ সংবাদ

দেশ 24 খবর