channel 24

সর্বশেষ

  • 'গাছে দেয়ালে অবৈধভাবে প্রচারণা চালালে ব্যবস্থা নেয়া হবে'

  • ক্রাইস্টচার্চে মসজিদে হামলার ভিডিও ফেসবুকে শেয়ার দেয়ায় ২১ মাসের কারাদণ্ড

  • বিক্রয় লক্ষ্যমাত্রা ৩ হাজার কোটি ডলার কমিয়েছে হুয়াওয়ে

  • মানহানির দুই মামলায় খালেদা জিয়ার জামিন

  • অপরাধ অনুযায়ী শাস্তি হবেই: স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী

  • আড়ংয়ে অভিযানে কর্মকর্তাকে যেভাবে বদলি করা হলো সেটা লজ্জার: হাইকোর্ট

  • লেইস ফিতার ব্যান্ডের প্রথম গান 'স্বপ্ন এখন আমার হাতে'

  • শীর্ষ জলদস্যু ফরিদ কমান্ডার অস্ত্র ও গুলিসহ গ্রেপ্তার

  • লোকসভা নির্বাচনের সময় বাংলাদেশ থেকে কাদের আনা হয়েছিলো? প্রশ্ন মমতার

  • চিলির কাছে বিধ্বস্ত জাপান

  • বিশ্ব আর্চ্যারি চ্যাম্পিয়নশিপে ব্রোঞ্জ জিতে দেশে ফিরেছেন রোমান

  • চার দশকের পথ চলায় মাইলস ব্যান্ড

  • জম্মু-কাশ্মীরে গোলাগুলিতে সেনা কর্মকর্তা নিহত

  • সাকিব আর লিটনের ব্যাটে হতাশায় ওয়েস্ট ইন্ডিজ

  • আমে ফরমালিন-রাসায়নিক পরীক্ষার বিএসটিআই'র রিপোর্টে হাইকোর্টের অসন্তোষ

ধান চাল সংগ্রহ শুরুর আগেই গুদামে জায়গার সংকট

ধান চাল সংগ্রহ শুরুর আগেই গুদামে জায়গার সংকট

রংপুরে ধান চাল সংগ্রহ শুরুর আগেই গুদামগুলোতে দেখা দিয়েছে জায়গা সংকট। সরকারের ২৯ হাজার মেট্রিক টন ধান-চাল সংগ্রহের লক্ষ্যমাত্রা থাকলেও, গুদামগুলোতে খালি জায়গা আছে মাত্র ১ হাজার মেট্রিক টনের। এ অবস্থায় কৃষকরা বলছেন, ধানের ন্যায্য দাম না পেলে পরবর্তীতে ধান চাষ করবেন না তারা।

ধানের ন্যায্য দাম না পেয়ে যখন কৃষকের মাথায় হাত, তখন সরকারিভাবে ধান সংগ্রহের আশ্বাসে কিছুটা প্রশান্তিতে আছেন রংপুরের কৃষকরা। তবে গত ২৫ এপ্রিল থেকে এ অঞ্চলে ধান সংগ্রহ অভিযানের কথা থাকলেও এখনও কোন কার্যক্রম শুরু করেনি খাদ্য বিভাগ।

জেলা খাদ্য নিয়ন্ত্রক কার্যালয়ের তথ্য অনুযায়ী, রংপুর জেলার ৮টি গুদামের ধারণ ক্ষমতা আছে ২০ হাজার মেট্রিকটন। আর বর্তমানে ধান মজুত আছে ১৯ হাজার মেট্রিক টন ধান-চাল। জায়গা খালি আছে মাত্র ১ হাজার মেট্রিক টনের।

এ অবস্থাতেও আশার আলো দেখছেন রংপুর জেলা নিয়ন্ত্রকের তথ্য সরবারহকারী কর্মকর্তা। বলেন, মজুতের জায়গা সংকট থাকলেও দ্রত ফাঁকা হয়ে যাবে গুদামগুলো।

কৃষকরা বলছেন ন্যায্য দাম না পেলে পরবর্তীতে ধান চাষ না করে বিকল্প চিন্তা করবেন তারা। আর কৃষক নেতাদের দাবি, কৃষকদের ন্যায্য দাম দিতে হলে দ্রুত ধান সংগ্রহ শুরু করতে হবে।

কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তরের তথ্যমতে, এ বছর রংপুর জেলায় বোরো ধান উৎপাদন হয়েছে ৬ লাখ মেট্রিক টন। যার মধ্যে মাত্র ৪ হাজার মেট্রিক টন ধান সংগ্রহের লক্ষ্যমাত্রা নির্ধারণ করেছে খাদ্য বিভাগ।

সংশ্লিষ্ট সংবাদ

সর্বশেষ সংবাদ

দেশ 24 খবর