channel 24

সর্বশেষ

  • চাল আমদানি হওয়ায় ন্যায্য মূল্য পাচ্ছেনা কৃষক

  • যৌন কেলেঙ্কারির মামলায় জুলিয়ান অ্যাসাঞ্জকে আটকের দাবি

  • পাকস্থলিতে করে হাজার হাজার ইয়াবা পাচার

  • কাল থেকে ঈদে ট্রেনের আগাম টিকিট বিক্রি শুরু

  • তিউনিসিয়ায় নৌকাডুবি: দেশে ফিরেছেন ১৫ বাংলাদেশি

  • জয়ের বিষয়ে আশাবাদি কংগ্রেসসহ ২১টি বিরোধী দল

  • জাতীয় বাজেটে পৌরসভার বাজেট বাড়ানোর দাবি

  • বিজিবির পোশাকে শো-রুম থেকে ৫০টি মোবাইল ছিনতাই

  • মধুর ক্যান্টিনে হামলার ঘটনায় ছাত্রলীগের একজনকে স্থায়ী ও ৪ জনকে সাময়িক বহিষ্কার

  • বঙ্গবন্ধুর জন্মশতবার্ষিকী উদযাপনে দশটি আন্তর্জাতিক আসর আয়োজনের প্রস্তাব

  • বিশ্বকাপে অংশ নেয়া আফগানিস্তান দলের পরিসংখ্যান

  • লেস্টারে দ্বিতীয় দিনের মতো অনুশীলন করেছে বাংলাদেশ

  • ক্রিকেটারের চেয়ে নির্বাচকের দায়িত্ব কঠিন: মিনহাজুল আবেদীন

  • নিজেকে প্রমাণ করেই বিশ্বকাপে জায়গা পেলেন আবু জায়েদ রাহি

  • মির্জা ফখরুল সংসদে থাকলে বিরোধীদল আরও শক্তিশালী হতো: কাদের

প্রত্যাশিত দাম না মেলায় ধান কাটতে অনীহা কৃষকদের

প্রত্যাশিত দাম না মেলায় ধান কাটতে অনীহা কৃষকদের

মৌসুমের শুরুতেই বোরো ধানের দাম নিয়ে বিপাকে দিনাজপুর, লালমনিরহাট ও নেত্রকোনার কৃষকরা। ন্যায্য দাম না পাওয়ার শঙ্কায় অনেকেই খেত থেকে ধানই কাটছেন না। এ অবস্থায় সরকারকে ধানের দাম নির্ধারণ করে দেয়ার আহবান জানিয়েছেন কৃষকরা। যদিও ধানের বাজারমূল্য বৃদ্ধির ব্যাপারে সরকারের উচ্চ পর্যায়ে আলোচনার আশ্বাস মিলেছে।

বাজারে ধানের দাম নেই তাই চড়া মজুরি দিয়ে খেতের ধান কাটার সাহস পাচ্ছেন না দিনাজপুরের কৃষক সহিরউদ্দিন।

সহিরউদ্দিনের মতোই গোলায় ধান তোলা নিয়ে শঙ্কায় জেলার কৃষকরা। একদিকে অন্যের জমি বর্গা অন্যদিকে ঋণ নিয়ে যারা আবাদ করেছিলেন তারা পড়েছেন মহাবিপদে। উৎপাদন খরচ তোলা নিয়েই সন্দিহান তারা।

ধানের বাজারমূল্য বৃদ্ধির ব্যাপারে সরকারের উচ্চ পর্যায়ে আলোচনার কথা জানিয়েছেন, স্থানীয় সংসদ সদস্য নৌপরিবহন প্রতিমন্ত্রী খালিদ মাহমুদ চৌধুরী।

লালমনিরহাটেও বোরো ধানের ফলন ভালো হলেও ন্যায্য মূল্য না পাওয়ায় হতাশ কৃষকরা। ঋন নিয়ে বিঘা প্রতি জমিতে বোরো ধান চাষে ব্যয় হয়েছে ৭ হাজার টাকা। কিন্তু বাজারে বিঘা প্রতি ধানের দাম পড়ছে ৫ হাজার টাকা।                                                                                                                             

জেলার ভারপ্রাপ্ত খাদ্য নিয়ন্ত্রক আবু হেনা মোস্তফা কামাল জানান, সরকারিভাবে ধান ও চাল কেনা শুরু হবে শিগগিরই। এতে লাভবান হবেন কৃষকরা।

নেত্রকোণার কৃষকদের দাবি, সরকার যদি তাদের কাছ থেকে সরাসরি ধান ক্রয় করতো তাহলে এ ক্ষতির মুখে পড়তে হতো না।

ধানের দাম নির্ধারণ করে কৃষকদের বাঁচাতে সরকারকে এগিয়ে আসার আহবান কৃষকদের।

সংশ্লিষ্ট সংবাদ

সর্বশেষ সংবাদ

দেশ 24 খবর