channel 24

সর্বশেষ

  • খালেদা জিয়ার মুক্তির বিষয়ে আন্তর্জাতিক মহলকে অবহিত করা হবে: ফখরুল

  • বকেয়া পরিশোধ না হলে চামড়া বিক্রি বন্ধ: আড়তদার সমিতি

  • ধ্বংসাত্মক রাজনীতির কারণে ভুলের চোরাবালিতে বিএনপি: ওবায়দুল কাদের

  • ভারতের নয়াদিল্লিতে অল ইন্ডিয়া মেডিকেল ইনস্টিটিউটের আগুন নিয়ন্ত্রণে

  • অবসর বিষয়ে মাশরাফীর সিদ্ধান্ত দুই মাস পর: বিসিবি সভাপতি

  • ক্রিকেট দলের নতুন হেড কোচ দক্ষিণ আফ্রিকার রাসেল ক্রেগ ডোমিঙ্গো...

  • দায়িত্ব নেবেন ২১ আগস্ট, চুক্তি দুই বছরের: বিসিবি সভাপতি

  • গত ২৪ ঘণ্টায় সারা দেশে ভর্তি ১ হাজার ৪শ' ৬০: স্বাস্থ্য অধিদপ্তর

  • ডেঙ্গুতে ঢাকা মেডিকেলে নারী ও ফরিদপুর মেডিকেলে কলেজছাত্রের মৃত্যু

  • ডেঙ্গু প্রতিরোধ: ঢাকা উত্তরের প্রতিটি ওয়ার্ডকে...

  • ১০ ভাগে ভাগ করে চিরুনি অভিযান: মেয়র আতিকুল

  • ঢাকাকে হংকং, সিঙ্গাপুর বানানোর ঘোষণা স্থানীয় সরকার মন্ত্রীর

  • বকেয়া পরিশোধ না করায় ট্যানারিতে আপাতত...

  • চামড়া না দেয়ার ঘোষণা পোস্তার আড়তদারদের...

  • কাল সরকারের সাথে বৈঠকের পর চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত...

  • চামড়া বিক্রি করা না করা তাদের নিজস্ব ব্যাপার...

  • বকেয়া পরিশোধ হবে কেস টু কেস ভিত্তিতে: ট্যানার্স অ্যাসোসিয়েশন

  • সুপরিকল্পিতভাবে রাজনীতিকে শূন্য করার চক্রান্ত চালাচ্ছে সরকার: ফখরুল

  • কলকাতায় সড়ক দুর্ঘটনায় ২ বাংলাদেশি নিহত

ফণীর প্রভাবে গৃহহীন মানুষ; ত্রাণ নয়, পুনর্বাসনের দাবি

ফণীর প্রভাবে গৃহহীন মানুষ; ত্রাণ নয়, পুনর্বাসনের দাবি

নোয়াখালীতে ঘূর্ণিঝড় ফণীর প্রভাবে গৃহহীন অনেক মানুষ এখনও খোলা আকাশের নিচে। দিনে কোনোমতে থাকলেও রাত কাটে ঝড় বৃষ্টি আতঙ্কে। ভুক্তভোগীরা বলছেন, এই কদিনে সরকারি বেসরকারিভাবে যে সহায়তা দেয়া হয়েছে, তা ফুরিয়ে গেছে। তবে ত্রাণ নয় তাদের দাবি, পুনর্বাসন। স্থানীয় প্রশাসন বলছে, রোজার ঈদের আগেই এই মানুষগুলোর পুনর্বাসনে সরকার আন্তরিক।

সরকারি হিসেবে ঘূর্ণিঝড় ফণীর প্রভাবে নোয়াখালী সদর, সুবর্ণচর ও কোম্পানিগঞ্জ উপজেলার বিভিন্ন স্থানে ৬৮৯টি বাড়ি সম্পূর্ণ এবং ৩৩৩টি বাড়ি আংশিক বিধ্বস্ত হয়। এরমধ্যে সদর উপজেলার ধর্মপুর ইউনিয়নের পূর্ব শূল্লকিয়া ও সুবর্ণচর উপজেলার ওয়াপদা ইউনিয়নের চর আমিনুল হক গ্রামে দুই শতাধিক ঘর সম্পূর্ণ বিধ্বস্ত হয়। ভেঙে গেছে প্রচুর গাছপালা।

আকস্মিক ঝড়ে শুধু বাড়িঘর নয়, উড়িয়ে নিয়ে গেছে খাদ্যশস্য, মুরগি ও গরুর খামারও। সব হারিয়ে দিশেহারা অনেক পরিবার। চাহিদার তুলনায় তারা সরকারি বেসরকারি যে সহায়তা পেয়েছে তাও ফুরিয়ে গেছে। এখনও খোলা আকাশের নিচে সামিয়ানা টানিয়ে থাকছে পরিবারগুলো। ৎ

নোয়াখালীর জেলা প্রশাসক তন্ময় দাসের দাবি, শুরু থেকেই সরকারিভাবে পর্যাপ্ত ত্রাণ দেয়া হয়েছে। এরইমধ্যে পুনর্বাসনেরও উদ্যোগ নেয়া হয়েছে। রোজার ঈদের আগেই ক্ষতিগ্রস্তদের পুনর্বাসনের আশ্বাস তার।

ত্রাণ ও দুর্যোগ মন্ত্রণালয়ের হিসাবে, ঘূর্ণিঝড় ফণীর প্রভাবে দেশের বিভিন্ন খাতে ৫শ ৩৬ কোটি ৬১লাখ টাকার ক্ষতি হয়েছে। এরমধ্যে রয়েছে বাড়িঘর, বাঁধ, রাস্তা, ফসল, মাছ, বন ও পরিবেশগত ক্ষয়ক্ষতি।

সর্বশেষ সংবাদ

দেশ 24 খবর