channel 24

সর্বশেষ

  • আদালতে নিঃশর্ত ক্ষমা চাইলেন নিরাপদ খাদ্য কর্তৃপক্ষের চেয়ারম্যান

  • তেলের ট্যাংকারে হামলায় ইরানের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেয়ার আহবান

  • পরিসর বাড়ছে ঐক্যফ্রন্টের

  • বাজেটে এবারও গুরুত্ব পায়নি বাণিজ্যিক কৃষি

  • শ্রীলঙ্কাকে হারিয়ে তালিকার শীর্ষে অস্ট্রেলিয়া

  • তিন ম্যাচ পর প্রথম জয়ের দেখা পেলো দক্ষিণ আফ্রিকা

  • পেশাগত দক্ষতা বিবেচনায় সেনা সদস্যদের পদোন্নতির নির্দেশ প্রধানমন্ত্রীর

  • ব্রাহ্মণবাড়িয়ার মুক্তিযোদ্ধাকে লাঞ্ছনার অভিযোগ পুলিশের বিরুদ্ধে

  • পরিবর্তন হল কারাগারের সকালের নাস্তার মেন্যু

  • ব্যবসায়ীকে থানায় নির্যাতন, চার পুলিশ সদস্য সাময়িক বরখাস্ত

  • আকাশের মতোই বিশাল বাবা

  • সাগরে দুই মাস মাছধরা বন্ধে ভালো নেই জেলেরা

  • মাগুরায় আ.লীগের দুপক্ষের সংঘর্ষে আহত ২০

  • আজ মুখোমুখি হবে চিরপ্রতিদ্বন্দ্বী ভারত-পাকিস্তান

  • রামসাগর জাতীয় উদ্যানের গাছ কেটে পাচারের সময় চালক আটক

অতিরিক্ত ওজনের বস্তা ওঠানামায় শারীরিক সমস্যায় শ্রমিকরা

অতিরিক্ত ওজনের বস্তা ওঠানামায় শারীরিক সমস্যায় শ্রমিকরা

আদালত ও সরকারি নির্দেশনা অমান্য করে, দিনাজপুরের অধিকাংশ হিমাগারে রাখা হচ্ছে ৫০ কেজির বেশি ওজনের আলুর বস্তা। এসব বস্তা উঠানামা করায় মারাত্মক শারীরিক সমস্যায় পড়ছেন শ্রমিকরা। শ্রম বিভাগের কর্মকর্তারা বলছেন, এ বিষয়ে সংশ্লিষ্টদের চিঠি দেয়া হয়েছে। পদক্ষেপ না নিলে অভিযুক্তদের বিরুদ্ধে মামলা করা হবে।

মাথায় বয়ে নেয়া বস্তার ওজন ৫০ কেজির বেশি। কোন কোন বস্তায় মাল আছে ৭০ থেকে ৮০ কেজি, এমনকি একশো কেজিও। কিন্তু কষ্ট হলেও জীবিকার তাগিদে এর প্রতিবাদ করতে পারেন না শ্রমিকরা।

আরও জানতে: 'সম্রাট' নামে নামার প্রস্তুতি নিচ্ছে সুপ্রভাত

ভয়াবহ আগুনের এক মাস পরও স্বাভাবিক হয়নি চুড়িহাট্টার জনজীবন

শ্রবণযন্ত্রের সর্বোচ্চ খুচরা মূল্য নির্ধারণ

শ্রম আইনের ৭৪ধারা এবং শ্রম বিধিমালার ৬৩ বিধিতে বলা হয়েছে, শ্রমিকদের দিয়ে ৫০ কেজির বেশি ওজনের বস্তা বহন করানো যাবে না। ২০১৮ সালে হাইকোর্টও এ বিষয়ে নিষেধাজ্ঞা দেন। কিন্তু এই নির্দেশনার তোয়াক্কা না করছেন না দিনাজপুরের হিমাগার মালিকরা।

সরকারি নির্দেশনা তদারকির দায়িত্বে থাকা কর্মকর্তা  কলকারখানা ও প্রতিষ্ঠান পরিদর্শন অধিদপ্তরের উপমহাপরিচালক মোস্তাফিজুর রহমান বলছেন, হিমাগারগুলোতে ৫০কেজির বেশি ওজনের বস্তা পাওয়া গেছে। ফলে সংশ্লিষ্টদের সতর্ক করে চিঠি দেয়া হয়েছে। এতেও না শোধরালে বিভাগীয় শ্রম আদালতে মামলা করা হবে।

দিনাজপুর কলকারখানা ও প্রতিষ্ঠান পরিদর্শন অধিদপ্তরের অধীনে ৩টি জেলায় হিমাগার রয়েছে ২৮টি। এসব হিমাগারে কাজ করছেন এক হাজার শ্রমিক।

সংশ্লিষ্ট সংবাদ

সর্বশেষ সংবাদ

দেশ 24 খবর