channel 24

সর্বশেষ

  • মানিকগঞ্জের পুখুরিয়ায় বাসচাপায় মোটরসাইকেল আরোহী বাবা-ছেলে নিহত

  • ভোটারদের কেন্দ্রে আনার দায়িত্ব প্রার্থীর, ইসির নয়: সিইসি

  • উন্নয়ন করতে গিয়ে গরিবের ক্ষতি করা যাবে না: প্রধানমন্ত্রী

  • দায়িত্ব নিচ্ছেন ডাকসুর ভিপি নুর; অফিস বুঝে পেতে চিঠি...

  • ডাকসু নির্বাচন সংক্রান্ত অভিযোগ তদন্তে কমিটি; ৭ দিনের মধ্যে প্রতিবেদন

  • ঢাকায় পরিবহন খাতে শৃঙ্খলা ফেরাতে ব্যর্থতা স্বীকার ডিএমপি কমিশনারের

  • ছাত্র আন্দোলনে উসকানি বিএনপির দেউলিয়াত্বের প্রমাণ: হানিফ

  • পদ্মাসেতুর জাজিরা প্রান্তে আজ বসানো হচ্ছে না অষ্টম স্প্যান

  • এমপিওভুক্তির দাবিতে জাতীয় প্রেস ক্লাবের সামনে...

  • সড়ক অবরোধ করে আন্দোলন করছে শিক্ষকরা

  • সড়ক দুর্ঘটনায় সিরাজগঞ্জ, খুলনা ও নরসিংদীতে ৩ স্কুলশিক্ষার্থী নিহত

  • রাজধানীর কল্যাণপুরে তেলবাহী লরির ধাক্কায় মাদ্রাসা শিক্ষক নিহত

অগ্নি দুর্ঘটনার ঝুঁকি নিয়ে চলছে ঝিনাইদহ সদর হাসপাতাল

অগ্নি দুর্ঘটনার ঝুঁকি নিয়ে চলছে ঝিনাইদহ সদর হাসপাতাল

ঝিনাইদহ সদর হাসপাতালে ছড়িয়ে ছিটিয়ে থাকা বৈদ্যুতিক তার কিংবা সুইচ থেকে যেকোনো সময় ঘটতে পারে অগ্নিকান্ড। নেই অগ্নি নির্বাপনের ব্যবস্থাও। ফলে আতঙ্কিত সেবা নিতে আসা রোগী, স্বজন ও হাসপাতালকর্মীরা। ফায়ারসার্ভিসের অভিযোগ, হাসপাতাল কর্তৃপক্ষের অসহযোগীতায় সচেতনতা মহড়া করতে পারছেন না তারা। আর হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ বলছে, কর্মীদের বিভিন্ন প্রশিক্ষণের ব্যবস্থা করতে আগ্রহী তারা।

ঝিনাইদহ সদর হাসপতাল। জেলার ২০ লাখ মানুষের ভরসাস্থল। প্রতিদিন হাজারো রোগীর সমাগম হলেও, হাসপাতালে নেই অগ্নি নির্বাপণের কোনো ব্যবস্থা।

আরও জানতে: সাগরগর্ভে বিলীনের পথে কুয়াকাটা সৈকতের সবুজ বেষ্টনী

বিশ্বে ধান উৎপাদন প্রবৃদ্ধিতে শীর্ষে বাংলাদেশ

চা-কফি নয়, ব্রেকফাস্টে নিন উপকারী বিকল্প

যেখানে সেখানে ছড়িয়ে আছে বিদ্যুতের তার। স্টোর রুম, সিঁড়ির নিচে স্তূপ করে রাখা  কাগজ ও আবর্জনা। রোগীদের চিকিৎসায় ব্যবহৃত অক্সিজেন সিলিন্ডারগুলোও অরক্ষিত। সম্প্রতি রাজধানীর সোহরাওয়ার্দী মেডিকেল এবং চকবাজারের মতো বড় আগুনের ঘটনায়, আরও বেশি আতঙ্কিত, রোগী, স্বজন ও হাসপাতালের কর্মীরা।

ঝিনাইদহ ফায়ার সার্ভিস ও সিভিল ডিফেন্সের উপসহকারী পরিচালক রফিকুল ইসলাম বলছে, সদর হাসপাতালে আগুনের ঝুঁকি বেশি থাকায়, বারবার সচেতনতামূলক মহড়া করতে চেয়েছে তারা। কিন্তু হাসপাতাল কর্তৃপক্ষের অসহযোগিতায়, তা সম্ভব হয়নি।

তবে অভিযোগ অস্বীকার করে হাসপাতাল তত্ত্বাবধায়ক ডা. আয়ুব আলী বলছে, অগ্নিকাণ্ড মোকাবেলায়, হাসপাতালের কর্মীদের বিভিন্ন প্রশিক্ষণের ব্যবস্থা করতে  তারা আগ্রহী। ব্যবস্থা নেয়ার আশ্বাস দিয়েছেন জেলা প্রশাসক সরোজ কুমার নাথও।

শুধু জেলার এই প্রধান স্বাস্থ্যকেন্দ্রই নয়, ঝিনাদহের ৫টি উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সেও নেই অগ্নি নির্বাপণের ব্যবস্থা।

সংশ্লিষ্ট সংবাদ

সর্বশেষ সংবাদ

দেশ 24 খবর